৬০ বছরের মহিলা প্রার্থীও রেহাই পেল না বাংলার ভোট অশান্তি থেকে

133
West Bengal Municipality Election Incidents
৬০ বছরের মহিলা প্রার্থীও রেহাই পেল না বাংলার ভোট অশান্তি থেকে
Simple Custom Content Adder

৬০ বছরের মহিলা প্রার্থীও রেহাই পেল না; বাংলার ভোট অশান্তি থেকে। ভোটের আগের দিন রাতেই আক্রান্ত হলেন; কোন্নগর পুরসভার ১০ নম্বর ওয়ার্ডের বিজেপি প্রার্থী কৃষ্ণা ভট্টাচার্য। সিনিয়ার সিটিজেন এই প্রার্থীকে প্রকাশ্য রাস্তায় ফেলে; বেধড়ক মারধরের অভিযোগ উঠল তৃণমূলের বিরুদ্ধে। তাঁর পায়ে তৈরি হয়েছে একাধিক ক্ষত; রক্ত ঝরছে অবিরাম। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। প্রতিবাদে কোন্নগর বটতলা জিটি রোড অবরোধ করেন বিজেপি কর্মীরা; ঘটনাস্থলে বিশাল পুলিশ বাহিনী এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

কৃষ্ণা ভট্টাচার্য বিজেপির প্রাক্তন রাজ্য ভাইস প্রেসিডেন্ট; তিনি এবার কোন্নগর পুরসভার ১০ নম্বর ওয়ার্ডে লড়ছেন। তাঁকে বেধড়ক মারধরের অভিযোগ উঠেছে তৃণমূল কর্মীদের বিরুদ্ধে। যদিও হামলার অভিযোগ অস্বীকার করেছে তৃণমূল। আক্রান্ত প্রার্থীর ভিডিয়ো পোস্ট করে টুইট করেছেন; বিজেপি নেতা অমিত মালব্য। তিনি লিখেছেন, “বাংলায় গণতন্ত্র লুন্ঠিত হচ্ছে; নির্বাচনে রক্ত ঝরছে। তৃণমূলের গুণ্ডাবাহিনী বিজেপির প্রাক্তন রাজ্য ভাইস প্রেসিডেন্টের ওপর হামলা চালিয়েছে; অমানবিক অত্যাচার হয়েছে তাঁর ওপর। কৃষ্ণা ভট্টাচার্য তৃণমূলের বহিরাগত তৃণমূল চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে এবারে লড়ছেন”।

মানুষকে ভয় দেখানোর জন্যই পুরসভা নির্বাচনের ঠিক আগের রাতে; তৃণমূল কংগ্রেসের ওই ওয়ার্ডের প্রার্থী তন্ময় দেবের নেতৃত্বে এই হামলা চালানো হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে তৃণমূল কংগ্রেস। মোটরবাইকে করে বাড়ি ফিরছিলেন বিজেপি প্রার্থী কৃষ্ণা ভট্টাচার্য। গুরুতর অবস্থায় তাঁকে কমলনয়ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এই ঘটনার জেরে রাতেই জিটি রোড অবরোধ; আগুন জ্বালিয়ে বিক্ষোভ এবং ভাঙচুর করা হয় কয়েকটি ট্রাকে। এই ঘটনাকে ঘিরে উত্তাপ বাড়ছে। ১০৮টি পুরসভা নির্বাচনের নিরাপত্তার দায়িত্বে আছে রাজ্য পুলিশই। ইতিমধ্যেই ভোট গ্রহণ চলছে; কিন্তু রাতের ঘটনার প্রেক্ষিতে এখনও এলাকায় উত্তেজনা রয়েছে।

ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ করেছেন; বিজেপি রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার। তিনি বলেন, “ষাটোর্ধ্ব এক মহিলা, আমাদের রাজ্যের প্রাক্তন ভিপি; তাঁকে এমন অমানসিক-ভাবে কেউ পেটাতে পারে; বিশ্বাস হয় না। ছবি রয়েছে; সেই ছবি দেখলে আপনাদেরও মায়া হবে। একজন মায়ের বয়সী, তাঁকে যদি কেউ এভাবে মারধর করে! এই দলের কাছ থেকে আমাদের কিচ্ছু আশা নেই; গণতান্ত্রিক কোনও ব্যবস্থাই এরা মানে না। লড়াই করতে হবে, লড়াই করেই এই অত্যাচারী সরকার পরিবর্তিত হবে”।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন