তৃণমূলের অত্যাচারে বাংলা ছেড়ে অসমে পালাতে হল বিজেপি কর্মীদের

1598
তৃণমূলের অত্যাচারে বাংলা ছেড়ে অসমে পালাতে হল বিজেপি কর্মীদের
তৃণমূলের অত্যাচারে বাংলা ছেড়ে অসমে পালাতে হল বিজেপি কর্মীদের

ভোটের প্রচারে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন; বাইরে রাজ্যে কাজ করা বাঙালিদের তিনি এরাজ্যে কাজ দিয়ে ফিরিয়ে আনবেন। তার আগেই, তাঁর দল তৃণমূলের অত্যাচারে বাংলা ছেড়ে; অসমে পালাতে হল বিজেপি কর্মীদের। বিজেপির এই বাঙালি কর্মীরা; ঘরবাড়ি ছেড়ে আশ্রয় নিয়েছেন; পাশের রাজ্য অসমে। নিজের ফেসবুক পোস্টে বাংলার বিজেপি কর্মীদের ছবি দিয়ে; এই খবর জানিয়েছেন অসমের মন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মা। অসমের বিজেপি বিধায়কের এই পোস্ট; শেয়ার করেছেন বাংলা বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলিপ ঘোষ। “মিথ্যা কথা; ওই রাজ্য থেকে ভোট করাতে এসেছিল; আবার ফিরে গেছে”; জানিয়ে দিয়েছে তৃণমূল।

বিজেপির অভিযোগ, ভোটের ফলের পরে হিংসায়; ঘরছাড়া হাজার হাজার বিজেপি কর্মী সমর্থক। এবার রাজ্য ছেড়েই বাঙালীদের; পালানোর ঘটনা সামনে এল। ভোট পরবর্তী স’ন্ত্রাস থেকে প্রাণ বাঁচাতে; বিজেপির কর্মীরা বাংলার প্রতিবেশী বিজেপি শাসিত রাজ্য অসমে গিয়ে আশ্রয় নিচ্ছে; বলে জানান অসমের প্রাক্তন মন্ত্রী তথা বর্তমান বিজেপির বিধায়ক হিমন্ত বিশ্ব শর্মা। ছবি সহ পোস্ট দিয়েছেন তিনি।

আরও পড়ুনঃ “হাতে এত সাংসদ বিধায়ক, মানুষের পাশে না দাঁড়ালে ইস্তফা দেওয়া উচিত”, নেতাদের একহাত নিলেন অর্জুন

অসমের বিজেপির বিধায়ক হিমন্ত বিশ্ব শর্মা ছবি সহ পোস্ট করলেন

অসমের বিধায়ক, হিমন্ত বিশ্ব শর্মা একটি টুইট করে লিখেছেন; “৩০০ থেকে ৪০০ বিজেপি কর্মী, বাংলায় বেড়ে চলা হিংসার ভয়ে; অসমের ধুবরিতে এসে আশ্রয় নিয়েছেন। আমরা তাঁদের মাথা গোজার স্থান; আর খাবারের বন্দোবস্ত করে দিয়েছি। দিদির উচিৎ গণতন্ত্রের; এই নগ্ন নাচ বন্ধ করা। বাংলা এর থেকে ভালো কিছু পেত”। হিমন্ত বিশ্ব শর্মা এই ঘটনার পরিপেক্ষিতে; বেশ কয়েকটি ছবিও টুইট করেছেন।

আরও পড়ুন; নির্বাচন কমিশন ও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়-কে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে, সংখ্যালঘু এলাকায় বিজয় মিছিল

অসমের প্রাক্তন শিক্ষা মন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মা; একটি টুইট করে লিখেছেন; “২৪ ঘণ্টা হয়ে গিয়েছে; বিজেপি অসমে জিতেছে। একজন কংগ্রেসের কর্মীকে, কটাক্ষ পর্যন্ত করা হয়নি; হাতাহাতি-মারধোর তো দূরের কথা। কিন্তু বাংলার দিদি আর দাদারা মিলে; স’ন্ত্রাসের আবহ তৈরি করেছে। বিজেপির কর্মীদের খুন করা হচ্ছে; সভ্য সমাজ কি পার্থক্যটা দেখতে পাচ্ছে?” অবশ্য বিজেপির এই অভিযোগ; স্রেফ ‘গুজব’ বলে উড়িয়ে দিয়েছে তৃণমূল।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন