তৃণমূল ও আইএসআইএস এক, বিস্ফোরক অর্জুন

279
তৃণমূল ও আইএসআইএস এক, বিস্ফোরক অর্জুন/The News বাংলা
তৃণমূল ও আইএসআইএস এক, বিস্ফোরক অর্জুন/The News বাংলা

তৃণমূল ও আইএসআইএস এক; বিস্ফোরক অর্জুন। তৃণমূলকে আইএসআইএস-এর সঙ্গে তুলনা করে। বিস্ফোরক অর্জুন সিং। দলীয় কর্মীর মৃত্যু নিয়ে; তৃণমূলের বিরুদ্ধে খড়গহস্ত হলেন অর্জুন সিং। সম্প্রতি পশ্চিম মেদিনীপুরের দাঁতনে; খুন হন বিজেপি কর্মী বর্ষা হাঁসদা; গাছে ঝুলিয়ে তাকে খুন করা হয় বলে অভিযোগ আনে বিজেপি।

দিলীপ ঘোষ ওই বিজেপি কর্মীর ছবি ট্যুইট করে; শাসকদলের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দেন। এবার অর্জুন সিংও; বিজেপি রাজ্য সভাপতির সুরে সুর মেলালেন। কড়া ভাষায় আক্রমণ করলেন; তৃণমূলকে। অর্জুন তৃণমূলকে আইএসআইএস-এর সঙ্গে তুলনা করে বলেন; তৃণমূল ও আইএসআইএস-এর মধ্যে কোনও পার্থক্য নেই।

আরও পড়ুন খালের জলে একের পর এক ডলফিনের মৃত্যু, উঠছে প্রশ্ন

এভাবেই খুনের রাজনীতি করে; একুশের নির্বাচন জিততে চাইছে শাসকদল; তোপ দেগে বলেন অর্জুন সিং। এর আগেও; চলতি বছর এপ্রিলে পুরুলিয়ায়; বিজেপি কর্মীর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয়। নিখোঁজ থাকার পর আড়ষা থানা এলাকার সেনাবনা গ্রামের; বিজেপি কর্মী শিশুপাল সহিসের দেহ ঝুলন্ত অবস্থায়; একটি গাছ থেকে উদ্ধার করা হয়।

পুরুলিয়ায় ত্রিলোচন মাহাতো; দুলাল কুমারের পর শিশুপাল সহিস; পরপর এই তিন বিজেপি কর্মীর খুনের ঘটনা ঘটে। একের পর এক; বিজেপি কর্মীর ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধারের ঘটনা ঘটেছিল; পুরুলিয়ার মাটিতে।

আগের দুটি মৃত্যুর তদন্ত শেষ হতে না হতেই; খুন করা হয় শিশুপাল সহিসকে। বিজেপির তরফ থেকে খুন করে; ঝুলিয়ে দেবার অভিযোগ আনা হয়। অভিযোগের তির ছিল তৃণমূলের দিকে। অভিযোগ অস্বীকার করে তৃণমূল।

২০১৮ সালের মে মাসে ত্রিলোচন মাহাত ও দুলাল কুমারের পর পরপর দুটি রহস্য মৃত্যুর ঘটনায় হইচই পড়ে যায়; গোটা রাজ্যে। রাজ্যের তরফে এই দু’টি খুনের ঘটনারই; সিআইডি তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়। এদিন অর্জুনের অভিযোগ উড়িয়ে দিয়ে; বিজেপি কর্মী খুনের ঘটনায়; গেরুয়াদের গোষ্ঠী কোন্দলকেই দায়ী করেছে শাসকদল।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন