দলীয় কর্মীরা আক্রান্ত, মমতার শপথগ্রহণ অনুষ্ঠান বয়কট দিলীপের

279
দলীয় কর্মীরা আক্রান্ত, মমতার শপথগ্রহণ অনুষ্ঠান বয়কট দিলীপের
দলীয় কর্মীরা আক্রান্ত, মমতার শপথগ্রহণ অনুষ্ঠান বয়কট দিলীপের

দলীয় কর্মীরা আক্রান্ত, মমতার শপথগ্রহণ অনুষ্ঠান বয়কট দিলীপের। বিপুল ভোটে ক্ষমতায় আসার পরে; বুধবার শপথ নিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই অনুষ্ঠান বয়কট করলেন; বিজেপি রাজ্য সভাপতি। “ভোটের পর আমাদের কর্মীদের উপর; আক্রমণ হচ্ছে। সেই কারণেই শপথ অনুষ্ঠানে যাব না”; পরিষ্কার জানিয়ে দিয়েছেন দিলীপ ঘোষ। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে, আমন্ত্রিতদের তালিকায় ছিলেন; দিলীপ ঘোষ। সেইসঙ্গে আমন্ত্রিতদের তালিকায় ছিলেন; বিজেপি পরিষদীয় দলের প্রাক্তন নেতা মনোজ টিগ্গাও। কিন্তু দিলীপ ঘোষ শপথ অনুষ্ঠানে; না যাওয়ার কথা জানিয়ে দিয়েছেন।

আরও পড়ুনঃ তৃণমূলের অত্যাচারে বাংলা ছেড়ে অসমে পালাতে হল বিজেপি কর্মীদের

সোমবারই দিলীপ ঘোষ অভিযোগ করেন যে; রাজ্যজুড়ে বিজেপি কর্মীদের ওপর হামলা চালাচ্ছে তৃণমূল। ঘরবাড়ি-দোকানঘর পার্টি অফিস; ভাঙচুর করা হচ্ছে। তাঁদের আট কর্মীকে খু’ন করা হয়েছে; বলেও অভিযোগ করেন তিনি। মঙ্গলবার তিনি বলেন, আগে রাজ্যে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা হোক; তারপর হোক শপথ। তাঁর অভিযোগ, রাজ্যে রাষ্ট্রপতি শাসন জারির; মত পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে।

আরও পড়ুনঃ “হাতে এত সাংসদ বিধায়ক, মানুষের পাশে না দাঁড়ালে ইস্তফা দেওয়া উচিত”, নেতাদের একহাত নিলেন অর্জুন

টানা তৃতীয়বারের জন্য; বাংলার মুখ্যমন্ত্রীর কুর্সিতে বসলেন; তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বুধবার সকাল পৌনে ১১টায়; রাজভবনে শপথগ্রহণ করলেন তিনি। রাজ্যের করোনা পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে; খুব ছোট করে করা হল মমতার শপথগ্রহণের অনুষ্ঠান। তবে আমন্ত্রিতদের তালিকায় ছিল; একাধিক চমক। অনুষ্ঠানে ডাক পেয়েছিলেন, বাংলার মহারাজ সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় ও রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য।

আরও পড়ুন; নির্বাচন কমিশন ও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়-কে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে, সংখ্যালঘু এলাকায় বিজয় মিছিল

মমতার শপথগ্রহণে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল; প্রাক্তন বিরোধী দলনেতা আবদুল মান্নান; কংগ্রেস নেতা প্রদীপ ভট্টাচার্য; প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীররঞ্জন চৌধুরী; বিজেপি বিধায়ক মনোজ টিগ্গা; বিজেপি সাংসদ তথা রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ; রাজ্য বামফ্রন্টের চেয়ারম্যান বিমান বসুকেও। তবে প্রদীপ ভট্টাচার্য ছাড়া; এদিন কোন বিরোধী দলনেতাকেই রাজভবনে দেখা যায়নি।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন