বহু আসনেই দু-হাজারের কম ভোটে হার, পুনর্গণনা চেয়ে আদালতে যাচ্ছে বিজেপি

2527
বহু আসনেই দু-হাজারের কম ভোটে হার, পুনর্গণনা চেয়ে আদালতে যাচ্ছে বিজেপি
বহু আসনেই দু-হাজারের কম ভোটে হার, পুনর্গণনা চেয়ে আদালতে যাচ্ছে বিজেপি

তৃতীয়বারের জন্য মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নিয়েছেন; মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নতুন মন্ত্রীসভার মন্ত্রীরাও; যে যার দায়িত্ব বুঝে নিয়েছেন। তবে এখনও হার মানতে রাজি নয় বিজেপি। বহু আসনেই দু-হাজারের কম ভোটে হার; আর তাই পুনর্গণনা চেয়ে আদালতে যাচ্ছে বিজেপি। ইতিমধ্যেই নন্দীগ্রাম আসনে পুনর্গণনা চেয়ে; আদালতে যাওয়ার সিদ্ধান্ত ঘোষণা করেছে তৃণমূল। এবার সেই একই রাস্তায় বিজেপিও। মঙ্গলবার বিজেপিও জানিয়ে দিল, পুনর্গণনার দাবি নিয়ে; তারাও আদালতে যাচ্ছে। যেসব আসনে তারা দু-হাজারের কম ভোটে হেরেছে; সেইসব আসনে পুনর্গণনা চেয়ে তারা মামলা করবে কোর্টে। সবমিলিয়ে ভোটের যুদ্ধ; এবার শুরু হবে আদালতে।

বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ জানিয়েছেন; “দু-হাজারের কম ব্যবধানে হারা সব আসনেই; পুনর্গণনা চেয়ে মামলা করব”। বিজেপি সাংসদের মতে; “পশ্চিম মেদিনীপুর সহ বেশ কয়েকটি জেলায়; দু-বছর আগেও লোকসভা নির্বাচনে যেখানে বিজেপি বড় ব্যবধানে জয়ী হয়েছিল; সেখানে এবার অল্প ব্যবধানে পরাজিত হয়েছেন গেরুয়া প্রার্থীরা। ভোট গণনায় কারচুপি হওয়ায়; এটা হয়েছে”।

আরও পড়ুনঃ ঘণ্টা-খানেকের বৃষ্টিতেই ডুবল ফিরহাদ হাকিমের পাম্পিং স্টেশনের ‘প্রতিশ্রুতি’

আগেই জানা গিয়েছিল, পশ্চিমবঙ্গে পুনর্গণনার দাবিতে; আদালতে যাচ্ছে বিজেপি। একুশের ভোটে বিজেপি এক হাজার বা তার কম ভোটে হারা আসনে; পুনর্গণনার দাবিতে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হবে। গেরুয়া শিবিরের দাবি; এমন আসনের সংখ্যা ৯২টি। তাদের ধারণা, এই অপ্রত্যাশিত হারের পেছনে; এমন কিছু একটা ঘটনা রয়েছে; যা সামনে আসা দরকার। আদালতে সেই দাবি তোলা হবে। তবে দিলীপ ঘোষ জানালেন, ১ হাজার নয়; ২ হাজারের কম ভোটে হারা সব আসনেই; পুনর্গণনার দাবি তোলা হবে।

ভোটের রেজাল্ট বেরোনোর পর থেকেই; রিকাউন্টিং-য়ের দাবিতে সরব হয়েছে বিজেপি কর্মী সমর্থকরা। সোশ্যাল মিডিয়ায় বিজেপি নেতাদের কাছে; পুনর্গণনা করার দাবি তোলা হয়েছে। তৃণমূল বিধায়ক ও রাজ্যের মন্ত্রী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায় জানিয়েছেন; “মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কমিশনের কাছে; রিকাউন্টিং চেয়েছিলেন। কমিশন দেয়নি। তাই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কোর্টে যাবেন”।

তাঁর ব্যাখ্যা, “দু-হাজারে হেরেছে বলেই; রিকাউন্টিং হয় না। গণনায় বেনিয়মের অভিযোগ থাকতে হবে। যেটা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সঙ্গে সঙ্গে চেয়েছিলেন। কিন্তু এখন তো ভোটপ্রক্রিয়াই; শেষ হয়ে গিয়েছে। বিধায়কদের শপথ নেওয়া হয়ে গিয়েছে। পুনর্গনণার দাবি; এখন অযৌক্তিক”। তবে তা মানতে রাজি নয়; বঙ্গ বিজেপি।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন