প্রতিশ্রুতি ব্যর্থ করে মোদীর রাজত্বে বাড়ছে বেকারত্বের সংখ্যা

715
Narendra Modi is the only hope for BJP/ The News বাংলা
লোকসভা ভোটে বিজেপির একমাত্র ভরসা সেই নরেন্দ্র মোদীই/The News বাংলা

বিশেষ রিপোর্ট: ২০১৮ র শেষে ভারতে বেকার যুবক যুবতীদের সংখ্যা দাঁড়াবে প্রায় ১ কোটি ৮০ লাখ৷ United Nations International Labour Organisation বা ILO তাদের ২০১৭ সালের World Employment and Social Outlook এর রিপোর্টে এমন তথ্যই প্রকাশ করেছে৷ এই রিপোর্টের পর বছরে এক কোটি চাকরি সৃষ্টি করার দাবী করে আসা নরেন্দ্র মোদী সরকারের যে মুখ পুড়ল তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না৷

প্রতি বছরই ইউনাইটেড নেশনস ইন্টারন্যাশানাল লেবার অরগানাইজেশন বা ILO বের করে World Employment and Social Outlook নামে একটি রিপোর্ট৷ ২০১৭ র রিপোর্ট পরে হতবাক কেন্দ্র সরকার৷ কারণ বিজেপি ক্ষমতায় আসার আগে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল যে দেশে বছরে এক কোটি কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করবে তারা৷

ক্ষমতায় আসার পরে বছরে ১ কোটি চাকরি সৃষ্টি করার দাবীও বরাবর করে এসেছে বিজেপি৷কিন্তু লেবার ওরগানাইজেশনের রিপোর্টে উঠে এসেছে সম্পূর্ণ উল্টো তথ্য৷ তাদের রিপোর্ট অনুযায়ী, ২০১৮ সালের শেষে ভারতে বেকারের সংখ্যা দাঁড়াবে প্রায় ১৮ মিলিয়ান বা এক কোটি আশি লক্ষ৷

লেবার ওরগানাইজেশনের রিপোর্ট অনুযায়ী ২০১৭ সালে দেশজুড়ে বেকার বেড়েছে প্রায় ১ লক্ষ৷ ২০১৮ তে বাড়বে আরও ২ লক্ষ৷ যদিও ILO এর মতে দেশে বেকারত্বের গ্রাফ অল্প হলেও কমবে৷ আনএমপ্লয়মেন্ট গ্রাফ ৩.৫ থেকে ২০১৭ সালে কমে হয়েছে ৩.৪৷ যদিও এই গ্রাফটা ফের ২০১৮ সালে ৩.৫ এর কাছাকাছি পৌঁছে যাবে বলেই জানিয়েছে লেবার ওরগানাইজেশন৷

এই রিপোর্ট অনুযায়ী বিশ্বে ২০১৭ সালে বেকার সংখ্যা বেড়েছে প্রায় ৩.৪ মিলিয়ান বা ৩৪ লাখ৷ তার মধ্যে ভারতেই বেড়েছে প্রায় ১ লাখ৷ বিশ্বে বেকারত্বের গ্রাফও ২০১৭ তে ৫.৭ থেকে বেড়ে হয়েছে ৫.৮৷ সেখানে ভারতের বেকারত্বের গ্রাফ গত কয়েক বছর ধরেই ঘোরাফেরা করছে ৩.৪ এ৷

ইন্টারন্যাশানাল লেবার ওরগানাইজেশনের ডাইরেক্টর গাই রাইডার বলেছেন, বিশ্বজুড়েই বেকারত্ব সমস্যা প্রায় একই থাকছে৷ ইকনমিক গ্রোথও যথেষ্ট চাকরীর সৃষ্টি করতে পারছে না বলেই জানান তিনি৷

শুধু বেকার সংখ্যাই বাড়ছে না, যারা খাতায় কলমে কাজ করছেন তাদের নিয়েও রিপোর্টে উঠে এসে ভয়ংকর তথ্য৷ ভারতের মত উন্নয়নশীল দেশে কাজ করছেন এমন কয়েক কোটি মানুষ দিনে ১৫০ টাকারও কম রোজগার করেন৷ অর্থাৎ কাজ থাকলেও মাসে ৪৫০০ টাকার কম রোজগার করেন এমন মানুষের সংখ্যাও প্রায় কয়েক কোটি৷ এদের সংখ্যা আগামী দুবছরে বাড়বে আরও ৫০ লক্ষ৷ খাতায় কলমে তারা বেকার নন কিন্তু জীবন ধারণের জন্য যে রোজগার দরকার তা তাদের নেই বলেই রিপোর্টে প্রকাশ৷

প্রশ্ন উঠছে এখানেই৷ ক্ষমতায় আসার আগে বিজেপি প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল যে বছরে ১ কোটি চাকরির সৃষ্টি করবে তারা৷ কোথায় গেল সেই প্রতিশ্রুতি? আন্তর্জাতিক লেবার অরগাইনাইজেশনের রিপোর্টের তথ্য বলছে ২০১৭ সলে ভারতে বেকার সংখ্যা বেড়েছে প্রায় ১ লাখ৷ ২০১৮ তে তা বাড়বে প্রায় ২ লাখ৷ বছরে ১ কোটি চাকরি দিলে বেকারত্ব কি করে বাড়ছে? প্রশ্ন কিন্তু উঠছে৷

লেবার ওরগানাইজেশনের রিপোর্টের উত্তরে কেন্দ্রীয় সরকারের মন্ত্রীরা এখন কি বলেন তার দিকেই তাকিয়ে গোটা দেশের বেকার যুবক যুবতীরা৷ কারণ নোটবাতিল, জিএসটি সহ একাধিক সিদ্ধান্তে এমনিতেই দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের গ্রাফও কমছে৷ সেখানে কর্মসংস্থানের সংখ্যাও এইভাবে কমতে থাকলে চরম সমস্যায় পড়বেন দেশের কর্মহীন কোটি কোটি যুবক যুবতীরা৷ আন্তর্জাতিক লেবার ওরগানাইজেশনের রিপোর্ট কিন্তু সেই ইঙ্গিতই দিচ্ছে৷

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন