মমতাকে নিজের ক্ষমতা ও যোগ্যতা দেখালেন অর্জুন

1396
মমতাকে নিজের ক্ষমতা ও যোগ্যতা দেখালেন অর্জুন/The News বাংলা
মমতাকে নিজের ক্ষমতা ও যোগ্যতা দেখালেন অর্জুন/The News বাংলা
Simple Custom Content Adder

তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে; নিজের ক্ষমতা ও যোগ্যতা দেখালেন অর্জুন সিং। চ্যালেঞ্জ নিয়ে নিজে ব্যারাকপুর কেন্দ্রে; তৃণমূল প্রার্থী দীনেশ ত্রিবেদীকে হারালেন। শুধু তাই নয়; ভাটপাড়া বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূলের মদন মিত্রকে হারিয়ে; মমতাকে উপযুক্ত জবাব দিলেন অর্জুন।

একসঙ্গে মমতা, অভিষেক ও জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক সহ; সবাইকে কুপকাত করলেন অর্জুন সিং। অর্জুন সিং ২ লাখের কম ভোটে হারলে; রাজনীতি ছেড়ে দেবেন বলে কথা দিয়েছিলেন। সে কথা তিনি রাখবেন কিনা; সেটাই এখন প্রশ্ন।

লোকসভা নির্বাচনে ব্যারাকপুর কেন্দ্রে জয়ী; বিজেপির অর্জুন সিং। ১১ হাজারেরও বেশি ভোটে জিতলেন তিনি। তৃণমূল প্রার্থী দীনেশ ত্রিবেদীকে হারালেন তিনি। ২০০৯ ও ২০১৪ সালে দীনেশ ত্রিবেদীই জিতেছিলেন এই কেন্দ্রে। এবার তাঁকে হারিয়ে; সেই জায়গা দখল করে নিলেন বিজেপির অর্জুন সিং।

অন্যদিকে, ভাটপাড়া বিধানসভা উপনির্বাচনেও ৩৬০০০-এরও বেশি ভোটের ব্যবধানে জিতলেন; অর্জুন সিংয়ের পুত্র পবন ছিল। দিল্লি গিয়ে তৃণমূল ছেড়ে বিজেপি-তে যোগ দেওয়ার পর; কয়েকদিন নিজের বিধানসভা কেন্দ্র ভাটপাড়ায় ঢুকতেই পারেননি অর্জুন সিং।

এরপরেই হাতছাড়া হয়; ভাটপাড়া পুরসভার চেয়ারম্যানের পদ। সঙ্গীদের অনেকেই আজ পাশে নেই। তবু, তিনি অর্জুন। ব্যারাকপুর লোকসভা কেন্দ্রে জিতে; তার প্রমাণ দিলেন অর্জুন সিং। যে তিনিই ভাটপাড়া ও ব্যারাকপুরের শেষ কথা।

ব্যারাকপুর থেকে দুবারের সাংসদ দীনেশ ত্রিবেদী; গতবার জিতেছিলেন ২ লক্ষ ৬ হাজার ভোটের ব্যবধানে (প্রাপ্ত ভোট ৪৬ শতাংশ)। ৭টি বিধানসভার মধ্যে একমাত্র অর্জুনের ভাটপাড়া বিধানসভা থেকেই তিনি ‘লিড’ পাননি। বিজেপি-র থেকে পিছিয়ে ছিলেন ২ হাজার ভোটে।

তবে এবার অর্জুন প্রার্থী হওয়ায়; বাড়তি লাভ হয় দীনেশের। পঞ্চায়েত ভোটে এলাকায় সন্ত্রাস, তোলাবাজি-সহ তাঁদের বিরুদ্ধে ওঠা যাবতীয় অভিযোগকে; ‘অর্জুনের কীর্তি’ বলেই দায় ঝেড়ে ফেলতে সুবিধা হয় তৃণমূলের। দোরে দোরে কড়া নেড়ে; অর্জুনের কৃতকর্মের জন্য দুঃখপ্রকাশও করে তারা।

তবে কোন কিছুতেই কোন লাভ হল না। দীনেশ ত্রিবেদী যে অর্জুনের ভরসাতেই ভোট জিততেন; এটা আজ জলের মত পরিষ্কার করে দিলেন; ব্যারাকপুরের ‘বাঘ’ অর্জুন সিং। মমতার ‘গদ্দার’ মমতাকে উপযুক্ত জবাব দিলেন; বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল। ব্যারাকপুর ও ভাটপাড়ায় আবার সম্রাট সেই অর্জুন সিংই।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন