“করোনা ছড়াচ্ছে কেন্দ্রীয় বাহিনী, ঢুকতে দেব না”, আক্রমণাত্মক মমতা

702
"করোনা ছড়াচ্ছে কেন্দ্রীয় বাহিনী, ঢুকতে দেব না", আক্রমণাত্মক মমতা

“করোনা ছড়াচ্ছে কেন্দ্রীয় বাহিনী; ঢুকতে দেব না”। ফের আক্রমণাত্মক মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ফের একবার নিজের প্রচারসভা থেকে, কেন্দ্রীয় বাহিনীকে নিশানা করলেন; মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। প্রথমে তিনি সেন্ট্রাল বাহিনীকে; ঘেরাও করার নিদান দিয়েছিলেন। তারপরেই ঘটে; শীতলকুচি কাণ্ড। সোমবার শ্যামপুকুরে ভার্চুয়াল জনসভায় মমতা বলেন; “তৃণমূলের বুথে এসে করোনা ছড়াচ্ছে; কেন্দ্রীয় বাহিনী। আমরা কেন্দ্রীয় বাহিনীকে ক্যাম্প অফিসে; ঢুকতে দেব না”।

সিআরপিএফের বিরুদ্ধে তোপ দেগে মুখ্যমন্ত্রী মমতা এদিন বলেন; “মুর্শিদাবাদের রানিনগরে তৃণমূল নেতার বাড়িতে; ভাঙচুর চালিয়েছে কেন্দ্রীয় বাহিনী। তখন বাড়িতে ছিলেন তাঁর স্ত্রী। তৃণমূল নেতা তখন বাড়িতে ছিলেন না। সিআরপিএফের বিরুদ্ধে এফআইআর করব। এই ঘটনায় আদালতে যাবেন বলে; হুঁশিয়ারি দেন মমতা।

আরও পড়ুন; করোনা মোকাবিলায় ভারতীয় সেনা, অবসর ভেঙে লড়াইয়ের মাঠে মেডিক্যাল কর্মীরা

এই ঘটনার উল্লেখ করে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন; মালদার হবিবপুরেও কেন্দ্রীয় বাহিনী; তৃণমূলের ক্যাম্প অফিস দখল করে বসে আছে। বলছে বিজেপিকে ভোট দাও ইচ্ছে মতো নাকি ? আর এরপরেই মমতা বলেন; রাজ্য জুড়ে করোনা ছড়াচ্ছে; এই কেন্দ্রীয় বাহিনী। এদিন মুখ্যমন্ত্রী বলেন; “রাজ্যে কেন্দ্রীয় বাহিনীর; দেড় লাখ জওয়ান এসেছেন। তাঁদের প্রত্যেকের RTPCR টেস্ট; বাধ্যতামূলকভাবে করাতে হবে”।

আরও পড়ুনঃ মানুষের ‘সেবা’ করতে আসা নায়ক নায়িকারা, ভোট শেষ হতেই ‘উধাও’

মমতা আরও বলেন; “আগেরবারই দেখেছিলাম, একজন পুলিশের করোনা হওয়া মানে; হাজার জন সংক্রমিত হওয়া। ওরা টিম হিসেবে কাজ করেন। তাই একজনের হলে; সবার হতে পারে”। এদিন নির্বাচন কমিশনের উদ্দেশ্যেও মমতা বলেন; “নির্বাচন ঘোষণার সময় ভাল করে ভাবা উচিত ছিল; নির্বাচন কমিশনের; কেন্দ্রীয় সরকারেরও ভাবা উচিত ছিল। আমরা চেষ্টা করব; ঝড় মোকাবিলা করার। ভয় পাবেন না, আতঙ্কিত হবেন না”। কেন্দ্রীয় বাহিনী করোনা ছড়াচ্ছে বলায়; মমতার তীব্র সমালোচনা করেন, বিজেপি নেতারা।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন