চলে গেলেন বর্ষীয়ান অভিনেতা সন্তু মুখোপাধ্যায়

1927
চলে গেলেন বর্ষীয়ান অভিনেতা সন্তু মুখোপাধ্যায়/The News বাংলা

চলে গেলেন বর্ষীয়ান অভিনেতা সন্তু মুখোপাধ্যায়। দীর্ঘদিন ধরে ক্যান্সারে আক্রান্ত ছিলেন তিনি। বুধবার সন্ধ্যায় নিজের বাসভবনে মৃত্যু হয় অভিনেতার। শুধু ক্যানসারই নয়; ব্লাড সুগার ও হাইপারটেনশনেও ভুগছিলেন তিনি। প্রয়ানকালে তার বয়স হয়েছিল ৬৮ বছর। সম্প্রতি তাকে ভর্তি করা হয় ঢাকুরিয়ার আমরি হাসপাতালে। রক্তে হিমোগ্লোবিনের মাত্রা একেবারেই কমে গিয়েছিল বলে জানান; চিকিৎসকরা।

অভিনেতার প্রয়ানে; শোকস্তব্ধ গোটা টলিউড। সকল কলা কুশলীরা; যারা তার সঙ্গে কাজ করেছেন বা কাজ করতে চেয়েছিলেন; সকলেই শোকপ্রকাশ করেন ট্যুইটে। মাধবী মুখোপাধ্যায় জানান; ‘সন্তুটা এভাবে চলে যাবে ভাবতে পারছি না’।

একই কথা বলেন অরিন্দম শীলও; তিনি বলেন ‘চোখের সামনে সব ভাল স্মৃতিগুলো ভেসে উঠছে’। ঋতুপর্না সেনগুপ্ত জানান; ‘ভাষায় বলে প্রকাশ করা যাবে না বাংলা চলচ্চিত্র জগৎ কি হারালো’। পরিচালক সৃজিত মুখার্জী বলেন; ‘আমার বাবা মনে করতেন সন্তুকাকু উত্তম কুমার ও সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় সিনেমা যুগের অন্যতম প্রতিভাবান একজন অভিনেতা। সাবধানে যেয়ো সন্তুকাকু; অনেক ভালোবাসা’।

পরিচালক তরুণ মজুমদারের ‘সংসার সীমান্ত’ দিয়ে ২৪ বছর বয়সে বাংলা ছবিতে যাত্রা শুরু অভিনেতা সন্তু মুখোপাধ্যায়ের। একশ-এর বেশি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন তিনি। পাশাপাশি বেশকিছু সিরিয়ালেও দেখা গিয়েছিল তাঁকে। যেসব ছবি তাকে জনপ্রিয়তা এনে দিয়েছিল সেগুলি হল, ‘সংসার সীমান্তে’, ‘হারমোনিয়াম’, ‘গণদেবতা’, ‘দেবদাস’, ‘ভালোবাসা ভালোবাসা’, ‘প্রেম বন্ধন’, ‘বিদ্রোহী’, ‘পরশমণি’।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন