ডাক্তার নার্সের পর, করোনা আক্রান্ত বাংলার একের পর এক পুলিশ

1190
ডাক্তার নার্সের পর, করোনা আক্রান্ত বাংলার একের পর এক পুলিশ
ডাক্তার নার্সের পর, করোনা আক্রান্ত বাংলার একের পর এক পুলিশ

ডাক্তার নার্সের পর; করোনা আক্রান্ত বাংলার একের পর এক পুলিশ। করোনা মোকাবিলায় সারা দেশজুড়ে জারি হওয়া লকডাউন পরিস্থিতি কার্যকর করতে; যাঁরা প্রথম সারিতে দাঁড়িয়ে লড়াই করে চলেছেন সেই পুলিশকর্মীদের শরীরে; এবার বসল করোনার থাবা। শুধু কলকাতা ও হাওড়া নিয়েই; এখন পর্যন্ত ৩২ জন পুলিশ অফিসার ও কর্মী করোনা আক্রান্ত। শুধু তাই নয়, এখনও পর্যন্ত যতজন পুলিশ অফিসার ও কর্মী করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন; তাঁদের সংস্পর্শে যতজন এসেছিলেন; এমনকি তাঁদের পরিবারের সকলকেই হোম কোয়ারানটিনে পাঠানো হয়েছে।

ADIS এর মত কোনদিনই বেরোবে না করোনা ভাইরাসের টিকা, জানাল WHO

শহরের ইস্টার্ন সাবার্বন ডিভিশনের এক মহিলা সাব ইন্সপেক্টর; সেন্ট্রাল ডিভিশনের এক এসআই; সাউথ ডিভিশনের এক এসআই ও এসবি-র এক পুলিশকর্মীর; নতুন করে করোনা ধরা পড়েছে। এর আগে আরও ৮ পুলিশকর্মীর; করোনা ধরা পড়েছিল। ফলে শুধু কলকাতাতেই; সংখ্যাটা বেড়ে হয়েছে ১২। করোনা আক্রান্ত কলকাতার পার্ক স্ট্রিট থানার; স্পেশাল ব্রাঞ্চের এক কর্মী।

করোনা প্রান নিল কলকাতা জাদুঘরে কর্মরত সাব ইনস্পেক্টরের

করোনার সংক্রমণের জেরে এর আগে; মঙ্গলবারই পুরো জোড়াবাগান ট্রাফিক গার্ডকে কনটেইনমেন্ট জোন হিসেবে; চিহ্নিত করেছে লালবাজার। করোনায় আক্রান্ত হন; জোড়াবাগান ট্রাফিক গার্ডের সার্জেন্ট। তারপরই ওই ট্রাফিক গার্ডের; আরও কয়েকজনেরও জ্বর দেখা দেয়। এরপরই কোনও ঝুঁকি না নিয়ে; জোড়াবাগান ট্রাফিক গার্ডকে কনটেইনমেন্ট জোন হিসেবে চিহ্নিত করে লালবাজার।

রবীন্দ্র সঙ্গীতের সঙ্গে চালাতে হবে মুখ্যমন্ত্রীর লেখা গান, নির্দেশ পুলিশকে

এর আগে বন্দর এলাকার একটি থানার ওসি; আক্রান্ত হয়েছিলেন কোভিড ১৯ এ। তবে, তিনি এখন সুস্থ হয়ে বাড়িতে। জোড়াবাগান থানার এক সাব ইনস্পেক্টরও; কোভিডে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন। এর আগে কলকাতা উত্তর ডিভিশনের এক পুলিশ কর্মীও; আক্রান্ত হয়েছিলেন। তিনিও রোগমুক্ত। তবে একের পর কলকাতা পুলিশের; অফিসার কর্মী করোনা আক্রান্ত হচ্ছেন।

হাওড়াতেও পরিস্থিতি বেশ আশঙ্কাজনক। এখনও মোট ২০ জন পুলিশকর্মীর; করোনা ধরা পড়েছে সেখানে। হাওড়াকে গোড়া থেকেই স্পর্শকাতর বলে; দাবি করে এসেছেন রাজ্যের স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা। আর সেই হাওড়ায় এখনও পর্যন্ত; করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ২০ জন পুলিশকর্মী। আর এঁদের সংস্পর্শে যাঁরা এসেছেন; সেইসব কর্মী অফিসার ও তাঁদের পরিবারের সকলকে; হোম কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন