প্রার্থীর করোনা, শুভেন্দুর ইঙ্গিত মত মুরারই আসনে কি পরিবর্তন করবে তৃণমূল

1304
প্রার্থীর করোনা, শুভেন্দুর ইঙ্গিত মত মুরারই আসনে কি পরিবর্তন করবে তৃণমূল
প্রার্থীর করোনা, শুভেন্দুর ইঙ্গিত মত মুরারই আসনে কি পরিবর্তন করবে তৃণমূল

প্রার্থীর করোনা, শুভেন্দুর ইঙ্গিত মত মুরারই আসনে কি; প্রার্থী পরিবর্তন করবে তৃণমূল? আর সেটা হবেন স্বয়ং মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়? মমতা নিজে ও তৃণমূল নেতারা বারবার বলছেন; মমতা নন্দীগ্রামেই জিতবেন; অন্য কোন কেন্দ্রে তিনি দাঁড়াচ্ছেন না। কিন্তু জল্পনা থামছে না। তৃণমূল প্রার্থীর করোনা হওয়ায়; সেই জল্পনা আরও উসকে দিয়েছে। বীরভূমের মুরারই বিধানসভায়; তৃণমূলের প্রার্থী বদলের সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। ঘোষিত প্রার্থী আব্দুর রহমান; করোনা আক্রান্ত হয়ে দিন দশেক ধরে কলকাতায় চিকিৎসাধীন। তিনি অক্সিজেন সাপোর্টে আছেন। তার উপর আছে হাই সুগার। তাই তিনি আপাতত; ভোটের প্রচারে নেই।

সুস্থ হয়ে ফিরেও তিনি প্রচারে; কতটা বেরতে পারবেন? তাই নিয়ে দলের অন্দরেই প্রশ্ন উঠছে। এরই মধ্যে আগামী ৫ এপ্রিল অর্থাৎ সোমবার; বীরভূম জেলার তৃণমূল প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার দিন ধার্য হয়েছে। এই অবস্থায় এই কেন্দ্রে; তৃণমূলের প্রার্থী বদলের সম্ভবনা প্রবল। নতুন প্রার্থী কে হচ্ছেন, তা জানা না গেলেও; চমক থাকছে বলে জানিয়েছে তৃণমূল নেতৃত্ব। তাহলে কি মমতাই প্রার্থী? প্রশ্ন বিজেপির।

আরও পড়ুনঃ “ঘরে সবার মা বোন আছে, ভোটটা ভেবে দিবি”, মুখ খুললেন কৌশানী

প্রার্থী ঘোষণার পরেই, বীরভূম জেলার ১১টি বিধানসভায়; জোরদার প্রচারে নেমে পড়েছেন তৃণমূল প্রার্থীরা। মুরারইয়ের প্রার্থী আব্দুর রহমানও; কর্মী বৈঠক থেকে বাড়ি বাড়ি প্রচারে নেমেছিলেন। কিন্তু হঠাৎই তিনি করোনা আক্রান্ত হন। দিন দশেকেরও বেশি তিনি; চিকিৎসার জন্য কলকাতায় রয়েছেন।

ফলে প্রার্থী ছাড়া প্রচারে গিয়ে; প্রশ্নের মুখে পড়তে হচ্ছে দলীয় নেতা-কর্মীদের। অথচ তাঁদের সামনেই গ্রামে গ্রামে ঘুরে; প্রচার চালাচ্ছেন বিজেপি প্রার্থী দেবাশিস রায়। তৃণমূল সূত্রের খবর; এখনও অক্সিজেন সাপোর্টে আছেন রহমান সাহেব। করোনা মুক্ত হলেও; কিছুদিন তাঁকে নিয়মে থাকতে হবে। তাই দুর্বল শরীরে প্রার্থী কতটা প্রচারে বের হতে পারবেন; তা নিয়েও দলের অন্দরেই চর্চা শুরু হয়েছে।

এই অবস্থায় ওই কেন্দ্রে; প্রার্থী বদলের পথে হাঁটছে তৃণমূল। জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল বলেন; “মুরারই আসনের প্রার্থীর করোনা হয়েছে; প্রচারে বেরনো সম্ভব নয়। পিকে ও অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের অফিস বিষয়টা দেখছে”। এখানেই প্রশ্ন শুভেন্দু অধিকারীর। তাহলে কি এই কেন্দ্রেও; মমতা নিজেই প্রার্থী? তৃণমূল উড়িয়ে দিলেও; এই প্রশ্ন পিছু ছাড়ছে না তাদের।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন