রাহুল, দিলীপ, শুভেন্দুর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা, নির্বাচন কমিশন বাংলায় পক্ষপাত করছে না

475
রাহুল, দিলীপ, শুভেন্দুর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা, নির্বাচন কমিশন বাংলায় পক্ষপাত করছে না
রাহুল, দিলীপ, শুভেন্দুর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা, নির্বাচন কমিশন বাংলায় পক্ষপাত করছে না

প্ররোচনামূলক প্রচারের জন্য; মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উপর ২৪ ঘণ্টার নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে; নির্বাচন কমিশন। ধর্মীয় মন্তব্য করে, আদর্শ নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন করেছেন মমতা; তাই তৃণমূল নেত্রীর প্রচারে নিষেধাজ্ঞা। সোমবার রাত ৮ টা থেকে মঙ্গলবার রাত ৮ টা পর্যন্ত; ভোটপ্রচার করতে পারবেন না তৃণমূল নেত্রী। এর জেরেই, ‘নির্বাচন কমিশন নিরপেক্ষ নয়; বিজেপির হয়ে কাজ করছে”; দাবি তৃণমূলের। এবার বিজেপি নেতা রাহুল সিনহা, দিলীপ ঘোষ ও শুভেন্দু অধিকারীর বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নিয়ে; নির্বাচন কমিশন প্রমাণ করে দিল; তারা একদমই পক্ষপাত করছে না। এখন তৃণমূলকে প্রশ্ন, বিজেপির কর্মী সমর্থকদের; তাহলে কমিশন পক্ষপাত করছে না?

তৃণমূল নেত্রীর প্রচারে নিষেধাজ্ঞা; জারি করেছে নির্বাচন কমিশন। কমিশনের এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে, মঙ্গলবার গান্ধী মূর্তির নিচে; ধর্নায় বসেছেন মমতা ও তৃণমূল নেতা-নেত্রীরা। কমিশন বিজেপির হয়ে কাজ করছে; দাবি তৃণমূলের। সোশ্যাল মিডিয়া ভরিয়ে দিয়েছে; তৃণমূল কর্মী সমর্থকরা। ‘এটা বিজেপি কমিশন’; দাবি তৃণমূলের। তৃণমূলের সেই অভিযোগকে গঙ্গার জলে; ভাসিয়ে দিল নির্বাচন কমিশন।

বিজেপি নেতা রাহুল সিনহা, দিলীপ ঘোষ ও শুভেন্দু অধিকারীর বিরুদ্ধে; ব্যবস্থা নিল কমিশন। কমিশনের নির্দেশে ৪৮ ঘণ্টার নিষেধাজ্ঞা; রাহুল সিনহার প্রচারে। শীতলকুচি নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্যের জেরে; শাস্তির কবলে রাহুল। আগামী ৪৮ ঘন্টা কোনওরকম প্রচার; মিটিং, মিছিল করতে পারবেন না তিনি।

আরও পড়ুনঃ যোগীর উপর নিষেধাজ্ঞা জারি হলে ‘সঠিক সিদ্ধান্ত’, মমতার বেলায় কমিশন ‘নিরপেক্ষ নয়’

এরপর, দিলীপ ঘোষকে নোটিস পাঠাল; নির্বাচন কমিশন। শীতলকুচি নিয়ে; বিতর্কিত মন্তব্যের জেরেই নোটিস। উত্তর পছন্দ না হলে; তাঁর প্রচারও নিষিদ্ধ করবে কমিশন। সতর্ক করা হয়েছে; শুভেন্দু অধিকারীকেও। শুভেন্দুর জন্য কমিশন থেকে; এসেছে সতর্কবার্তা। আগেই তাঁকে কারণ দর্শানোর; নোটিস পাঠানো হয়। কমিশনকে জবাবি চিঠিও পাঠান তিনি। তাঁর জবাবে; সন্তুষ্ট নয় কমিশন। নিজের বক্তব্য নিয়ে সতর্ক থাকতে হবে; শুভেন্দুকে সতর্কবার্তা কমিশনের।

বাংলার ভোট নিয়ে পরপর কড়া পদক্ষেপ নিয়ে চলেছে; নির্বাচন কমিশন। গতকাল ২৪ ঘন্টার জন্য; তৃণমূল নেত্রী মমতাকে প্রচার থেকে নিষিদ্ধ করলে; প্রশ্ন উঠতে শুরু করে নির্বাচন কমিশনের নিরপেক্ষতা নিয়ে। ২৪ ঘন্টা কাটতে না কাটতেই, কমিশন বুঝিয়ে দিল; বাংলার নির্বাচনে তারা কোন বিশেষ পক্ষের হয়ে কাজ করছে না।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন