গভীর রাতে স্কুল সার্ভিস কমিশনের সামনে থেকে, পুলিশ জো’র করে তুলে দিল আ’ন্দোলনকারী চাকরিপ্রার্থীদের

1530
গভীর রাতে স্কুল সার্ভিস কমিশনের সামনে থেকে, পুলিশ জোর করে তুলে দিল চাকরিপ্রার্থীদের
গভীর রাতে স্কুল সার্ভিস কমিশনের সামনে থেকে, পুলিশ জোর করে তুলে দিল চাকরিপ্রার্থীদের

গভীর রাতে, স্কুল সার্ভিস কমিশনের সামনে থেকে; পুলিশ জো’র করে তুলে দিল আ’ন্দোলনকারী চাকরিপ্রার্থীদের। বুধবার গভীর রাতে, আচার্য সদনের সামনে থেকে; আ’ন্দোলনকারীদের জো’র করে সরিয়ে দিল বিধাননগর পুলিশ। জো’র করে তুলে দেওয়া নিয়ে; পুলিশের সঙ্গে ধ’স্তাধ’স্তিতে জড়িয়ে পড়ে আন্দোলনকারীরা। আন্দোলনকারীদের অভিযোগ, “পুলিশ ব’লপ্রয়োগ করে; শান্তিপূর্ণ আন্দোলনকে তুলে দিয়েছে”। নিয়োগের দাবিতে, মঙ্গলবার থেকে স্কুল সার্ভিস কমিশনের কার্যালয়; সল্টলেকের আচার্য ভবনের সামনে অনির্দিষ্টকালের অবস্থানে বসেন; গোটা রাজ্যের কয়েকশ আপার প্রাইমারি চাকরিপ্রার্থীরা। গতকাল ১টা নাগাদ, বিধাননগর পুলিশ জো’র করে; আ’ন্দোলনকারীদের উঠে যেতে বাধ্য করে।

অভিযোগ, গত সাত বছরে বহু প্রতিশ্রুতি মিলেছে; শুধু মেলেনি চাকরি। দ্রুত নিয়োগের দাবি তুলে, মঙ্গলবার পথে নেমেছিলেন; আপার প্রাইমারি চাকরি প্রার্থীরা। সারাদিন আন্দোলনের পর ঠাণ্ডার মধ্যেই; রাতভর রাজপথে অবস্থান বি’ক্ষোভ করেন তাঁরা। বিধাননগরে স্কুল সার্ভিস কমিশনের প্রধান দফতর আচার্য সদনের সামনেই; সারা রাত চলে তাঁদের এই অবস্থান-বি’ক্ষোভ।

আরও পড়ুনঃ মুকুল রায়ের চেয়েও বেশি তৃণমূল নেতা, নিজের সঙ্গে নিয়ে যাবেন শুভেন্দু অধিকারী

নিজেদের অবস্থান স্পষ্ট করে, পশ্চিমবঙ্গ আপার প্রাইমারি চাকরিপ্রার্থী মঞ্চের চাকরিপ্রার্থীরা; সাফ জানিয়ে দিয়েছিলেন, দাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত; তাঁদের অবস্থান বিক্ষোভ চলবে। প্রয়োজন পড়লে তাঁরা; অ’নশনের পথে হাঁটতেও তৈরি। বুধবার করুণাময়ীতে স্কুল সার্ভিস কমিশনের দফতরের বাইরে; অবস্থানে বসেছিলেন কয়েকশো চাকরিপ্রার্থী।

আপার প্রাইমারি চাকরিপ্রার্থী মঞ্চ জানায়; “সাত বছর ধরে নিয়োগ নিয়ে; রাজ্য সরকারের টালবাহানা আর সহ্য করা হবে না। প্রতিশ্রুতি সত্ত্বেও প্রার্থীরা; নিয়োগপত্র হাতে পাননি। ফলে আর প্রতিশ্রুতি নয়। সমাধান চেয়েই আ’ন্দোলনে নেমেছি”। আ’ন্দোলনকারীদের অভিযোগ, ২০১৪ সালে আপার প্রাইমারি চাকরির পরীক্ষা দিয়েছিলেন তাঁরা; পাশ করার পর এতগুলি বছর কেটে গিয়েছে। ২০২০ শেষ হতে চললেও; তাঁরা নিয়োগপত্র হাতে পাননি।

বিধাননগর পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়; “শিক্ষামন্ত্রীর সঙ্গে আ’ন্দোলনকারীদের বৈঠক হয়েছে। আলোচনার পর আ’ন্দোলনকারীরা; অবস্থান তুলে নেবে বলে আগেই জানিয়েছিল”। যদিও আপার প্রাইমারির চাকরিপ্রার্থীরা; গোটা বিষয়টা অস্বীকার করেছেন। মিডিয়া না থাকাতেই কি; গভীর রাত বেছে নিল পুলিশ? উঠেছে প্রশ্ন।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন