বালাকোট বিমান হামলার পরে কমেছে পাক জঙ্গি অনুপ্রবেশ, জানাল মোদী সরকার

170
বালাকোট হামলার পরে কমেছে জঙ্গি অনুপ্রবেশ জানাল মোদী সরকার/The News বাংলা
বালাকোট হামলার পরে কমেছে জঙ্গি অনুপ্রবেশ জানাল মোদী সরকার/The News বাংলা

ভারতীয় বিমান বাহিনী বালাকোটে হামলা চালানোর পর; ভারতের মাটিতে পাকিস্তানের জঙ্গি অনুপ্রবেশ ৪৩ শতাংশ কমেছে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় মঙ্গলবার সংসদে এ কথা জানায়। সেনাবাহিনীর নিশ্ছিদ্র প্রচেষ্টার কারণে; জম্মু ও কাশ্মীরের নিরাপত্তা পরিস্থিতি; ২০১৮ সালের থেকে ২০১৯ সালে দারুন উন্নতি হয়েছে; বলেই লোকসভায় দাবী করেছে মোদী সরকার।

কেন্দ্রীয় সরকারের একটি গোয়েন্দা রিপোর্টে বলা হয়েছে যে; পাকিস্তান তার সামরিক নিরাপত্তা শক্তিশালী করছে এবং সীমান্ত বরাবর নজরদারি বাড়িয়েছে ভবিষ্যতে ভারত থেকে আরও তীব্রতার আক্রমণের ভয়ে। কিন্তু ভারতীয় বিমান বাহিনী বালাকোটে হামলা চালানোর পর; উল্লেখযোগ্যভাবে কমেছে জঙ্গি অনুপ্রবেশ।

আরও পড়ুন: বিচ্ছিন্নতাবাদী নেত্রীর সব সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করল মোদী সরকার

পাকিস্তানের সীমানা অতিক্রম করে; গত ২৬ ফেব্রুয়ারি বালাকোটে হামলা চালায় ভারতীয় বিমান বাহিনী। জানা গিয়েছিল; বালাকোটে হামলার বোমাবর্ষণের পরই ঘটনাস্থলে পৌঁছেছিল স্থানীয় প্রশাসনের কর্তারা। কিন্তু ততক্ষণে ওই পুরো এলাকা ঘিরে ফেলেছিল পাকিস্তানের সেনাবাহিনী।

পাক পুলিশকেও ঘটনাস্থলে ঢুকতে দেওয়া হয়নি। এছাড়া যারা অ্যাম্বুলেন্স নিয়ে এসেছিলেন; সেই স্বাস্থ্যকর্মীদের মোবাইল ফোনও কেড়ে নিয়েছিল পাক সেনারা। কতজন মারা গিয়েছিল; সেই নিয়ে এখনও রয়ে গেছে বিতর্ক।

আরও পড়ুন: মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বিজেপির সদস্য, সদস্যপদ নম্বর ৪২৭৯, সাইবার ক্রাইমে তৃণমূল

জানা গিয়েছিল, ভারতীয় বোমার আঘাতে নিহত হয়েছে পাক গোয়েন্দা সংস্থা ইন্টার সার্ভিসেস ইন্টেলিজেন্স (আইএসআই)-এর এক প্রাক্তন অফিসার, যাকে কর্নেল সেলিম বলে জানে স্থানীয় বাসিন্দারা। গুরুতর আহত হয়েছে আর এক প্রাক্তন সেনাকর্তা কর্নেল জারার জাকরি।

ফার্স্ট পোস্টের প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছিল; ভারতীয় বিমান বাহিনীর ওই হামলায় নিহত হয়েছে পেশোয়ার থেকে জঙ্গিদের প্রশিক্ষণ দিতে যাওয়া জইশ জঙ্গি মুফতি মইন। পুলওয়ামা হামলার পর থেকেই; ভারত কড়া সিদ্ধান্ত নিয়েছে পাক জঙ্গি অনুপ্রবেশ আটকাতে।

আরও পড়ুন: রোজভ্যালি চিটফান্ড কেলেঙ্কারিতে প্রসেনজিতের পর এবার ইডি গোয়েন্দাদের তলব ঋতুপর্ণাকে

আইএএফ এর জঙ্গি ক্যাম্পে হঠাৎ ও সুনির্দিষ্টভাবে হামলা; পাকিস্তানের কাছে সম্পূর্ণরূপে অজ্ঞাত ছিল। বিশেষ করে বালাকোট বিমান হামলার পরে; তাদের বিমান বাহিনী সফলভাবে ভারতের অভ্যন্তরে মিশন চালাতে ব্যর্থ হয়েছিল।

স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী নিত্যানন্দ রাই বলেন; “সীমান্তে জঙ্গি অনুপ্রবেশের দিকে সরকার অত্যন্ত কড়া নীতি গ্রহণ করেছেন”। আর কোনভাবেই পাকিস্থানের জঙ্গি অনুপ্রবেশ সহ্য করবে না ভারত।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন