মমতা ও ‘বন্দ্যোপাধ্যায় পরিবারতন্ত্র’ নিয়ে উত্তাল নেট দুনিয়া

3929
মমতা ও 'বন্দ্যোপাধ্যায় পরিবারতন্ত্র' নিয়ে উত্তাল নেট দুনিয়া
মমতা ও 'বন্দ্যোপাধ্যায় পরিবারতন্ত্র' নিয়ে উত্তাল নেট দুনিয়া

আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিয়ে; বিতর্ক যেন কিছুতেই থামছে না। কেন্দ্রের সঙ্গে সংঘাতের সঙ্গে সঙ্গে রাজ্যেও; আলাপন ইস্যু নিয়ে বিরোধীদের বিতর্কের মুখে রাজ্য সরকার। আলাপন নিয়ে এবার পরিবারতন্ত্রের অভিযোগ; উঠল বিরোধী শিবিরে। আলাপন অবসর নেবার পরেই; তাঁকে আড়াই লক্ষ টাকা মাসিক মাইনেতে; মুখ্যমন্ত্রীর প্রধান উপদেষ্টা করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজেই। অন্যদিকে আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের স্ত্রী; বর্তমানে কলকাতা বিশ্ব বিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর। তাঁর মাসিক মাইনেও; আড়াই লক্ষ টাকা। আলাপনের ভাই প্রয়াত সাংবাদিক অঞ্জন বন্দ্যোপাধ্যায়ের স্ত্রীকেও; লক্ষাধিক টাকার চাকরি দিয়েছে রাজ্য সরকার। আর এই নিয়েই বিরোধী শিবিরে উঠেছে; ‘বন্দ্যোপাধ্যায় পরিবারতন্ত্র’-এর অভিযোগ।

আরও পড়ুন; আমেরিকা ও বিশ্ব জয় করলেও, স্বামী বিবেকানন্দকে সম্মান দেয়নি লোভী স্বার্থপর বাঙালি

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়-কে ডি-লিট দিয়েছিল; কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়। আর তখন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ছিলেন; আলাপনের স্ত্রী সোনালী চক্রবর্তী। সেই নিয়ে বিতর্ক কম হয়নি। বিতর্ক হয়েছিল আলাপনের স্ত্রী সোনালী চক্রবর্তী বন্দ্যোপাধ্যায়ের; কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য হওয়া নিয়েও। এমনকি এই নিয়ে কলকাতা হাইকোর্টে; একটি মামলাও হয়। আলাপনের স্ত্রী সোনালী; প্রথমে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার ছিলেন। ২০১৭ সালে তিনি রেজিস্ট্রার থেকে একেবারে; কলিকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর বা উপাচার্য পদে উন্নীত হন।

আরও পড়ুনঃ মেডিক্যালে করোনা ইঞ্জেকশন চুরি, মমতা ব্যবস্থা না নেওয়ায় মামলা নিল আদালত

আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়কে প্রধান উপদেষ্টা নিয়োগ করার পরেই; আলাপনের ভাই প্রয়াত সাংবাদিক অঞ্জনের স্ত্রীকে; রাজ্য পর্যটনের পরামর্শদাতা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা। ইতিমধ্যেই এই নিয়ে; বিরোধীরা একজোট হয়েছে। আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের পরিবারের তিন সদস্য; কিভাবে উচ্চ সরকারী পদে অধীন রয়েছেন; এই নিয়ে প্রশ্ন তোলা হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। প্রচারে বিরোধীরা জানিয়েছে; বন্দ্যোপাধ্যায় পরিবারের জন্য প্রতি মাসে; মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মোট খরচ বরাদ্দ করেছেন ৬.১০ লক্ষ টাকা!

আরও পড়ুনঃ বাংলায় এল রাশিয়ার স্পুটনিক, মানুষ কিভাবে পাবে এই ভ্যাকসিন

বাংলায় সেখানে সাধারন মানুষ, যোগ্যতা অনুসারে চাকরী পায়না; সেখানে আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের পরিবারকে কেন এই ‘বিশেষ সুবিধা’ দেওয়া হচ্ছে; এই নিয়ে ইতিমধ্যেই বিতর্ক উসকে দিয়েছেন; বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। তিনি প্রশ্ন তোলেন; “বাঙালি কি এই বন্দ্যোপাধ্যায় পরিবারতন্ত্রকে; টপকে চাকরী পাবে”? সোশ্যাল মিডিয়ায় শুরু হয়েছে; জোর তর্ক বিতর্ক। তাল মিলিয়েছে বিজেপি-তৃণমূল; দুই যুযুধান শিবিরই।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন