ভোটের মধ্যেই কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা কর্মীদের জন্য সুখবর, প্রচুর বেতন বাড়ছে

425
ভোটের মধ্যেই কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীদের জন্য সুখবর, প্রচুর বেতন বাড়ছে/The News বাংলা
ভোটের মধ্যেই কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীদের জন্য সুখবর, প্রচুর বেতন বাড়ছে/The News বাংলা
Simple Custom Content Adder

কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা কর্মচারীদের জন্য সুখবর। সপ্তম পে কমিশনের আওতায় চলতি অর্থবর্ষে কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারীদের নূন্যতম বেতন বাড়াতে চলেছে কেন্দ্রীয় সরকার। নূন্যতম আয়ে ২৬০০০ টাকা বৃদ্ধি দাবি করেছিলেন নিরাপত্তা কর্মচারীরা। কিন্তু কেন্দ্র ১৮০০০ টাকা বৃদ্ধির সুপারিশ মঞ্জুর করেছে।

একইসঙ্গে বাকি বকেয়াও মিটিয়ে দেওয়া হবে। বিজ্ঞপ্তি দিয়ে এখবর জানিয়েছে কেন্দ্র। এই নির্দেশিকা লাগু হলেই কমপক্ষে নয় লক্ষ কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারীর নূন্যতম আয়ে বৃদ্ধি হবে। উপকৃত হবেন বিএসএফ সহ বিভিন্ন নিরাপত্তাকর্মীরা।

আরও পড়ুনঃ ইয়েতিকে জন্তু বলায় ভারতীয় সেনার উপর ক্ষুব্ধ বিজেপি নেতা

সিআরপিএফ, বিএসএফ, সিআইএসএফ, আইটিবিপি, সশস্ত্র সীমা বল, সার্ভিস সিলেকশন বোর্ড বা এসএসবি, রেল, আইটিএস এবং বিএসএনএল–এর ডেপুটেশনে থাকা কর্মীদের বেতনবৃদ্ধি হবে। প্রায় ৯ লাখ কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মী উপকৃত হবেন।

ডিএ, রেশন ভাতা, ঝুঁকি ভাতা, কঠিন পরিশ্রম ভাতা সহ বিভিন্ন ভাতা বৃদ্ধি করা হল। কাশ্মীরে সিআরপিএফ কনভয়ে জঙ্গি হামলার পরেও এই ভাতা বৃদ্ধি নিয়ে ফের দাবি উঠেছিল। ভোটের মধ্যেই এল সুখবর। উল্লসিত নিরাপত্তা কর্মীরা।

২০১৮ সালের জানুয়ারী থেকে ২০১৯ এর এপ্রিল পর্যন্ত মিটিয়ে দেওয়া হবে নতুন হারে বকেয়া। এর মধ্যে থাকছে এই লোকসভা ভোটের জন্য ডেপুটেশনে থাকার ভাতাও। সেটাও দেওয়া হবে নতুন হারে।

আরও পড়ুনঃ পায়ের ছাপ দেখিয়ে ভারতীয় সেনার দাবি, ইয়েতির অস্তিত্ব আজও আছে হিমালয়ে

সপ্তম পে কমিশনের প্রস্তাবিত সুপারিশ কেন কার্যকর করা হচ্ছে না? দিন কয়েক আগেই বিএসএনএল–এর কর্মচারীরা বেতন বৃদ্ধি, পদোন্নতি এবং পেনশনের টাকার পুনর্বিবেচনার দাবিতে বিক্ষোভ দেখিয়েছিলেন। প্রতি ১০ বছরে বিএসএনএল–এর কর্মীরা এই সুবিধা পান।

বিএসএনএল–এর বিক্ষোভের পরেই এই পদক্ষেপ করতে চলেছে কেন্দ্র। আগামী বাজেট অধিবেশনে তাদের ওই দাবি নিয়ে ফের আলোচনাও হবে। নুন্যতম বেতন আরও বৃদ্ধি নিয়েও আলোচনা হবে বলেই জানান হয়েছে।

আরও পড়ুনঃ ভোটের মধ্যেই চরম সমস্যায় রাহুল, ভারতীয় নাগরিক প্রমাণ দিতে হবে দু সপ্তাহের মধ্যে

এছাড়া পার্সোনাল, পাবলিক গ্রিভান্সেস অ্যান্ড পেনশন বিভাগ থেকেও আরেকটি নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে। সেখানে পাঁচ দফায় ভাতা বৃদ্ধির উল্লেখ রয়েছে। যেমন, পিএইচডি বা সমস্তরের ডিগ্রিধারী কর্মীরা ৩০০০০ টাকা করে ভাতা পাবেন।

একবছরের বেশি বা সমসময়ের স্নাতকোত্তর ডিগ্রি বা ডিপ্লোমাধারী কর্মীরা পাবেন ২৫০০০ টাকা ভাতা। একবছরের কম বা সমসময়ের স্নাতকোত্তর ডিগ্রি বা ডিপ্লোমাধারী কর্মীরা পাবেন ২০০০০ টাকা ভাতা।

আরও পড়ুনঃ ভোটের মধ্যেই ফের লজ্জায় রাহুল, হাতজোড় করে ক্ষমা চাইতে হল আদালতে

তিন বছরের স্নাতক বা সমস্তরের ডিগ্রি বা ডিপ্লোমাধারী কর্মীরা পাবেন ১৫০০০ টাকা ভাতা। তিন বা কম সময়ের ডিগ্রি বা ডিপ্লোমাধারী কর্মীরা পাবেন ১০০০০ টাকা ভাতা। এই ঘোষণায় প্রায় ৯ লাখ কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মী উপকৃত হবেন।

ভোটের মধ্যে এই ধরণের খবর বেরোচ্ছে কেন? এই নিয়ে নির্বাচন কমিশনে যাচ্ছে বিরোধী দলগুলি। বিজেপির তরফে দাবি করা হয়েছে, এটা শিডিউল ছিল। নতুন করে কিছু ঘোষণা করা হয় নি।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন