ভরসা নেই প্রশাসনে, নারীদের বাঁচাতে এগিয়ে আসছেন সাধারণ মানুষ

375
মেয়েদের সুরক্ষা দিতে এগিয়ে আসছেন বেশকিছু স্বহৃদয় মানুষ/The News বাংলা
মেয়েদের সুরক্ষা দিতে এগিয়ে আসছেন বেশকিছু স্বহৃদয় মানুষ/The News বাংলা

একের পর এক ধর্ষণ এবং খুনের ঘটনায় স্তব্ধ দেশের মানুষ। কিন্তু নেই কোনও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি। ২০১২ সালে দিল্লীর নির্ভয়ার ঘটনা এখনও ভুলে যায়নি কেউ। গত ৭ বছর ধরে আদালত চত্বরে ঘোরাঘুরি করে; বিচারের আশা প্রায় ছেড়েই দিয়েছেন তার পরিবারের লোকজন। তারপরও সতর্ক হয়নি প্রশাসন। তেলেঙ্গানার ঘটনায় উঠে আসে পুলিশের গাফিলতির কথা। তাই এবার আর প্রশাসনে ভরসা না করেই; দেশের মেয়েদের বাঁচাতে মাঠে নামছে সাধারণ মানুষ।

কলকাতা ও তার পার্শ্ববর্তী এলাকায় এক নতুন উদ্যোগ দেখা গেল। নিজেদের এলাকার বিপদে পরা মেয়েদের সুরক্ষা দিতে এগিয়ে আসছেন বেশকিছু স্বহৃদয় মানুষ। পার্সোনাল টেক্স তো বটেই; বিভিন্ন গ্রুপ তৈরি করে তাতে নাম্বার দিচ্ছেন অনেকে।

আরও পড়ুন: বাংলাতে প্রথম সরকারি টেস্ট টিউব বেবি সেন্টার

তেলেঙ্গানার ধর্ষণ ও খুনের ঘটনার পর সোশ্যাল মিডিয়াতে বেশকিছু মানুষ উদ্যোগ নিয়েছেন নিজেদের অঞ্চলের মেয়েদের সুরক্ষার জন্য। অঞ্চলভিত্তিক বেশকিছু ফোন নম্বর শেয়ার হচ্ছে ফেসবুক ও হোয়াটসঅ্যাপ জুড়ে। লক্ষ্য একটাই; বিপদে থাকা মহিলাদের সুরক্ষা দেওয়া। তাহলে কি সত্যিই পুলিশের উপর থেকে ভরসা উঠে যাচ্ছে সাধারণ মানুষের?

তেলেঙ্গালার ঘটনায় এক বিজেপি সাংসদ বলেছিলেন; নির্যাতিতা নিজের বোনের বদলে ১০০ তে ডায়াল করলে প্রাণে বেঁচে যেতেন। কিন্তু তথ্য বলছে; ওই তরুনীর পরিবার তৎক্ষণাৎ পুলিশের কাছে গিয়েও পায়নি পরিষেবা। ঘুরতে হয়েছে নানান পুলিশ স্টেশন। সাহায্য পায়নি প্রশাসনের।

তাই আর পুলিশের ভরসায় নয়; রাজ্যের মানুষেরা নিজেদের কাঁধেই তুলে নিচ্ছে দায়িত্ব। টালিগঞ্জ থেকে চন্দননগর; সব্বাই দায়িত্ব ভাগ করে নিয়েছে মেয়েদের রক্ষা কবচ হওয়ার জন্য। বিভিন্ন ক্লাব ও পুজো উদ্দোগতারাও পিছিয়ে নেই। ফোন নাম্বার দেওয়া আছেই; বিপদে পড়লেই পাশে পাওয়ার আশ্বাস দিল তারা। কিন্তু রাতের বেলা; একজন অপরিচিতকে কতটা ভরসা করতে পারবে মেয়েরা?

প্রশ্ন তুলেছেন খোদ মেয়েরাই। তাদের বক্তব্য; রাতে বাড়ি ফেরার সময়; এক বিপদ থেকে বাঁচতে আর এক বিপদ এসে পড়বে না; তা কে বলতে পারে! বছর ২১-এর এক তরুনী জানায়; ‘আমি বিপদে পড়লে নিজের বাড়িতে বা পরিচিত কেউকে ফোন করবো। আজকের দিনে; একজন অপরিচিতকে রাতে সাহায্যের জন্য কোন ভরসাতে ফোন করবো বলতে পারেন?’

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন