ভোট বড় বালাই, সাঁইবাড়ি হ’ত্যাকাণ্ডের ৫১-তম বছরে মালা দিতে এল না কংগ্রেস

1079
ভোট বড় বালাই, সাঁইবাড়ি হ'ত্যাকাণ্ডের ৫১-তম বছরে মালা দিতে এল না কংগ্রেস
ভোট বড় বালাই, সাঁইবাড়ি হ'ত্যাকাণ্ডের ৫১-তম বছরে মালা দিতে এল না কংগ্রেস

ভোট বড় বালাই, সাঁইবাড়ি হ’ত্যাকাণ্ডের ৫১-তম বছরে; মালা দিতে এল না কংগ্রেস। ১৯৭০ সালের ১৭ মার্চ, ৫১ বছর আগে; হা’মলা হয়েছিল বর্ধমানের সাঁইবাড়িতে। খু’ন হয়েছিলেন দুই ভাই; প্রণব সাঁই ও মলয় সাইঁ। তাঁরা দুজনেই কংগ্রেসের; সক্রিয় নেতা ছিলেন। দুই ভাইয়ের রক্তমাখা ভাত; সেদিন মায়ের মুখে তুলে দিয়েছিল হ’ত্যাকারীরা। চোখের সামনে ছেলেদের মৃত্যু, রক্তে লাল হওয়া ভাত; চোখে ভাসত মায়ের। বেশিদিন বাঁচেন নি তিনি। প্রণব সাঁই ও মলয় সাইঁয়ের সঙ্গে; দু’ষ্কৃতীরা খু’ন করেছিল পরিবার ঘনিষ্ঠ জীতেন রায়কেও। কংগ্রেসের অভিযোগ, সিপিএম মিছিল করে এসে; এই গণহ’ত্যা চালিয়েছিল। নাম জড়িয়েছিল; প্রয়াত সিপিএম নেতা নিরুপম সেনের। সেই সিপিএমের সঙ্গেই জোট করেছে কংগ্রেস; তাই ত্রিসীমানায় এদিন দেখা যায়নি কংগ্রেসের কাউকে।

পাঁচ দশক পরেও, রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচনের মুখে; ফের প্রাসঙ্গিক সাঁইবাড়ি হ’ত্যাকাণ্ড। ৫১-তম বছরে, সাঁইবাড়ির শহিদ বেদিতে; মাল্যদান করতে এল না কংগ্রেস। যা নিয়ে শুরু হয়েছে; রাজনৈতিক তরজা। তৃণমূল ও সাঁই পরিবারের অভিযোগ; “সাঁইবাড়ি হ’ত্যাকাণ্ডের স্মৃতি ভুলে গেছে কংগ্রেস। বিধানসভা নির্বাচনে, সিপিএমের সঙ্গে; জোট করে ভোটে লড়ছে। তাই জোটের বাধ্যবাধকতা থেকেই; আসেনি কংগ্রেস”।

আরও পড়ুনঃ তৃতীয়বার ক্ষমতায় এলে, জেনারেলদের ৫০০, বাকিদের মাসিক ১০০০ টাকা ‘পকেটমানি’র প্রতিশ্রুতি মমতার

২০১১ সাল থেকে কংগ্রেসের পাশাপাশি; তৃণমূলও সাইঁবাড়ি দিবস পালন করে আসছে। একদিকে বর্ধমান শহরের তেলমারুই পাড়ায়; সাঁইবাড়ির শহিদদের বেদিতে গিয়ে শ্রদ্ধার্ঘ্য অর্পণ করার পাশাপাশি; জেলা কংগ্রেস ভবনেও পৃথকভাবে এই দিনটি পালন করে আসছিলেন; কংগ্রেস নেতা-কর্মীরা। কিন্তু এবারেই প্রথম; সেই ধারায় ছেদ পড়ল। কংগ্রেসের পক্ষ থেকে এবার সাঁইবাড়ির শহিদ বেদীতে; মাল্যদান করা হয়নি।

আরও পড়ুনঃ “মোদী সরকারের টাকায়, মমতার তৃণমূলের ইস্তেহার”, দাবি বিজেপির

সাঁই পরিবারের গৃহবধূ তথা তৃণমূল নেত্রী উমা সাঁইয়ের অভিযোগ; “যে সাঁইবাড়িকে সিপিএম ধ্বংস করে দিল; সেই সিপিএমের সঙ্গে হাত মিলিয়ে তারা এল না। এটা খুব খারাপ লাগল। ভোটে জোট করার জন্য এল না”। একই অভিযোগ করেছেন, পূর্ব বর্ধমান জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি; তথা বিদায়ী মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ।

এই অভিযোগ মানতে নারাজ কংগ্রেস। প্রদেশ কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক অভিজিৎ ভট্টাচার্যের দাবি; “জেলা পার্টি অফিসে; তিন শহিদকে স্মরণ করেছি। পাল্টা তৃণমূলকে দোষারোপ করে তাঁর দাবি; “এতদিনে সাঁইবাড়ি হ’ত্যাকাণ্ডে দেষীদের চিহ্নিত করে; শাস্তি দিতে পারেনি তৃণমূল। তাছাড়া সাঁই পরিবারের পক্ষ থেকে; আমাদের আমন্ত্রণ জানানো হয়নি”। সবমিলিয়ে ৫১ বছর পরেও; ভোট বাজারে প্রাসঙ্গিক সাঁইবাড়ি হ’ত্যাকাণ্ড।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন