ভোট পরবর্তী হিং’সা, তৃণমূলের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নিতে অধ্যাপকদের চিঠি রাষ্ট্রপতিকে

2144
ভোট পরবর্তী হিং'সা, তৃণমূলের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নিতে অধ্যাপকদের চিঠি রাষ্ট্রপতিকে
ভোট পরবর্তী হিং'সা, তৃণমূলের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নিতে অধ্যাপকদের চিঠি রাষ্ট্রপতিকে

বাংলায় ভোট পরবর্তী হিং’সা; তৃণমূলের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে ১১৪ জন অধ্যাপকের চিঠি রাষ্ট্রপতিকে। রাজ্যে ভোট পরবর্তী হিং’সা নিয়ে; তফসিলি জাতি উপজাতি বর্গের; ১১৪ জন অধ্যাপক চিঠি লিখেছেন; রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোভিন্দকে। চিঠিতে তাঁরা তৃণমূলের বিরুদ্ধে; কঠোর পদক্ষেপ নেওয়ার আবেদন জানিয়েছেন। টাইমস অফ ইন্ডিয়ার সাংবাদিক রোহন দুয়া; সেই চিঠি শেয়ার করেছেন। অধ্যাপকদের চিঠি অনুযায়ী, রাজ্যে ভোট পরবর্তী হিং’সায়; ১১হাজার মানুষ ঘরছাড়া হয়েছেন; ৪০হাজার মানুষ ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছেন। এদের মধ্যে বেশীরভাগই; তফসিলি জাতি-উপজাতি ভুক্ত। এছাড়াও ভোট পরবর্তী হিং’সার জন্য; ১হাজার ৬২৭টি মামলা দায়ের হয়েছে; সেটারও উল্লেখ রয়েছে চিঠিতে।

চিঠিতে লেখা হয়েছে, ভোটের পরের হিং’সায়; ৫হাজারের বেশি বাড়ি পুড়ে গেছে। ২৬ জন নি’হতও হয়েছেন। আসাম, ঝাড়খন্ড এবং ওড়িশায় আশ্রয় নিতে হয়েছিল; ২০০০-এর বেশি মানুষকে। চিঠিতে বলা হয়েছে, তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মীরা রাজ্য পুলিশের সহায়তায়; তপশিলী জাতি উপজাতিদের উপর শুধু নির্যাতনই করেনি; মানুষ হ’ত্যা করেছে; নারীকে ধ-র্ষ’ণ করেছে এবং চাষের জমি দখল করেছে। তাই এসসি-এসটি সম্প্রদায়কে বাঁচাতে; রাষ্ট্রপতিকে এই বিষয়ে হস্তক্ষেপ করতে অনুরোধ করা হয়েছে। আর এই কারণেই অধ্যাপকরা; তফসিলি সম্প্রদায়ের মানুষকে বাঁচাতে; কেন্দ্রের হস্তক্ষেপ চায়।

আরও পড়ুনঃ মুকুল জায়াকে দেখতে ও ইয়াসে ক্ষতিগ্রস্তে অভিষেক, মমতা-পিকে নতুন পরিকল্পনা

পাশাপাশি চিঠিতে এও বলা হয়েছে যে, এসসি-এসটি সম্প্রদায়ের মানুষদের; ঘরবাড়ি পুনর্গঠন ও পুনর্বাসনের জন্য; ক্ষতিপূরণ দেওয়া উচিত। পাশাপাশি ক্ষতিগ্রস্থদের চিকিৎসা এবং অন্যান্য সুযোগ সুবিধা ও সুরক্ষা দেওয়া উচিত। এই চিঠিটি সামাজিক উন্নয়ন কেন্দ্রের; বা সিএসডি-র ব্যানারে লেখা হয়েছে। দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের, আফ্রিকান স্টাডিজ বিভাগের প্রাক্তন প্রধান; অধ্যাপক সুরেশ কুমার এবং লাইব্রেরি সায়েন্সের সঙ্গে যুক্ত প্রফেসর কেপি সিংয়ের; প্রথম পাতায় সই রয়েছে।

আরও পড়ুনঃ বাংলার ভ্যাকসিন কেন্দ্রেও, বো’মা ব’ন্দুক নিয়ে হাজির ‘মানুষের সেবকরা’

এর আগেও দেশের ১৪৬ জন বিশিষ্ট ব্যাক্তি; রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দকে এই বিষয়ে একটি এসআইটি বা স্পেশাল ইনভেস্টিগেটিং টিম; গঠনের দাবিতে একটি চিঠি লিখেছিলেন। ওই ১৪৬ জনের মধ্যে প্রাক্তন আমলা; প্রাক্তন বিচারপতি; প্রাক্তন কূটনৈতিক-বিদ সহ সমাজের বিশিষ্ট ব্যক্তিদের স্বাক্ষর ছিল। এছাড়াও, রাজ্যের রাজনৈতিক হিং’সার পরিপ্রেক্ষিতে; দেখার জন্য ২০৯৩ জন মহিলা আইনজীবী; ভারতের প্রধান বিচারপতি এনভি রামান্না-কে চিঠিও দিয়েছেন।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন