বিধানসভায় টিকিট না পেয়ে, নিজের অফিসেই আগুন দিলেন তৃণমূল নেতা

1295
বিধানসভায় টিকিট না পেয়ে, নিজের অফিসেই আগুন দিলেন তৃণমূল নেতা
বিধানসভায় টিকিট না পেয়ে, নিজের অফিসেই আগুন দিলেন তৃণমূল নেতা

বিধানসভায় টিকিট না পেয়ে; নিজের অফিসেই আগুন দিলেন তৃণমূল নেতা। টিকিট না পেয়ে দিশেহারা আরাবুল ইসলাম; নিজের পার্টি অফিসেই ভাঙচুর করে আগুন লাগালেন। একুশের বিধানসভা ভোটের প্রার্থী তালিকায়; তাঁর নাম নেই। এই খবর পেয়েই, নিজের ক্ষোভ অভিমান লিখে; ফেসবুকে পোস্ট করেন ভাঙড়ের দাপুটে নেতা আরাবুল। বিধানসভা নির্বাচনে, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ভাঙড় বিধানসভা আসনে; প্রার্থী ঘোষণা করেন মহম্মদ রেজাউল করিমকে। তারপরেই ক্ষেপে ওঠেন; আরাবুল ইসলাম। সংবাদ মাধ্যমের সামনেই, প্রকাশ্যেই কান্নায়; ভেঙে পড়লেন ভাঙড়ের নেতা। আরাবুলের অনুগামীরা রাস্তায় টায়ার জ্বালিয়ে; পথ অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখান।

এদিন প্রার্থী তালিকায় ভাঙড় আসন থেকে তাঁর নাম নেই; দেখার পরই ফেসবুকে আরাবুল ইসলাম ফেসবুকে লেখেন; “দলের আজকে আমার প্রয়োজন ফুরালো”। এরপরই প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে খোলাখুলি তিনি বলেন; “হাজারে হাজারে মানুষ খবর পেয়ে; এখানে আমার বাড়িতে চলে এসেছে। ভাঙড়ের মানুষদের নিয়েই; আমি আরাবুল ইসলাম। আজকে বুথ থেকে উঠে আসা মানুষ; তাঁরা কান্নায় ভেঙে পড়েছে। আজকে শুধু একটা কথা বলতে চাই যে; এই দলটাকে বুকে আঁকড়ে ভাঙড়ের সাধারণ মানুষের পাশে থেকে লড়াই করেছি। ভাঙড়ের মানুষ আজকে যেটা বলবে; আমি সেইটাই করব”।

আরও পড়ুনঃ “দলে আজকে আমার প্রয়োজন ফুরালো”, মমতার প্রার্থী তালিকা প্রকাশের পরেই তৃণমূল নেতার হতাশা

আরাবুল ইসলামের এই হতাশার পিছনে; অবশ্য অনেক কারণ আছে। ২০১৯ লোকসভা নির্বাচনে, এই রাজ্যেও বিজেপি হাওয়ার মধ্যেও; যাদবপুর লোকসভা কেন্দ্র থেকে, তৃণমূল প্রার্থী মিমি চক্রবর্তীকে জিতিয়ে আনার পিছনে; তাঁর অনেক বড় ভূমিকা ছিল। সেই যাদবপুর লোকসভা কেন্দ্রের অন্তর্গত একটি বিধানসভা কেন্দ্রে; তাঁকে প্রার্থী করা হবে, এমনটাই আশা করেছিলেন তিনি। সেটা হয় নি, বা স্বীকৃতি দিলেন না দলনেত্রী মমতা।

ভাঙর কেন্দ্রে প্রার্থী করা হয়েছে; সিপিএম থেকে ২০২০ তে যোগ দেওয়া রেজাউল করিম-কে। আর তাতেই নিজের হতাশা; জাহির করেছেন আরাবুল ইসলাম। দলের লড়াই করা নেতাকে বাদ দিয়ে; সিপিএম থেকে আসা নেতাকে প্রার্থী করায় হতাশ গোটা ভাঙর তৃণমূল। তবে আরাবুল বিরোধীরা বলছেন; “দিদির সিদ্ধান্তই ফাইনাল। আমরা মেনে নিয়ে; তৃণমূলের হয়ে প্রচার করব”। তবে তাতে তৃণমূলের ক্ষোভ কমছে না।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন