ত্যাগী না ভোগী, পদের মোহ কি সত্যিই নেই শুভেন্দুর, তথ্য কি বলছে দেখুন

672
ত্যাগী না ভোগী, পদের মোহ কি সত্যিই নেই শুভেন্দুর, তথ্য কি বলছে দেখুন
ত্যাগী না ভোগী, পদের মোহ কি সত্যিই নেই শুভেন্দুর, তথ্য কি বলছে দেখুন

ত্যাগী না ভোগী? মন্ত্রিত্ব ছেড়ে বিধায়ক পদে ইস্তফা দেবার পরেই; শুভেন্দু অধিকারীকে নিয়ে শুরু হয়ে গেছে; রাজনৈতিক কাদা ছোঁড়াছুঁড়ির খেলা। বৃহস্পতিবার, দল থেকে পদত্যাগের পরে; সেই তর্ক আরও জোরদার হয়েছে। হলদিয়ার জনসভায় দাঁড়িয়ে শুভেন্দু অধিকারী ঘোষণা করেছিলেন; “একটা কথা বলে যেতে চাই; শুভেন্দু অধিকারী পদের লোভ করে না। অনেকে বলছিলেন পদ দেখিয়ে লোক আনছে। পদ ছাড়ুক; তার পর দেখব কতজন লোক থাকে ওর সঙ্গে”। এরপরেই সমস্ত পদ ছাড়েন; মেদিনীপুরের ভূমিপুত্র শুভেন্দু অধিকারী। তিনি পদের মোহ নেই বললেও; সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে শুভেন্দু অধিকারীকে; ‘পদলোভী’ বলেই উল্লেখ করছে তৃণমূল সমর্থকরা।

মন্ত্রিত্ব ছাড়ার আগে; শুভেন্দু অধিকারী ছিলেন তিনটে দপ্তরের মন্ত্রী; হলদিয়া উন্নয়ন পষর্দের চেয়ারম্যান; কাঁথি সমবায় ব্যাঙ্কের চেয়ারম্যান; দলের সর্বোচ্চ ৭ জনের কোর কমিটির সদস্য; প্রাক্তন কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী; জেলার সভাপতি; ও দুটি জেলার নির্বাচনী পর্যবেক্ষক। ইস্তফা দেবার পরেই; শুভেন্দু অধিকারীর বিরুদ্ধে আ’ক্রমণ শানায় তৃণমূল কর্মী সমর্থকরা।

আরও পড়ুনঃ মমতার পরামর্শদাতা পিকের হাতেই দলের ভা’ঙন, র’হস্য দানা বাঁধছে তৃণমূলের অন্দরে

প্রাক্তন মন্ত্রীকে ত্যাগী নয়; ভোগী বলে উল্লেখ করেন অনেকেই। তাঁদের দাবি, আরও বড় পদের লো’ভেই দলের সঙ্গে; বে’ইমানি করেছেন শুভেন্দু অধিকারী। তৃণমূলের সমর্থকরা প্রশ্ন তুলেছে; যার কোনও পদের লো’ভ নেই; সে এতদিন এতগুলো পদে আসিন ছিলেন কেন? কেনই বা তাঁর পরিবারের অন্যান্যরা; এখনও পদে আসীন?

আরও পড়ুনঃ এখনও পর্যন্ত ৬০ জন বিধায়ক সাংসদ, শুভেন্দুর সঙ্গে বিজেপিতে যোগ দিতে তৈরি

উল্লেখ্য, শুভেন্দু অধিকারীর বাবা এবং আর এক ভাই এখনো সাংসদ; বাবা দীঘা উন্নয়ন পর্ষদের চেয়ারম্যান; হলদিয়ার সব কারখানার গেটের শ্রমিক নেতা; আর এক ভাই কাঁথি পৌরসভার চেয়ারম্যান; ভাইয়ের স্ত্রী পৌরসভার কাউন্সিলর। রাজ‍্যের সাধারণ সম্পাদক। যার পরিবারের সদস্যরা এত গুলো পদে আসীন; তাঁর মুখে পদের লোভ নেই; এই উক্তি হাস্যকর বলে মনে করছে তৃণমূল সমর্থকরা। তবে, দাদার পদত্যাগের পরে; এইসবের জবাব দিয়েছে দাদার অনুগামীরাও। তর্ক চলছে সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন