মমতার মিছিল আর বিজেপির নবান্ন অভিযানে উৎসবের আগেই করোনায় ধুঁকছে রাজ্য, কোপ পড়তে পারে দুর্গা পুজোয়

650
মমতার মিছিল আর বিজেপির নবান্ন অভিযানে উৎসবের আগেই করোনায় ধুঁকছে রাজ্য, কোপ পড়তে পারে দুর্গা পুজোয়
মমতার মিছিল আর বিজেপির নবান্ন অভিযানে উৎসবের আগেই করোনায় ধুঁকছে রাজ্য, কোপ পড়তে পারে দুর্গা পুজোয়

মানব গুহ, কলকাতাঃ “মমতার মিছিল আর বিজেপির নবান্ন অভিযানে; উৎসব শুরুর আগেই করোনায় ধুঁকছে রাজ্য। কোপ পড়তে পারে দুর্গা পুজোয়”। কলকাতা হাইকোর্টে এবছরের দুর্গা পুজো বন্ধ করার আবেদন নিয়ে, জনস্বার্থ মামলা দায়ের হবার পরেই; সোশ্যাল মিডিয়ায় মানুষের এই ধরণের মন্তব্য দেখা গিয়েছে। রাজনৈতিক নেতা নেত্রীদের আচরণে আশঙ্কায়; করোনার বিরুদ্ধে সামনে থেকে লড়তে থাকা; চিকিৎসক ও পুলিশ প্রশাসনের কর্তাব্যক্তিরাও। ইতিমধ্যেই ডাক্তারদের সংগঠন থেকে; মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে আশঙ্কা প্রকাশ করে, সাবধান করা হয়েছে। এরপরে, তৃতীয়া থেকে রাস্তায় নেমে, ঠাকুর দেখার মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণায়; মাথায় হাত মানুষের। করোনা পরিস্থিতি সামলে রাখা যাবে তো? উঠে গেছে প্রশ্ন।

কেরালার ওনামের উদাহরণ দিয়ে; ইতিমধ্যেই রাজ্যকে উৎসব নিয়ে সাবধান করেছে কেন্দ্র। এরপর আবার, কলকাতা হাইকোর্টে, পুজো বন্ধ করার আর্জি জানিয়ে; জনস্বার্থ মামলা করেছেন অজয় কুমার দে নামে এক ব্যাক্তি। সেই মামলার শুনানি শুক্রবার। এদিকে পুজো বন্ধের জন্য মামলা হওয়ায়; বেজায় ক্ষুব্ধ পুজো কর্তারা। কলকাতার পুজো কর্তাদের মতে; হাজার হাজার মানুষ নিয়ে; রাজনৈতিক মিছিল, অভিযান করলে করোনা হয় না; যত দোষ শুধু দুর্গা পুজোর বেলায়। তাঁরা পুজোর বাজারে ভিড়ের উদাহরণও দিয়েছেন; সেখানে কোন বাধা নেই; যত বাধা শুরু পুজোর ক্ষেত্রেই।

আরও পড়ুনঃ কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা ইডির নামে তোলাবাজি মামলা, অফিসে তলব করে ৩ সাংবাদিককে জেরা করছে বিধাননগর ডিডি

এদিকে, রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের হিসাব বলছে; অবস্থা মোটেও ভালো নয়। দৈনিক করোনা সংক্রমণের; সর্বোচ্চ ধাপ ছুঁয়ে ফেলল রাজ্য। সেই সঙ্গে মৃতের সংখ্যাতেও; রেকর্ড হল বুধবার। কপালে দুশ্চিন্তার ভাঁজ ফেলে; সামান্য বাড়ল সংক্রমণের হারও। একই সঙ্গে রাজ্যবাসীকে উদ্বেগে রেখে; এ দিন কিছুটা কমল সুস্থতার হার। রাজ্যে রোজই একটু একটু করে বাড়ছে; করোনা সংক্রমণ।

কিন্তু শেষ কয়েকটা দিন, তার আকার; বেশ খানিকটা অস্বস্তি বা়ড়িয়ে দিল। মঙ্গলবার দৈনিক সংক্রমণের সংখ্যা ছিল; ৩ হাজার ৬৩১ জন। সেই অঙ্ক ছাপিয়ে গেল বুধবার। স্বাস্থ্য দফতর প্রকাশিত এই দিনের বুলেটিন অনুযায়ী; গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন; ৩ হাজার ৬৭৭ জন। যা এখনও পর্যন্ত রেকর্ড। রাজ্যে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা; এখন ৩ লক্ষ ৫ হাজার ৬৯৭ জন। দুই ২৪ পরগণা ও কলকাতায়; হঠাৎ করে এই বৃদ্ধির পিছনে; রাজনৈতিক নেতা-নেত্রীদের দায়ী করেছেন মানুষ।

আরও পড়ুনঃ নিত্যযাত্রী হকারদের দাবিতে সিলমোহর, লোকাল ট্রেন চালু করতে রাজ্যকে চিঠি কেন্দ্রের

দরজায় কড়া নাড়ছে উৎসবের মরসুম। একসপ্তাহ পরেই দুর্গা পুজো। তারপর একে একে; আসবে সব উৎসব। তার ঠিক কয়েকটা দিন আগেই, সংক্রমণের এমন বাড়বৃদ্ধি; স্বাস্থ্যকর্তাদের কপালে চিন্তার ভাঁজ ফেলে দিয়েছে। এখনই সংক্রমণ নতুন রেকর্ড তৈরি করলে; দুর্গাপুজোর পর তা কোথায় পৌঁছবে; সেই আশঙ্কাই দেখা দিয়েছে অনেকের মনে। আর এর জন্য সাধারণ মানুষ ও নামপ্রকাশে অনিচ্ছুক পুজো কর্তারা; মুখ্যমন্ত্রীর মিছিল ও বিজেপির নবান্ন অভিযানকেই দায়ী করেছেন।

তৃতীয়া থেকে মুখ্যমন্ত্রীর ঠাকুর দেখার আশ্বাস পাবার পরেই; গড়িয়াহাৎ ও নিউমার্কেটে ভিড় যেন কয়েকগুণ বেড়ে গেছে। তার আগে কয়েক হাজার মানুষ নিয়ে, দুই রাজনৈতিক দলের দুই আন্দোলন; বাড়িয়েছে করোনা সমস্যা; উদ্বেগে রেখেছে পুজো উদ্যক্তাদের। মহারাষ্ট্রে গণেশ পুজো ও উড়িষ্যায় রথের মত; পরিস্থিতি দেখে আদালতের নির্দেশে দুর্গা পুজো বন্ধ হয়ে গেলে; পুজোর বাজারের সঙ্গে, তৃণমূল ও বিজেপির দুই আন্দোলনই যে দায়ী থাকবে; তা নিয়ে সন্দেহ নেই মানুষের।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন