বাংলা হবে চিনের উহান, মহারাষ্ট্র থেকে করোনা নিয়ে আসছে পরিযায়ী মানুষরা

2170
বাংলা হবে চিনের উহান, মহারাষ্ট্র থেকে করোনা নিয়ে আসছে পরিযায়ী মানুষরা
বাংলা হবে চিনের উহান, মহারাষ্ট্র থেকে করোনা নিয়ে আসছে পরিযায়ী মানুষরা

সমস্যা দুদিকেই। ভিন রাজ্য থেকে ফেরাতে হবে; পরিযায়ী শ্রমিক ও মানুষদের। আবার এমন এমন রাজ্য থেকে মানুষ আসছে বাংলায়; যেসব রাজ্য করোনা বিধ্বস্ত। যেমন মহারাষ্ট্র। ভারতের ৩৩% করোনা আক্রান্ত; এই রাজ্যে। আর সেখান থেকে করোনা নিয়ে আসছে; একের পর এক পরিযায়ী শ্রমিক ও মানুষ। এবার ফের ৫০ হাজার পরিযায়ী শ্রমিক ও মানুষ; ফিরছে মহারাষ্ট্র থেকে। জানা গেছে, এদের মধ্যে অনেকেই ফিরছে; মহারাষ্ট্রের করোনা আক্রান্ত এলাকা থেকে। অনেকেই ফিরছে; মুম্বাই ও ধারাভি বস্তি অঞ্চল থেকেও।

রাজ্য সরকার ব্যর্থ, সেনা পাঠাতে মোদীকে চিঠি দিলেন কংগ্রেসের অধীর চৌধুরী

মহারাষ্ট্রে হু হু করে বাড়ছে; করোনা সংক্রমণ। সবথেকে খারাপ অবস্থা রাজ্যের রাজধানী মুম্বইয়ের। এই পরিস্থিতিতে মঙ্গলবার একদিনেই মহারাষ্ট্র থেকে; পশ্চিমবঙ্গের উদ্দেশ্যে একসঙ্গে ৪১টি রওনা হবার কথা। প্রায় ৫০ হাজার মানুষ বাংলায় ফিরবেন এই ট্রেনে। এদিকে, মহারাষ্ট্রের কথা ভেবে, এখনই সেই ট্রেনগুলি রাজ্যে না পাঠানোর দাবি জানাল; পশ্চিমবঙ্গ সরকার। বিষয়টি দুই রাজ্যের মধ্যে কথা বলে; মীমাংসা করতে বলেছে রেল। শুধু বাংলা নয়; মহারাষ্ট্র থেকে করোনা নিয়ে গেছেন; বিহার, ঝাড়খণ্ড ও উত্তর প্রদেশের পরিযায়ী শ্রমিকরাও।

“ঝড়ের খবর জেনেও প্রস্তুতি ছিল না”, ফিরহাদ হাকিমকে একহাত নিলেন সাধন পাণ্ডে

ভিন রাজ্য থেকে বহু শ্রমিক বাংলায় ফিরছেন। এতে রাজ্যে কিছু সমস্যার সৃষ্টি হচ্ছে। তবে ভিন রাজ্য বা বিদেশ থেকে ফিরলে কোয়ারেন্টিনে থাকা বাধ্যতামূলক। মঙ্গলবার এমনটাই জানালেন; রাজ্যের স্বরাষ্ট্র সচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে এর মধ্যে সবচেয়ে চিন্তায় ফেলেছে মহারাষ্ট্র থেকে ফেরা মানুষরা। ভারতের বিভিন্ন রাজ্যের পাশাপাশি; মহারাষ্ট্র থেকে আসা মানুষদের নিয়ে চিন্তায়; মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরকার; এমনকি বাংলার সাধারণ মানুষরাও।

ভারতীয় সেনাকে কি ‘কাঠবেড়ালি’ বললেন ফিরহাদ হাকিম

মহারাষ্ট্র করোনা আক্রান্তের সংখ্যা; ইতিমধ্যেই ৫২ হাজার ছাড়িয়েছে। দেশের মোট আক্রান্তের এক তৃতীয়াংশের বেশিই; এই রাজ্যের। মৃতের সংখ্যা প্রায় ১৭০০। তার মধ্যে শুধু মুম্বইতেই; মৃতের সংখ্যা ১ হাজার ছাড়িয়েছে। এই পরিস্থিতির মধ্যেও; মহারাষ্ট্র থেকে বিভিন্ন রাজ্যে, পরিযায়ী শ্রমিকদের ফেরানোর প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। বিশেষত মুম্বই বা তার সংলগ্ন এলাকাগুলি থেকে যে পরিযায়ী শ্রমিকরা ফিরছেন; তাঁদের করোনা আক্রান্ত হওয়ার সংখ্যা প্রবল। মঙ্গলবারই মুম্বই সহ মহারাষ্ট্র থেকে; ৪১টি শ্রমিক স্পেশাল ট্রেন; এ রাজ্যের উদ্দেশ্যে ছাড়ার কথা। ওই শ্রমিকদের থেকেই আরও বহু মানুষের মধ্যে; সংক্রমণ ছড়ানোর আশঙ্কা রয়েছে কলকাতা সহ সব জেলাতেই।

ক্লাবে ক্লাবে দান খয়রাতি, সরকারের নেই গাছ কাটার যন্ত্র

যেমন মুর্শিদাবাদে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা; দিনদিন বেড়েই চলেছে। ইতিমধ্যেই জেলাতে ৫৯ জন; করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। যদিও সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১৩ জন। রবিবার মারা গিয়েছেন; নবগ্রামের একজন। ইতিমধ্যেই জেলাতে কয়েক হাজার; পরিযায়ী শ্রমিক এসেছেন। যে ৫৯ জন করানা আক্রান্ত হয়েছেন; তাঁদের মধ্যে ৪২ জনই পরিযায়ী শ্রমিক। এর জেরে, বিভিন্ন গ্রামে আতঙ্ক ছড়িয়েছে। সরকারিভাবে জানা গেছে, যে সমস্ত পরিযায়ী শ্রমিকরা মহারাষ্ট্র থেকে ফিরেছেন; তাঁরাই বিশেষ করে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন।

মহারাষ্ট্র থেকে যে সমস্ত পরিযায়ী শ্রমিকরা এসেছেন; তাঁদের বেশিরভাগই গ্রামের মধ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছেন। গ্রামবাসীদের দাবি, মহারাষ্ট্র থেকে যে সমস্ত পরিযায়ী শ্রমিকরা আসছেন; তাঁদের সরকারিভাবে কোয়ারেন্টাইন রাখা হোক। এবার আরও প্রায় ৫০ হাজার শ্রমিক ফিরছেন সেই মহারাষ্ট্র থেকেই; আশঙ্কায় বাংলার মানুষ। বাংলা কি চিনের উহান হয়ে উঠবে? উঠে গেছে প্রশ্ন।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন