মুকুল রায়ের হাত ধরে এলেই, বিজেপিতে বড় পোস্ট

5763
মুকুল রায়ের হাত ধরে এলেই, বিজেপিতে বড় পোস্ট
মুকুল রায়ের হাত ধরে এলেই, বিজেপিতে বড় পোস্ট

সোমবার ঘোষণা হয়েছে; রাজ্য বিজেপির নতুন স্টেট কমিটি। তাতে নাম নেই মুকুল রায়ের। “বিজেপির রাজ্য কমিটিতে; ঠাঁই হয়নি মুকুল রায়ের”; এই নিয়ে সমালোচনা শুরু করছেন মুকুল রায়ের রাজনৈতিক বিরোধীরা। কিন্তু ভালো করে দেখলে, দেখা যাবে; বিজেপির নতুন রাজ্য কমিটিতে একের পর এক মুকুল অনুগামীকে বড় পদ দেওয়া হয়েছে। “মুকুল রায়ের হাত ধরে এলেই; বিজেপিতে বড় পোস্ট”; প্রমাণ হয়ে গেছে বাংলার রাজনৈতিক মহলে।

আরও পড়ুনঃ কিস্যা কুর্সি কা, অন্যদল থেকে আসা নেতাদের বিজেপিতে বড় পোস্ট, বার্তা স্পষ্ট

শুধু তৃণমূল নয়; সিপিএম ও কংগ্রেস থেকেও; যারা মুকুল রায়ের হাত ধরে বিজেপিতে এসেছেন; তাঁরাও বড় পদ পেয়েছেন। এর মাধ্যমে আরও একটি বড় বার্তা দেওয়া হল; বাংলার বিজেপি বিরোধী সব নেতাদের। ক্ষমতা দেখানো হল; মুকুল রায়েরও। একনজরে দেখে নিন, কোন কোন নেতা মুকুল রায়ের হাত ধরে; অন্য দল থেকে বিজেপিতে এসে; রাজ্য কমিটিতে বড় পদ পেলেন।

আরও পড়ুনঃ বাংলায় ক্ষমতা দখলে, সব শিবিরকে রেখে বিজেপির নতুন রাজ্য কমিটি

সব্যসাচী দত্তঃ বিজেপির রাজ্য কমিটির সম্পাদকের পদ দেওয়া হয়েছে; মুকুল রায়ের অনুগামী বলে পরিচিত বিধাননগরের প্রাক্তন মেয়র সব্যসাচী দত্তকে। গত লোকসভা ভোটের আগে লুচি আলুর দমের নানান গল্প বলে সত্যি চাপা হলেও; অক্টোবরে অমিত শাহের কলকাতা সফরের সময়; তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেন সব্যসাচী দত্ত। তিনি বড় পদ পাবেন; এটা জানাই ছিল। তিনি মুকুল রায়ের হাত ধরেই; বিজেপিতে যোগ দেন।

আরও পড়ুনঃ মোবাইল থেকে টুনি বাল্ব, জামা গেঞ্জি থেকে টিভি, চিনা মালে আমাদের বাজারগুলো ভরে যাচ্ছে কেন

অর্জুন সিংঃ বিজেপি সহ-সভাপতি পদে উল্লেখযোগ্য নতুন নামগুলির একটি হল; ব্যারাকপুরের সাংসদ অর্জুন সিং। তিনিও লোকসভা ভোটের আগেই; তৃণমূল থেকে বিজেপিতে আসেন। আর তিনিও রাজনীতিতে তৃণমূলে থাকার সময় থেকেই; মুকুল রায় অনুগামী বলে পরিচিত। মুকুলের হাত ধরেই; দিল্লি গিয়ে তিনি গেরুয়া শিবিরে যোগ দেন।

আরও পড়ুনঃ আমেরিকায় কৃষ্ণাঙ্গ মৃত্যুতে বাংলায় প্রতিবাদ, বাংলাদেশ পাকিস্তানে হিন্দু মরলে বিপ্লব কোথায় থাকে

সৌমিত্র খানঃ বিজেপির বিষ্ণুপুরের সাংসদ সৌমিত্র খানকে; যুব সংগঠনের সভাপতির পদ দেওয়া হয়েছে। ২০১৯-এর লোকসভা ভোটের আগে; তিনি মুকুল রায়ের হাত ধরেই; তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে এসেছিলেন। তৃণমূল ক্ষমতায় আসার পর একটা সময়ে; সৌমিত্র খান তৃণমূলের যুব সংগঠনের সভাপতি ছিলেন।

আরও পড়ুনঃ মানুষকে ঠকিয়ে ভরতের বাজার দখল করার, নতুন পরিকল্পনা চিনের

দুলাল বরঃ শুধু তৃণমূল থেকে নয়; সিপিএম ও কংগ্রেস থেকে মুকুল রায়ের হাত ধরে এলেও ভালো পদ পাবেন; জোর বার্তা গেরুয়া শিবিরের। বিজেপির রাজ্য তপশিলি মোর্চার সভাপতি করা হয়েছে; বাগদার কংগ্রেস বিধায়ক দুলাল বরকে। ২০১৬-র বিধানসভা নির্বাচনে তিনি বাগদা থেকে; কংগ্রেসের টিকিটে নির্বাচিত হয়েছিলেন। অনেকের মতো তিনিও লোকসভা ভোটের আগেই; মুকুল রায়ের হাত ধরে বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন।

আরও পড়ুনঃ ‘সিপিএম কংগ্রেসকে ছাড়, বিজেপি নেতা নেত্রীদের বাধা’, বাংলায় দুরকম আইন

খগেন মুর্মুঃ বিজেপি তপশিলি উপজাতি মোর্চার সভাপতি করা হয়েছে; সিপিএম থেকে বিজেপিতে যোগ দেওয়া নেতা; তথা মালদহ উত্তরের সাংসদ খগেন মুর্মুকে। একটা সময়ে সিপিএম-এর দক্ষ সংগঠক হিসেবে; পরিচিত ছিলেন খগেন মুর্মু। মালদার হবিবপুর থেকে; তিনি ৩ বার এমএলএ হয়েছিলেন। গত লোকসভা নির্বাচনের আগে; সেই মুকুল রায়ের হাত ধরেই; তিনিও বিজেপিতে যোগ দেন। বিধায়ক পদে ইস্তফা দিয়ে; উত্তর মালদা থেকে লোকসভায় প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে জয়ী হন।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন