নির্বাচন কমিশন ও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়-কে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে, সংখ্যালঘু এলাকায় বিজয় মিছিল

618
নির্বাচন কমিশন ও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়-কে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে, সংখ্যালঘু এলাকায় বিজয় মিছিল
নির্বাচন কমিশন ও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়-কে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে, সংখ্যালঘু এলাকায় বিজয় মিছিল

মালদা, মুর্শিদাবাদ, উত্তর দিনাজপুর হোক বা বর্ধমানের আউশগ্রাম; নির্বাচন কমিশন ও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়-কে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে; সংখ্যালঘু এলাকায় তৃণমূলের বিজয় মিছিল অব্যহত। তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়ে দিয়েছিলেন; করোনার কারণে এবার কোন বিজয় মিছিল হবে না। নির্বাচন কমিশনের কড়া নির্দেশ ছিল; করোনার জন্য কোন দল বিজয় মিছিল করতে পারবে না। কিন্তু সব নির্দেশনাকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে; বিজয় মিছিল মালদহের হরিশচন্দ্রপুরে; মুর্শিদাবাদে; উত্তর দিনাজপুরে; বর্ধমানের আউশগ্রামে। করোনা সংক্রমণ বাড়লে, তৃণমূল দায়ী হবে; কটাক্ষ বিজেপির।

অষ্টম পর্বের বাংলা ভোটের শেষ লগ্নে এসে; করোনা বিধি নিয়ে কঠোর হয়েছিল নির্বাচন কমিশন। পথে ঘাটে ভিড় ঠেকাতে; দোকান-বাজারে বিধিনিষেধ আরোপ করেছে; রাজ্য প্রশাসনও। কিন্তু করোনা বিধি উড়িয়ে দিল; ভোটের ফল! জয়ের খবর মিলতেই সোম ও মঙ্গল রাজ্যের নানা প্রান্তে দলে দলে পথে নামেন; তৃণমূল সমর্থকেরা। বর্ধমান, মুর্শিদাবাদ ও উত্তর দিনাজপুরের ছবি সামনে এসেছে। আর বেশিরভাগ-টাই সংখ্যালঘু এলাকায়। তবে যোগ দিয়েছেন; সব ধর্মের তৃণমূল কর্মী সমর্থকরাই।

আরও পড়ুনঃ মমতার শপথের দিনেই দেশজুড়ে ধর্নায় বসবে বিজেপি

ব্যতিক্রম নয় মালদাও। জয়ের উৎসব পালন করতে, এদিন রাস্তায় মিছিলে নামে; মালদহের হরিশ্চন্দ্রপুরে। তাদের বেশিরভাগের মুখে; মাস্ক দেখা যায় নি। বরং উল্লাসে আবির খেলতে দেখা গেল; তৃণমূলের কর্মী, সমর্থকদের। কটাক্ষ করতে ছাড়েনি বিজেপি। করোনা পরিস্থিতিকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে; প্রায় পনেরো হাজার মানুষ নিয়ে; এদিন বিজয় মিছিল হল মালদায়।

আরও পড়ুনঃ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে হুমকি দিলেন বিজেপি সাংসদ পরভেশ সাহিব সিংহ

এমন আচরণ কখনই কাম্য নয়; বলে সাফ জানাচ্ছে সচেতন সাধারণ মানুষেরা। এই করোনা পরিস্থিতিতে এরকম জন সমাগম; কোনো স্বাস্থ্যবিধি ছাড়াই হাজার হাজার মানুষের জমায়েত দেখে; স্বাভাবিক ভাবেই আশঙ্কায় ভুগছেন সচেতন নাগরিকদের একাংশ। মালদা জেলা বিজেপি সম্পাদক কিষান কেডিয়া জানান; “আজকে যেভাবে হরিশ্চন্দ্রপুরে হাজার হাজার মানুষকে নিয়ে; বিজয় মিছিল করা হল; তার জন্য করোনা বৃদ্ধি হবে”।

তৃণমূল কংগ্রেস অঞ্চল চেয়ারম্যান সঞ্জীব গুপ্তা বলেন; “মানুষের উৎসাহ, আনন্দের বহিঃপ্রকাশ হচ্ছে। আমরা চেষ্টা করেছিলাম; যাতে সমস্ত স্বাস্থ্য বিধি মেনে মিছিল করা যায়; কিন্তু মানুষ আজ এতো খুশি, এতো আনন্দিত যে তাদের থামাতে পারিনি”।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন