“হোটেল থেকে খাবার এনে দ’লিত বাড়িতে খেয়েছেন অমিত শাহ”, বি’স্ফোরক দাবি মমতার

562
হোটেল থেকে খাবার এনে দ'লিত বাড়িতে খেয়েছেন অমিত শাহ, দাবি মমতার
হোটেল থেকে খাবার এনে দ'লিত বাড়িতে খেয়েছেন অমিত শাহ, দাবি মমতার

একুশে ভোটের আগে রাজ্যে বিজেপির বাড়বাড়ন্ত ঠেকাতে; সোমবার বাঁকুড়ার খাতড়ার সরকারি সভা থেকে; বিজেপি নেতৃত্ব ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে একের পর এক আ’ক্রমণ করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন ‘দুয়ারে দুয়ারে সরকার’; প্রকল্পের কাজ শুরু করার ঘোষণা করেছেন তিনি। সেই সঙ্গে দ’লিত বাড়িতে অমিত শাহের খাওয়া নিয়েও কটাক্ষ করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এছাড়া একাধিক ইস্যুতে; এদিন কেন্দ্রীয় সরকারকে আ’ক্রমণ করেন তিনি ৷ “হোটেল থেকে খাবার এনে; দ’লিত বাড়িতে খেয়েছেন অমিত শাহ”; বি’স্ফোরক দাবি মুখ্যমন্ত্রী মমতার।

দুদিনের বাংলা সফরে এসে, বাঁকুড়ায় দলীয় বৈঠক সেরে; আদিবাসী বিভীষণ হাঁসদার বাড়িতে দুপুরের খাবার খেয়ে ছিলেন; কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। এদিন বাঁকুড়ার মঞ্চ থেকে সেই ঘটনাকে নি’শানা করে, মুখ্যমন্ত্রী বলেন; “হোটেল থেকে খাবার এনে; দ’লিত বাড়িতে খেয়ে গেছেন অমিত শাহ”। সেই সঙ্গে তিনি বলেন; “রান্নার প্রস্তুতিতে দেখা গেছে ধনেপাতা কাটতে; অথচ অমিত শাহ খাচ্ছেন আলু-পোস্ত! আ’দিবাসী ভাই বোনেরা এই দ্বি’চারিতা ধরে ফেলেছেন”।

আরও পড়ুনঃ বিজেপি তৃণমূলের ‘বিরসা মুণ্ডা বিতর্ক’, লাভের লাভ রাজ্য সরকারি কর্মীদের

শুধু খাবার নিয়েই না; আ’দিবাসী শিকারির মূর্তি মালা দিয়ে; সেই মূর্তিকে বিরসা মুন্ডার মূর্তি বলে চালানোর নিয়েও; বিজেপিকে আ’ক্রমণ করেন তিনি। বিজেপিকে কটাক্ষ করে মুখ্যমন্ত্রী বলেন; “দিল্লির মোদী সরকার এমন আইন তৈরি করেছে; যাতে তারা আলু নিয়ে চলে যাবে। সাধারণ মানুষ আলুসিদ্ধ ভাতও খেতে পাবেন না”।

আরও পড়ুনঃ বঞ্চনার অভিযোগ মিথ্যা, লকডাউনে গ্রামীণ প্রকল্পে দেশের মধ্যে সবচেয়ে বেশি টাকা পেয়েছে বাংলা

এদিন বাঁকুড়ার সভা থেকে মুখ্যমন্ত্রী জনগণকে সতর্ক করে বলেছেন; বাংলায় নির্বাচনের আগে হিংসার পরিস্থিতি তৈরি করা হবে। এদিন তিনি সতর্ক করে বলেন; বিজেপি ক্ষমতায় আসলেই এনআরসি প্রয়োগ করবে পশ্চিমবঙ্গে। ভোটের আগে; প্রত্যেক মানুষের কাছে সরকারি পরিষেবা পৌঁছে দেওয়া হবে বলে; প্রতিশ্রুতি দেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন