‘শীতলকুচি টোটালটা প্লান করেছে অমিত শাহ, এসপি-র সঙ্গে বসে প্ল্যান বিজেপির’, মারা’ত্মক অভিযোগ মমতার

441
'শীতলকুচি টোটালটা প্লান করেছে অমিত শাহ, এসপি-র সঙ্গে বসে প্ল্যান বিজেপির', মারা'ত্মক অভিযোগ মমতার
'শীতলকুচি টোটালটা প্লান করেছে অমিত শাহ, এসপি-র সঙ্গে বসে প্ল্যান বিজেপির', মারা'ত্মক অভিযোগ মমতার

‘শীতলকুচি টোটালটা প্লান করেছে অমিত শাহ; এসপি-র সঙ্গে বসে প্ল্যান করেছে বিজেপি’। সোমবার মারা’ত্মক অভিযোগ মমতার। ভোট প্রচারে কোচবিহারের শীতলকুচিতে, কেন্দ্রীয় বাহিনীর গুলিতে চারজনের মৃত্যুর ঘটনা নিয়ে; বিজেপির বিরুদ্ধে সুর আরও চড়ালেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রানাঘাটের জনসভায় তৃণমূল নেত্রী ফের; কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে নিশানা করলেন। সেইসঙ্গে তদন্তের আগেই গুলি চালনার ঘটনায়, ক্নিনচিট দেওয়ার জন্য; প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীরও সমালোচনা করেছেন। নাম না করে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের মন্তব্যেরও; তীব্র নিন্দা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এদিন বলেছেন; “ওই ঘটনার তদন্ত করবই। তদন্তে আসল ঘটনা বের করব। কীভাবে একটা মেয়েকে আগে পাঠিয়ে, তাকে বলতে বলা হয়েছিল; আমার বাচ্চাকে লুঠ করে নিয়ে গেছে। তারপর প্ল্যান অনুযায়ী গুলি চালানো হয়”। তৃণমূল নেত্রী বলেছেন; “যারা গুলি চালিয়েছিল, তাঁদের নাম সব আমি বের করেছি; আমি ছেড়ে কথা বলব না এই কেসটাতে। আমাকে বোকা ভাববেন না। টোটালটা প্লানিং করেছেন অমিত শাহ। এসপি-র সঙ্গে বসে প্ল্যান করেছে বিজেপি”।

আরও পড়ুনঃ “কেন্দ্রীয় বাহিনীকে আক্রমণ করে, অস্ত্র কাড়তে এসেছিল তৃণমূল”, মমতার পুলিশের রিপোর্ট

তৃণমূল নেত্রীর অভিযোগ; “শীতলকুচির ঘটনা পরিকল্পিত। এসপি-র সঙ্গে বসে; প্ল্যান করেছে বিজেপি। টোটালটা প্লানিং করেছেন অমিত শাহ”। গতকাল দিলীপ ঘোষ বলেছিলেন; “শীতলকুচিতে দুষ্টু ছেলেরা মরেছে। বেশি বাড়াবাড়ি করলে; জায়গায় জায়গায় শীতলকুচি হবে”। নাম না করে দিলীপের মন্তব্যের; তীব্র সমালোচনা করেছেন মমতা। তিনি বলেছেন, “এই পার্টিকে ব্যান করা উচিত; রাজ্য সভাপতি বলছে গুলি চালিয়ে দাও”।

আরও পড়ুনঃ কেন্দ্রীয় বাহিনীকে রাজ্য পুলিশ ভেবে গায়ে হাত ‘দুষ্টু লুঙ্গি বাহিনীর’

শীতলকুচির স্বজনহারা পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে; সশরীরে দেখা করতে যেতে পারেননি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে ১২৬ নম্বর বুথে কেন্দ্রীয় বাহিনীর গুলি চালানোর ঘটনায়; রাজনৈতিক চাপান-উতোর তুঙ্গে উঠেছে। বিশেষ করে এই ঘটনার পর একাধিক বিজেপি নেতারা; যে ধরনের বিতর্কিত বয়ান দিয়েছেন; সেই নিয়ে পালটা আক্রমণের পথে হেঁটেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। যারা এই ধরনের উস্কানিমূলক মন্তব্য করবেন; তাদের ব্যান করতে চেয়ে এই সংক্রান্ত বিলও লোকসভায় আনার কথা; বলেন তৃণমূল সুপ্রিমো।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন