পুজো হলেও উৎসব বাদ, মমতার বাংলাকে ‘শিক্ষা দিল’ হাসিনার বাংলা

536
পুজো হলেও উৎসব বাদ, মমতার বাংলাকে 'শিক্ষা দিল' হাসিনার বাংলা/The News বাংলা
পুজো হলেও উৎসব বাদ, মমতার বাংলাকে 'শিক্ষা দিল' হাসিনার বাংলা/The News বাংলা

মানব গুহ, কলকাতাঃ পুজো হলেও উৎসব বাদ, মমতার বাংলাকে ‘শিক্ষা দিল’ হাসিনার বাংলা। করোনা আবহে, একদিকে যখন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সাড়ম্বরে; দুর্গা পুজো উৎসব পালন করার ডাক দিয়েছেন; তখন ঠিক উল্টো চিত্র ওপাড় বাংলায়। বাংলাদেশে দুর্গা পুজো হচ্ছে; তবে সেই পুজো থেকে উৎসবকে এবার বাদ রাখা হয়েছে; করোনা সংক্রমণকে মাথায় রেখে। পুজোর আনন্দ যেন কোন পরিবারে, দুঃখ না ডেকে আনে; তাই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশের পুজো কমিটিগুলি। এবারের পুজায় ‘উৎসব’ শব্দটি বাদ দিয়ে; কেবল ‘পুজা’য় সীমাবদ্ধ রাখা হয়েছে। সবটাই করা হয়েছে করোনা বিপদে; মানুষের মঙ্গলের কথা চিন্তা করেই।

আরও পড়ুনঃ ভারতে করোনার তাণ্ডব কবে শেষ, জানিয়ে দিল মোদী সরকার নিযুক্ত কমিটি

করোনা সংক্রমণের পরিস্থিতিতে, বাংলাদেশ জুড়ে দুর্গাপুজো হলেও; উৎসবের যাবতীয় অনুষঙ্গ এবার বাদ পড়ছে। পুজোকে কেন্দ্র করে সবরকম উৎসব; এবার বাতিল করা হয়েছে। জাতীয় মন্দির ঢাকেশ্বরী-সহ, ঢাকার কোনও মণ্ডপে এবার; কুমারী পুজো হবে না। বাংলাদেশের পূজা উদযাপন পরিষদ, ঢাকেশ্বরী মন্দিরেই; সভা করে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে। দেশের সব জেলার প্রতিনিধিরা এই বৈঠকে; নিজেদের এলাকার পরিস্থিতি তুলে ধরেন। পুজো কমিটি, অনলাইনে অঞ্জলির ব্যবস্থা করছে; বলেও জানানো হয়েছে।

করোনা মহামারির কারণে; অষ্টমীর স্নান বন্ধ। অন্যান্য ধর্মীয় আচার-অনুষ্ঠান; সীমিত আকারে সম্পন্ন করা হচ্ছে। ধারণা করা হয়েছিল, দুর্গোৎসব আসার আগেই হয়ত; পরিস্থিতি অনেকটা স্বাভাবিক হয়ে আসবে। কিন্তু তা না হয়ে দেশে; দ্বিতীয় দফায় থাবা বসিয়েছে করোনা। ফলে এবারে আর ‘দুর্গোৎসব’ নয়; আক্ষরিক অর্থেই ‘দুর্গাপুজো’ হচ্ছে বাংলাদেশে। বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক, নির্মলকুমার চট্টোপাধ্যায় বলেন; “শাস্ত্রমতে পুজোটুকুর বাইরে; এবার কোনও উৎসব পালন হবে না”।

ভিড় এড়াতে ঢাকার সব কমিটি; কুমারী পুজো বন্ধ রাখছে। ঢাকার বাইরে কোথাও কোথাও তা হবে; কিন্তু ভিড় এড়িয়ে। পরিষদের সভাপতি মিলনকান্তি দত্ত জানান; ফেসবুক লাইভ বা অন্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে; মানুষকে ঘরে বসে অঞ্জলি দেওয়ার ব্যবস্থা করছে কিছু কমিটি। রাতে আরতির পরে ন’টায়; সমস্ত মণ্ডপ দর্শনার্থীদের জন্য বন্ধ থাকবে। সংক্রমণ এড়াতে প্রসাদ বিলি; এবং বিসর্জনের শোভাযাত্রা আগেই বাতিল করা হয়েছে। তবে করোনা বিপদ সত্ত্বেও, পশ্চিমবঙ্গের দুর্গা পুজো উদ্যোক্তারা; সাড়ম্বরে দুর্গোৎসব পালন করছেন।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন