“আমার মেয়ে দেশদ্রো’হী ও দেশ বি’রোধী কাজে যুক্ত”, চিঠি লিখে অভিযোগ শেহলা রশিদের বাবার

1352
"আমার মেয়ে দেশদ্রো'হী ও দেশবি'রোধী কাজে যুক্ত", চিঠি লিখে অভিযোগ শেহলা রশিদের বাবার

“আমার মেয়ে দেশদ্রো’হী ও দেশ বি’রোধী কাজে যুক্ত”; এবার চিঠি লিখে অভিযোগ করলেন শেহলা রশিদের বাবার। সোমবার, জেএনইউর নেত্রী শেহলা রশিদের বাবা; আবদুল রশিদ শোরা এই ভ’য়ঙ্কর অ’ভিযোগ এনেছেন। তিনি তার মেয়ের কাছ থেকে; প্রা’ণনা’শের হু’মকি পাচ্ছেন বলে; গুরুতর অভিযোগ করেছেন। তার বাবা দাবি করেছেন যে; শেহলা ‘দেশ বি’রোধী কর্মকা’ণ্ডে’ জড়িত এবং তার এনজিওতে তদন্ত চেয়েছেন। জম্মু ও কাশ্মীরের ডিজিপি দিলবাগ সিংকে; তিন পাতার একটি চিঠি লিখে আবদুল রশিদ শোরা দাবি করেছেন যে; শেহলা ও তার নিরাপত্তারক্ষী, বোন ও তার মা; তাঁর জীবন না’শের হু’মকি দিচ্ছেন। মেয়ের বিরুদ্ধে বাবার অভিযোগে; তোলপাড় গোটা দেশ।

“আমার মেয়ে দেশদ্রো’হী ও দেশ বি’রোধী কার্যকলাপে যুক্ত”! জম্মু কাশ্মীরের DGP কে; চিঠি লিখে অভিযোগ জানালেন; শেহলা রশিদের বাবা। জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন নেত্রী; শেহলা রশিদের বাবা আবদুল রশিদ শোরা; জম্মু কাশ্মীরের ডিজিপিকে চিঠি লিখে, নিজের মেয়ের বিরুদ্ধে গু’রুতর অ’ভিযোগ করলেন। আবদুল রশিদ নিজের চিঠিতে দাবি করেন যে; তিনি নিজের মেয়ের থেকেই সুরক্ষিত না। ওনার প্রা’ণ সং’শয়ের আ’শঙ্কা আছে।

আরও পড়ুনঃ চিনকে শা’য়েস্তা করতে, লাদাখের প্যাংগং লেকে মেরিন কম্যান্ডো ‘মার্কোস’কে পাঠাল ভারতীয় নৌবাহিনী

আবদুল রশিদ শোরা, জম্মু কাশ্মীর পুলিশের মহানির্দেশককে লেখা চিঠিতে; নিজের মেয়ের বিরুদ্ধে গু’রুতর অ’ভিযোগ করে বলেন যে; শেহলা রশিদ দেশ বি’রোধী কা’র্যকলাপে যুক্ত আছে। ডিজিপিকে তিনটি পাতার ইংরেজিতে লেখা চিঠিতে; আবদুল রশিদ নিজের মেয়ে শেহলা রশিদকে; দেশদ্রো’হী ও দেশ বি’রোধী আখ্যা দেন; আর সে দেশ বি’রোধী গতিবিধিতে সামিল আছে বলে জানান।

বাবা হয়ে মেয়ের এনজিওগুলিতে; তদন্ত শুরু করার দাবি জানিয়েছেন তিনি। কাশ্মীর উপত্যকায় দেশ বি’রোধী রাজনীতিতে যোগ দেওয়ার জন্য; শেহলা মোটা অঙ্কের টাকা, প্রায় ৩ কোটি টাকা নিয়েছেন; বলে অভিযোগ করেছেন তিনি। যদিও শেহলা রশিদ, তার পিতার অভিযোগ অস্বীকার করে বলেছেন যে; পারিবারিক হিং’সার অ’ভিযোগে, আদালত তাকে শ্রীনগরের বাড়িতে প্রবেশে নিষেধ করার পরেই; বাবা এই অভিযোগ করেছেন। দেশদ্রো’হিতার অভিযোগে আগেও; শেহলা রশিদকে গ্রে’ফতার করেছিল এনআইএ।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন