ভোটে জেতার আগেই বিকাশরঞ্জনের বিতর্কিত মন্তব্য, ‘হিন্দু তালিবানদের দেবতারা’

1954
হিন্দু তালিবানদের দেবতারা করোনা ঠেকাতে পারল না /The News বাংলা

রাজ্যসভা ভোটে জেতার আগেই; বাম নেতা বিকাশরঞ্জনের বিতর্কিত মন্তব্য, “হিন্দু তালিবানদের দেবতারা করোনা ঠেকাতে পারল না”। আর এই বিতর্কিত মন্তব্য ঘিরেই উত্তাল রাজ্য রাজনীতি। তিনি আরও বলেন; “বিজেপির ধর্মের নামে দেশভাগের চেষ্টা করছে”। ধর্ম ধর্ম খেলছে এমন অভিযোগ তুলে; পাল্টা আজাদি শ্লোগান তুলেছে বামেরা। বাম নেতা বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য বারে বারে; বিজেপির ধর্মপ্রীতিকে সুযোগ পেলেই তোপ দেগেছেন; এমনটাই অভিযোগ বিজেপির। শুধু তাই নয়; ধর্মনিরপেক্ষতার নামে; তাকে ধর্মতলায় প্রকাশ্যে গোমাংস ভক্ষনও করতে দেখা যায়। যে কারণে বিজেপি তাকে কটাক্ষ করতে ছাড়েনি। তবে এবার ফের বিতর্কে বিকাশ।

দেশজুড়ে যখন করোনার দাপট; মারণ ভাইরাসের দাপটে ঘরবন্দি মানুষ; সেই সময় ফের বিজেপিকে আক্রমণ করতে গিয়ে; হিন্দুদেরও একহাত নিয়ে বসলেন বাম নেতা বিকাশ রঞ্জন ভট্টাচার্য। করোনার ভয়ে দেশের একের পর এক; ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের দরজা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। সেই তালিকায় রয়েছে দেওঘর, ইস্কন, দক্ষিণেশ্বর। রয়েছে দেশের বিভিন্ন মন্দির। করোনা হানা দিতেই বিজেপি দাবি করেছিল; দেশে ঢুকতে পারবে না করোনা। সেটাকেই কটাক্ষ করে বিকাশ বলেন; “হিন্দু তালিবানদের দেবতারা; করোনা ঠেকাতে পারল না”। এরপরেই শুরু হয়ে গেছে; জোর বিতর্ক।

বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য নিজের ফেসবুক পোস্টে ; গেরুয়াদের ‘তালিবান’ বলে দেগে দিলেন। তেড়েফুঁড়ে আক্রমণ শানিয়ে বললেন; “হিন্দু তালিবানরা দাবী করেছিল; তেত্রিশ কোটি দেবতার দেশ ভারত; সেখানে করোনা ভাইরাস ঢুকতে পারবেনা। এখন ভয়ে দেবতারাই দরজা বন্ধ করছে”। তিনি আরও বললেন; অসুস্হ হলে ওদের খাটালে নয়; হাসপাতালে নিয়ে যাবেন। ওরা মানুষ; ওদের বাঁচাবার দায় বিজ্ঞানসম্মত মানুষদের।’ বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্যের এমন বিস্ফোরক পোস্টের পরই; রাজনীতির উত্তাপ চড়চড়িয়ে চড়েছে।

সমালোচনায় মুখর বিজেপি। করোনায় মক্কা মদিনা কাবার মসজিদ বন্ধ। ভারতেও কলকাতার টিপু সুলতান মসজিদ থেকে শুরু করে; দিল্লির জামা মসজিদে; একসঙ্গে নমাজ পড়া বন্ধ হয়ে গেছে। বিকাশরঞ্জন কি শুধু হিন্দু বিরোধিতাই করবেন? প্রশ্ন তুলেছে বিজেপি। আর রাজ্যসভা ভোটের আগেই; বিকাশ বনাম বিজেপি লড়াই তুঙ্গে।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন