“১০০ দিনের কাজ, আবাস যোজনার টাকা দেয়নি কেন্দ্র”, মোদীকে চিঠি মমতার

43
'এখান থেকে তুলে নিয়ে ভাগ বসাচ্ছ, টাকা দাও', মোদীকে চিঠি মমতার
'এখান থেকে তুলে নিয়ে ভাগ বসাচ্ছ, টাকা দাও', মোদীকে চিঠি মমতার
Simple Custom Content Adder

‘এখান থেকে তুলে নিয়ে ভাগ বসাচ্ছ, টাকা দাও’; মোদীকে চিঠি মমতার। “১০০ দিনের কাজ, আবাস যোজনার টাকা দেয়নি কেন্দ্র”; এবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর হস্তক্ষেপ চেয়ে চিঠি দিলেন; বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ফের একবার কেন্দ্র সরকারের বিরুদ্ধে ফের সুর চড়িয়ে, মমতার মন্তব্য; “দুয়ারে সরকার, পাড়ায় সমাধান থেকে কন্যাশ্রী, ১০০ দিনের কাজ। কেন্দ্রীয় সরকার টাকা দিচ্ছে না, তুলে নিয়ে যাচ্ছে; আবাস যোজনা, কেন্দ্র টাকা দিচ্ছে না। রাজ্যের যে কোনও সমস্যা আমরা সমাধান করতে পারছি না”।

১০০ দিনের কাজের টাকা চাওয়া থেকে, কেন্দ্রীয় বঞ্চনার অভিযোগে; ফের সরব বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্য়োপাধ্যায়। ফের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে চিঠি পাঠালেন মমতা। ‘প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনা’ প্রকল্পে বাংলার পারফরম্যান্স সবচেয়ে ভাল হওয়ার পরও; নতুন করে কোনও বরাদ্দ হয়নি বলে অভিযোগ তুলেছেন মুখ্যমন্ত্রী। ১০০ দিনের কাজের প্রকল্প অর্থাৎ মনরেগার টাকা পাচ্ছে না রাজ্য; তা উল্লেখ করে বকেয়া টাকা চেয়ে মোদীকে চিঠি পাঠালেন মমতা।

৪ মাস ধরে ১০০ দিনের কাজের টাকা বকেয়া থাকার অভিযোগ, আবাস যোজনায় নতুন করে বরাদ্দ টাকা না দেওয়ার অভিযোগ। অবিলম্বে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ চেয়ে চিঠি দিলেন মুখ্যমন্ত্রী। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এর প্রশ্ন, “১০০ দিনের কাজের টাকা দেয়নি কেন্দ্র; টাকা এখান থেকে তুলে নিয়ে ভাগ বসায় কেন্দ্র। আর রাজ্যকে টাকা দেয় না। রাজ্যের সব সমস্যার কে সমাধান করবে?”

বৃহস্পতিবার দুপুরে WBCS অফিসারদের বার্ষিক সম্মেলনে যোগ দিয়ে; কেন্দ্রের বিরুদ্ধে বঞ্চনার অভিযোগে সরব হয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। অভিযোগ তুলেছিলেন, বাংলার বকেয়া টাকা দীর্ঘ সময় ধরে; আটকে রেখেছে কেন্দ্র সরকার। উলটে কর আদায় করছে। এরপর বিকেলে নবান্নে ফিরে তড়িঘড়ি; মোদীকে চিঠি লেখেন মমতা। গ্রাম বাংলার দরিদ্র জনতার স্বার্থে, বকেয়া সেই টাকা দ্রুত দিক কেন্দ্র; চিঠিতে জোর দিয়ে সেই আবেদনই জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা।

তাঁর আরও বক্তব্য, “প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনায় নতুন করে অর্থ বরাদ্দ না করলে; সাধারণ মানুষজন মাথার উপর ছাদ গড়তে খুবই সমস্যায় পড়ছেন। ১০০ দিনের কাজে টাকা না দিলে; সমস্যায় পরছে বাংলার মানুষ। তাই প্রধানমন্ত্রী যেন দ্রুত এই বিষয়ে হস্তক্ষেপ করে, সংশ্লিষ্ট মন্ত্রককে দ্রুত টাকা দেওয়ার কথা জানান; চিঠিতে এমনই আবেদন জানিয়েছেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন