করোনা বিপদের মাঝে, বাংলা থেকে নার্স তুলে নিচ্ছে কয়েকটি রাজ্য

2645
করোনা বিপদের মাঝে, বাংলা থেকে নার্স তুলে নিচ্ছে কয়েকটি রাজ্য(প্রতীকী ছবি)
করোনা বিপদের মাঝে, বাংলা থেকে নার্স তুলে নিচ্ছে কয়েকটি রাজ্য(প্রতীকী ছবি)

করোনা বিপদের মাঝে; বাংলা থেকে শয়ে শয়ে নার্স তুলে নিচ্ছে; ভারতের কয়েকটি রাজ্য। করোনা আবহে নতুন সঙ্কটে রাজ্যের স্বাস্থ্য পরিষেবা। মণিপুর, মিজোরাম, মেঘালয়, অরুণাচল প্রদেশ, ত্রিপুরা, ওড়িশা এবং ঝাড়খন্ড; নিজেদের রাজ্যের বাসিন্দাদের ফিরিয়ে নিচ্ছে; যারা কলকাতার বিভিন্ন বেসরকারি হাসপাতালে নার্সের কাজ করেন। আর এর জেরেই বিপদে পরে গেছে; কলকাতার বেসরকারি হাসপাতাল গুলি। বেশ কিছু হাসপাতাল; করোনা হাসপাতাল হিসাবে ঘোষণা হয়েছে। বেশ কিছু হাসপাতালে নার্সদের করোনা হওয়ায়; আইসোলেশনে অনেক নার্স। এই সময়ে ভিন রাজ্যের নার্সরা; বাংলা ছাড়ায়; করোনা বিপদের মাঝে আরও বিপদে বেসরকারি হাসপাতালগুলি।

চোর পালালে বুদ্ধি বাড়ে, নার্স পালালে ঘুম ভাঙে স্বাস্থ্য ভবনের

করোনা বিপদের মাঝে, বাংলা থেকে নার্স তুলে নিচ্ছে কয়েকটি রাজ্য(প্রতীকী ছবি)
করোনা বিপদের মাঝে, বাংলা থেকে নার্স তুলে নিচ্ছে কয়েকটি রাজ্য (প্রতীকী ছবি)

বাংলায় কর্মরত ১৮৫ নার্সকে ফিরিয়ে নিল মণিপুর। চাকরি ছেড়ে নিজের রাজ্যের পাঠানো বাসে করে; এখন ইম্ফলের পথে ১৮৫ জন নার্স। সমস্যায় পরে গেছে; কলকাতার বহু বেসরকারি হাসপাতাল। এখানেই শেষ নয়। ভিন রাজ্যের নার্সদের; এ রাজ্য ছেড়ে চলে যাওয়ার স্রোত অব্যাহত। ফের রাজ্য ছাড়লেন ১৬৯ জন নার্স। যারা কলকাতার বিভিন্ন বেসরকারি হাসপাতালে কর্মরত ছিলেন; তারা রাজ্য ছেড়ে চলে গেলেন।

করোনা বিপদে, বাংলায় স্বাস্থ্য পরিষেবায় নয়া সঙ্কট

চলে যাওয়ার নার্সদের ১৫০ জন; ত্রিপুরা মনিপুর এবং মিজোরামের বাসিন্দা। বাকিদের বাড়ি ওড়িশা এবং ঝাড়খন্ড। উত্তর-পূর্ব ভারতের একাধিক রাজ্য যেমন মনিপুর, মিজোরাম, মেঘালয়, অরুণাচল প্রদেশের বাসিন্দা; এ রাজ্যের শয়ে শয়ে কর্মরত নার্সরা কলকাতার নামজাদা হাসপাতালের চিকিৎসা ব্যবস্থার সঙ্গে যুক্ত।

মমতাকে কিম জং উন এর সঙ্গে তুলনা করলেন, কেন্দ্রীয় মন্ত্রী গিরিরাজ সিং

শনিবার বেলভিউ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের কাছে; একসঙ্গে উড়িষ্যার ২৬ জন নার্স ইস্তফা পত্র জমা দিয়েছেন। এ ভাবে বিভিন্ন হাসপাতালে নার্সদের কলকাতা ছাড়ার; হিড়িক পড়ে গেছে। কলকাতার বেসরকারি হাসপাতালগুলির চিকিৎসা পরিকাঠামোর সঙ্গে; নার্স হিসেবে যাঁরা যুক্ত; তাঁরা আর বর্তমানে কলকাতায় থাকতে রাজি নন। কিন্তু কেন কলকাতা ছাড়ছেন ভিন রাজ্যের নার্সরা ? শহরের বেসরকারি হাসপাতালগুলি; কী ভাবে সামাল দেবে এই সংকটময় পরিস্থিতি?

করোনা বিপদে, বাংলায় স্বাস্থ্য পরিষেবায় নয়া সঙ্কট (প্রতীকী ছবি)
করোনা বিপদে, বাংলায় স্বাস্থ্য পরিষেবায় নয়া সঙ্কট (প্রতীকী ছবি)

কিন্তু কেন কলকাতা ছাড়ছেন ভিন রাজ্যের নার্সরা ?
১। রাজ্য সরকারি চাকরি, যা সবার একমাত্র লক্ষ্য
২। নিজের রাজ্যে বেতন বেশি দেবার ঘোষণা রাজ্য সরকারের।
৩। ঘরে থেকে নার্সের কাজ করতে পারবেন।
৪। পরিবারের মানুষদের সময় দিতে পারবেন।
৫। বিপদের সময় সাধারণ মানুষের পাশাপাশি, নিজের পরিবারকেও দেখতে পারবেন।

পিছু হটলেন মুখ্যমন্ত্রী, অশোক ভট্টাচার্যর যুক্তি মেনে নিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

এরপরেই, রাজ্য ছেড়ে নার্সদের একের পর এক চলে যাওয়ার ঘটনায়; নড়েচড়ে বসল স্বাস্থ্য ভবন। উদ্বিগ্ন স্বাস্থ্য ভবন শনিবার রাতের মধ্যেই; একটি বিশেষ চিঠি পাঠিয়েছে সমস্ত বেসরকারি হাসপাতালকে। নার্স সংক্রান্ত একাধিক তথ্য জানতে চাওয়া হয়েছে; সেই চিঠিতে। সংশ্লিষ্ট সেই হাসপাতালে মোট কতজন নার্স কাজ করেন; তাঁদের মধ্যে কতজনের বাড়ি পশ্চিমবঙ্গে; কতজন অন্য রাজ্যের; কোন কোন রাজ্যের কত বাসিন্দা এখানে নার্সিং কাজ করেন; ইত্যাদি জানতে চাওয়া হয়েছে চিঠিতে। নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, আজ অর্থাৎ রবিবার দুপুর ১২ টার মধ্যে; যাবতীয় তথ্য স্বাস্থ্য ভবনে পাঠাতে হবে; সংশ্লিষ্ট বেসরকারি হাসপাতালগুলিকে।

মমতা বলছেন, বাসভাড়া ঠিক করবে বাসমালিক; শুভেন্দু বলছেন, বাস ভাড়া বাড়ছে না

রাজ্য স্বাস্থ্য ভবনের এক আধিকারিক বলেন; “গোটা বিষয়টি নিয়ে আমরা উদ্বিগ্ন। এই সঙ্কটময় মুহূর্তে হঠাৎ করে; যাঁরা এখানে চাকরি করতেন, তাঁরা নিজেদের রাজ্যে বাড়তি সুবিধা; এবং সংশ্লিষ্ট রাজ্য সরকার ডেকে পাঠানোয় তারা সে রাজ্যে ফিরে যাচ্ছেন। এটা শহর এবং সংশ্লিষ্ট হাসপাতলে পক্ষে; সঙ্কটজনক পরিস্থিতি তৈরি করছে। তাই আমরা কিছু পদক্ষেপ নেওয়ার চিন্তা ভাবনা করছি”।

করোনার দাপটে কলকাতাসহ রাজ্যের একাধিক হাসপাতাল; আংশিক বা পুরোপুরি বন্ধ করে দিতেও হয়েছে। এরই মাঝে নার্স নিয়ে; বেসরকারি হাসপাতালগুলিতে নতুন ‘সঙ্কট’ দূর করতে; কি কি ব্যবস্থা নেয় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষরা ? রাজ্য স্বাস্থ্য দপ্তরও; কি সিদ্ধান্ত নেয়; সেটাও এখন দেখার।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন