সরকারি হাসপাতালে বেহাল পরিষেবা, অভিযোগ করে বন্ডে সই করে বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি খোদ মমতার স্বাস্থ্যকর্তা

2876
সরকারি হাসপাতালে বেহাল পরিষেবা, অভিযোগ করে বন্ডে সই করে বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি খোদ মমতার স্বাস্থ্যকর্তা
সরকারি হাসপাতালে বেহাল পরিষেবা, অভিযোগ করে বন্ডে সই করে বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি খোদ মমতার স্বাস্থ্যকর্তা

অবিশ্বাস্য কাণ্ড! রাজ্যের স্বাস্থ্যব্যবস্থা নিয়ে; সরকারি হাসপাতালের পরিষেবা নিয়ে; অনেক অভিযোগ ওঠে। কখনও পরিষেবা ঠিকমতো না পাওয়ার অভিযোগ; আবার কখনও চিকিৎসা পরিকাঠামো নিয়েও; প্রশ্ন তোলেন রোগীর পরিবারের লোকজন। তবে এবার যা ঘটল; তা সত্যি অভাবনীয়। সরকারি হাসপাতালের বেহাল পরিষেবার অভিযোগ করে; রীতিমতো বন্ডে সই করে হাসপাতাল ছেড়ে; একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি হলেন খোদ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এক স্বাস্থ্যকর্তা ! এবার খোদ জেলার স্বাস্থ্যকর্তাই, কোচবিহার মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা নিয়ে প্রশ্ন তুলে; বন্ডে সই করে হাসপাতালে ছেড়ে; অসুস্থ অবস্থায় অন্য নার্সিংহোমে ভরতি হলেন।

কোচবিহারের ডেপুটি সিএমওএইচ ওয়ান, ডঃ বিশ্বজিৎ রায়ের; হৃদযন্ত্রে সমস্যা দেখা দেয়। গত ১ সেপ্টেম্বর, তিনি কোচবিহার মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে; ভর্তি হন। তিনদিন হাসপাতালে ভর্তি থাকলেও; তাঁর কোনও চিকিৎসাই হয়নি বলে অভিযোগ। স্বাস্থ্যকর্তা অনুমান করেন; তাঁর ডেঙ্গু হয়েছে। সেই অনুযায়ী হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে না জানিয়েই; নমুনা পরীক্ষা করতে পাঠান। বৃহস্পতিবার রিপোর্ট আসার পর, জানতে পারেন; সত্যিই তাঁর ডেঙ্গু হয়েছে। প্লেটলেটও ৪৬ হাজারের কাছাকাছি। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে; সেকথা জানান তিনি। তারপরেই, হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে; তাঁর কথা কাটাকাটি শুরু হয়ে যায়। সিএমওএইচ তাঁকে দেখতে আসার সময়; হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাঁর সঙ্গে দুর্ব্যবহার করে বলেও অভিযোগ।

আরও পড়ুনঃ পুজোর পরেই কি বিধানসভা উপনির্বাচন পশ্চিমবঙ্গে, সিদ্ধান্ত নির্বাচন কমিশনের

তারপরেও তাঁর চিকিৎসা হয়নি বলেই; অভিযোগ করেন ওই স্বাস্থ্যকর্তাই। বৃহস্পতিবার বাধ্য হয়েই, সরকারি হাসপাতালের বন্ডে সই করে; বেরিয়ে আসেন তিনি। ভর্তি হন এলাকারই একটি; বেসরকারি হাসপাতালে। সেখানেই আপাতত চিকিৎসা চলছে তাঁর। করোনা পরিস্থিতিতে রাজ্যের একটি মেডিক্যাল কলেজের বিরুদ্ধে; সেই জেলারই ডেপুটি সিএমওএইচ ওয়ান, নিজেই অভিযোগ করায়; স্বাভাবিকভাবেই চরম অস্বস্তিতে রাজ্য স্বাস্থ্যদপ্তর। বিষয়টি খতিয়ে দেখার আশ্বাস; হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের।

কোচবিহারে অত্যন্ত জনপ্রিয়; বিশ্বজিত রায়। একেবারে প্রথম সারিতে দাঁড়িয়ে; করোনার সঙ্গে লড়াই করেছেন এই স্বাস্থ্যকর্তা। তা সত্ত্বেও বিপদের সময়; তাঁরই এমন দুর্ভোগের কথা সামনে আসায় বিরক্ত প্রায় সকলেই। এর আগেও, কোচবিহারের ডেপুটি সিএমওএইচ-১ বিশ্বজিৎ রায়ের বদলি খবর শুনে; কোচবিহার সদর মহকুমা শাসকের দপ্তরে সামনে বিক্ষোভ দেখায়; কোচবিহারের বেশ কিছু স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার সদস্যরা ও স্থানীয় বাসিন্দারা।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন