লজ্জার লড়াই, কাঁদছে বাংলার মানুষ, ঝগড়ায় ব্যস্ত রাজ্যের দুই প্রধান

1178
কাঁদছে বাংলার মানুষ, ঝগড়ায় ব্যস্ত রাজ্যের দুই প্রধান
কাঁদছে বাংলার মানুষ, ঝগড়ায় ব্যস্ত রাজ্যের দুই প্রধান

লজ্জার বাংলা; করোনা বিপদেও রাজ্যপাল মুখ্যমন্ত্রীর ক্ষমতার লড়াই। সত্যি গোটা রাজ্যের মানুষ হাসছে; বাংলার এই লজ্জার লড়াই দেখে। করোনা বিপদে কাঁদছে বাংলার মানুষ; এদিকে ঝগড়ায় ব্যস্ত রাজ্যের দুই প্রধান। লজ্জার লড়াই; করোনা বিপদেও রাজ্যপাল মুখ্যমন্ত্রীর ক্ষমতার বড়াই। না, বুদ্ধিজীবীরা ভয়ে এই নিয়ে কিছু বলবেন না। মহামারী আইনের ভয়ে; সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশ্যে বলছেন না সাধারণ মানুষ। তবে এই বিপদে এইভাবে প্রকাশ্যে রাজ্যপাল মুখ্যমন্ত্রী ঝগড়া দেখে; লজ্জায় হাসছে বাংলার মানুষ।

অপেক্ষায় বাংলা, মমতার বিরুদ্ধে কি ফাঁস করতে চলেছেন রাজ্যপাল

অপেক্ষায় বাংলা, মমতার বিরুদ্ধে কি ফাঁস করতে চলেছেন রাজ্যপাল? এটাই এখন সবচেয়ে বড় প্রশ্ন। আর কিছুক্ষণ পরেই সাংবাদিকদের সামনে; মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সব সত্য তুলে ধরতে চলেছেন; রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়। এমনটা জানিয়েছেন খোদ রাজ্যপাল নিজেই। রাজ্যের কি মুখোশ খুলতে চলেছেন রাজ্যপাল? এটাই এখন প্রশ্ন গোটা রাজ্যের মানুষের। সেই দিকেই তাকিয়ে গোটা দেশের মানুষও। কি বলবেন রাজ্যপাল? কি প্রমাণ দেখাবেন রাজ্যপাল? করোনা আবহে সেই দিকেই নজর সবার।

আপনি সম্পূর্ণ ব্যর্থ, মুখ্যমন্ত্রীকে পাল্টা দিলেন রাজ্যপাল

চরম সমস্যার মধ্যেও রাজ্যের প্রশাসনিক প্রধান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়; ও রাজ্যের সাংবিধানিক প্রধান রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড় এর এই লড়াইকে; অনেকেই বলছেন বাংলা সিরিয়াল। করোনা বিপদে চরম সমস্যায় বাংলার মানুষ। আর তার মধ্যেই লজ্জার লড়াই; রাজ্যের দুই মাথার; রাজ্যের দুই প্রধানের। লড়াই চলছে; থামার লক্ষণ নেই।

অসংযত কথা বলছেন মমতা, মুখ্যমন্ত্রীকে পাল্টা দিলেন রাজ্যপাল

প্রথমে সোশ্যাল মিডিয়ায়; তারপর চিঠি; তারপর এবার সাংবাদিক সম্মেলন। লজ্জার লড়াই চলছে, চলবে। করোনা বিপদে সবরকম ভাবে অসুবিধায় রাজ্যের মানুষ। খাবারের অভাব গ্রামাঞ্চলে; রেশন পরিষেবা বিপর্যস্ত; কাজ নেই অনেকেরই; লক ডাউনে বেকার বাড়িতে বসে; কয়েক কোটি বেকার যুবক। আর সেই সময়ে এইসব বাদ দিয়ে; লজ্জার লড়াইয়ে ব্যস্ত; রাজ্যের প্রশাসনিক প্রধান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়; ও রাজ্যের সাংবিধানিক প্রধান রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়।

আমি নির্বাচিত, আপনি মনোনীত, রাজ্যপালকে কড়া চিঠি মমতার

বাংলার এই লজ্জার লড়াই দেখে; হাসছে গোটা দেশ। অবশ্য তাতে ভ্রূক্ষেপ নেই দুজনের। একদিকে কাঁদছে বাংলার মানুষ; অন্যদিকে ‘ফালতু’ ঝগড়ায় ব্যস্ত রাজ্যের দুই প্রধান। লজ্জার লড়াই কতদিন চলে; সেটাই এখন দেখার। আদৌ এদের দুজনের হুঁশ ফিরবে? আশা করছেন না বাংলার সাধারণ মানুষ।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন