৫ দিন বন্ধ ব্যাঙ্ক, উৎসবের সময় চরম সমস্যায় আমজনতা

526
৫ দিন বন্ধ ব্যাঙ্ক, উৎসবের সময় চরম সমস্যায় আমজনতা/The News বাংলা
৫ দিন বন্ধ ব্যাঙ্ক, উৎসবের সময় চরম সমস্যায় আমজনতা/The News বাংলা

The News বাংলা, কলকাতাঃ সোমবার ছাড়া পরপর ৬ দিন ব্যাঙ্ক বন্ধ। টাকা নাও মিলতে পারে এটিএম থেকেও। বড়দিনের উৎসবের সময় চরম সমস্যায় পড়তে চলেছে ভারতের আমজনতা। নিজের টাকা নিজের দরকারে তুলতে পারবেন না।

আরও পড়ুন: আদিবাসী, দলিত না মুসলমান, বিজেপির গবেষণায় রামভক্ত হনুমানের জাত

ধর্মঘট ও ছুটির জাঁতাকলে পড়ে আগামী ছয় দিনের মধ্যে পাঁচদিন দেশে ব্যাঙ্কিং পরিষেবা বন্ধ থাকবে। প্রভাবিত হতে পারে এটিএম পরিষেবাও। এর জেরে চরম ভোগান্তির আশঙ্কা করছে সাধারণ মানুষ সহ শিল্পমহল। ভোগান্তির আশঙ্কায় গতকাল দেশের অনেক মেট্রো শহরের পাশাপাশি ছোটো শহরগুলিতেও এটিএম কাউন্টারগুলির সামনে দীর্ঘ লাইন চোখে পড়েছে।

আরও পড়ুন: মার্চে বন্ধ দেশের অর্ধেক এটিএম কি মোদীর নোটবন্দীর কুফল

শুক্রবার ২১ সেপ্টেম্বর ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে এআইবিওসি বা অল ইন্ডিয়া ব্যাঙ্ক অফিসারস কনফেডারেশন। ব্যাঙ্ক আধিকারিকদের বেতন সংক্রান্ত দাবিদাওয়া নিয়ে এআইবিওসি এই ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে। উল্লেখ্য, অল ইন্ডিয়া ব্যাঙ্ক অফিসারস কনফেডারেশন-র এই ধর্মঘটে দেশের প্রায় ৩ লক্ষ ২০ হাজার ব্যাঙ্ক আধিকারিক যোগ দেবেন।

আরও পড়ুন: মোদীর গেরুয়া রথকে আটকাতে পারল না মমতার সরকার

অল ইন্ডিয়া ব্যাঙ্ক অফিসারস কনফেডারেশন-র অ্যাসিস্ট্যান্ট জেনেরাল সেক্রেটারি সজল দাস বলেন, ‘বেতন সংস্কার নিয়ে আমরা সরকারের কাছে একাধিকবার দাবি জানিয়েছি কিন্তু গত ১৯ মাসে সরকারের তরফে এই বিষয়ে কোনও উদ্যোগ নেওয়া হয়নি। তাই বাধ্য হয়ে আমরা ২১ ডিসেম্বর ধর্মঘটে যাচ্ছি’।

আরও পড়ুনঃ ‘রাজনীতিতে টিকে থাকতে গেলে তেল দিতেই হবে’ বিস্ফোরক তৃণমূল সাংসদ

২১ ডিসেম্বরের ধর্মঘটের পরদিন ২২ ডিসেম্বর চতুর্থ শনিবার ও ২৩ ডিসেম্বর রবিবার হওয়ায় ব্যাঙ্ক বন্ধ থাকবে। তবে ২৪ ডিসেম্বর, সোমবার ব্যাঙ্ক খোলা থাকবে। ২৫ ডিসেম্বর বড়দিনের ছুটিতে ব্যাঙ্ক বন্ধ থাকবে। ২৬ ডিসেম্বর, বুধবার ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে ইউএফবিইউ বা ইউনাইটেড ফোরাম অফ ব্যাঙ্ক ইউনিয়নস।

আরও পড়ুন: ২২ বছর পর ফের ভূস্বর্গে রাষ্ট্রপতি শাসন

ব্যাঙ্ককর্মীদের ৯টি সংগঠনের যৌথ মঞ্চ ইউনাইটেড ফোরাম অফ ব্যাঙ্ক ইউনিয়নস। ওইদিন ইউএফবিইউ-র ডাকে দেশের প্রায় ১০ লাখ ব্যাঙ্ককর্মী ধর্মঘটে যোগ দেবেন। ব্যাঙ্ক অফ বরোদা, দেনা ব্যাঙ্ক ও বিজয়া ব্যাঙ্ককে সংযুক্ত করার সরকারি সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে এই ধর্মঘটের ডাক দেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুনঃ EXCLUSIVE: কলকাতা থেকে পুলিশ ও ব্যবসায়ীদের টাকা যাচ্ছে জঙ্গিদের হাতে

বড়দিনের ছুটির এই মরসুমে এইভাবে দেখে শুনে অল ইন্ডিয়া ব্যাঙ্ক অফিসারস কনফেডারেশন ও ইউনাইটেড ফোরাম অফ ব্যাঙ্ক ইউনিয়নস ব্যাঙ্ক ধর্মঘটের ডাক দেওয়ায় ক্ষুব্ধ সাধারণ মানুষ। ক্ষুব্ধ দেশের শিল্প মহলও। তবে তাদের ধর্মঘটের রাস্তায় যাওয়া ছাড়া কোন রাস্তা ছিল না বলেই জানিয়েছেন ব্যাঙ্ক কর্মী ও অফিসারদের সংগঠনগুলি। শেষ পর্যন্ত বড়দিনের উৎসবের সময় ভোগান্তির শিকার হবে সেই সাধারণ মানুষ।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন