মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে হুমকি দিলেন বিজেপি সাংসদ পরভেশ সাহিব সিংহ

2452
মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে হুমকি দিলেন বিজেপি সাংসদ পরভেশ সাহিব সিংহ
মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে হুমকি দিলেন বিজেপি সাংসদ পরভেশ সাহিব সিংহ

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে হুমকি দিলেন; বিজেপি সাংসদ পরভেশ সাহিব সিংহ। বিজেপি সাংসদ পরভেশ সাহিব সিংহের অভিযোগ; বাংলায় নির্বাচনে জিতেই তৃণমূল গুন্ডারা আমাদের কর্মীদের খুন করছে। বিজেপি কর্মীদের; বাড়ি গাড়ি ভাঙচুর করা হচ্ছে। ঘরে আগুন লাগিয়ে দেওয়া হচ্ছে। সেইসঙ্গে তিনি হুমকি দেন; “খেয়াল রাখবেন, তৃণমূলের সাংসদ, মুখ্যমন্ত্রী, বিধায়কদের; কিন্তু দিল্লি আসতে হবে। আমি আপনাদের সতর্ক করছি। নির্বাচনে হার-জিত হতে পারে কিন্তু খুন নয়। এই ট্যুইটে বিজেপি সাংসদ; তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ট্যাগ করেছেন।

রাজ্যে ফল প্রকাশ হওয়ার পরই; চারিদিকে হিংসার আগুন ছড়িয়ে পড়েছে। আর এরই মধ্যে বিজেপি সাংসদ পরভেশ সাহিব সিংহ; তৃণমূল কংগ্রেসের নেতাদের বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ তুলেছেন। পরভেশ সাহিব সিংহ বলেছেন, “পশ্চিমবঙ্গে তৃণমূল জেতার পর দলের গুণ্ডারা; বিজেপি কর্মীদের উপর অত্যাচার করছে। শুধু তাই নয়, বিজেপির সাংসদ তৃণমূলকে হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছেন; “তৃণমূলের সাংসদ, মুখ্যমন্ত্রী আর বিধায়কর-দের কিন্তু দিল্লী আসতে হবে”। এটাকে প্রচ্ছন্ন হুমকি হিসাবেই দেখছে; বাংলার রাজনৈতিক মহল।

আরও পড়ুনঃ ভোটের ফলের পর হিংসা, তিন তৃণমূল কর্মী খুন

পশ্চিম দিল্লী থেকে বিজেপি সাংসদ হওয়া; পরভেশ সাহিব সিংহ বার্মা টুইট করে তৃণমূলকে একহাত নিয়েছেন। তিনি লিখেছেন, “তৃণমূলের গুন্ডারা নির্বাচনে জেতার পর; আমাদের কর্মীদের প্রাণে মারছে; আমাদের কর্মীদের বাড়িঘর ভাঙচুর করছে। মনে রাখবেন তৃণমূলের সাংসদ; মুখ্যমন্ত্রী, বিধায়কদেরও দিল্লী আসতে হবে। আমার এই কথাকে; হুঁশিয়ারি হিসেবে নেবেন। নির্বাচনে হার-জিত থাকে; তবে এরকম খুনোখুনি না”।

আরও পড়ুনঃ মমতার শপথের দিনেই দেশজুড়ে ধর্নায় বসবে বিজেপি

এর আগে বিজেপি নেতা কৈলাশ বিজয়বর্গীয়; পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচনে, তৃণমূলের বিপুল জয়ের পর; তাঁদের দলের কর্মীদের ওপর হামলার অভিযোগ করেছেন। তাঁর অভিযোগ, ভোটে জেতার পর তৃণমূল কর্মীরা; বিজেপি কর্মীদের ওপর হামলা চালাচ্ছে। বাংলা বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষের অভিযোগ; ভোটের ফল প্রকাশের পর তাঁদের ছয় কর্মী খুন হয়েছেন। তবে, পরভেশ সাহিব সিংহর টুইট; আরও বিতর্ক উস্কে দিল।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন