দেশের পরবর্তী রাষ্ট্রপতি আদিবাসী নেত্রী দ্রৌপদী, রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে এনডিএ জোটের প্রার্থী ঘোষণা

115
দেশের পরবর্তী রাষ্ট্রপতি আদিবাসী নেত্রী দ্রৌপদী, রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে এনডিএ জোটের প্রার্থী ঘোষণা
দেশের পরবর্তী রাষ্ট্রপতি আদিবাসী নেত্রী দ্রৌপদী, রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে এনডিএ জোটের প্রার্থী ঘোষণা
Simple Custom Content Adder

দেশের পরবর্তী রাষ্ট্রপতি আদিবাসী নেত্রী দ্রৌপদী; রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে এনডিএ জোটের প্রার্থী ঘোষণা। রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে এনডিএ জোটের প্রার্থী হচ্ছেন; আদিবাসী নেত্রী দ্রৌপদী মুর্মু। ওড়িশার প্রাক্তন বিজেপি নেত্রী দ্রৌপদী মুর্মু; সে রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রীও। শুধু তাই নয়, নরেন্দ্র মোদী সরকারের আমলে; ঝাড়খণ্ডের রাজ্যপাল পদেও ছিলেন তিনি। মঙ্গলবার বিজেপির কেন্দ্রীয় কমিটির বৈঠকের পরে, বিজেপি সভাপতি জেপি নড্ডা; তফসিলি জনজাতি সম্প্রদায়ের নেত্রী দৌপদীর নাম ঘোষণা করেন; পরবর্তী রাষ্ট্রপতি পদের এনডিএ জোটের প্রার্থী হিসাবে।

আর এই মুহূর্তে লোকসভা ও রাজ্যসভা মিলিয়ে, এখন বিজেপি ও এনডিএ জোটের যা শক্তি; তাতে বড় কিছু অঘটন না ঘটলে, দেশের পরবর্তী রাষ্ট্রপতি হচ্ছেন আদিবাসী নেত্রী দ্রৌপদী মুর্মু; তা আর বলার অপেক্ষা রাখে মা।

আরও পড়ুনঃ প্রাক্তন বিজেপি নেতাকেই বিজেপির বিরুদ্ধে দাঁড় করালেন মমতা ও বিরোধীরা

এর আগে জানা গিয়েছিল, সম্ভবত সংঘ পরিবারের নির্দেশেই বিজেপির রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থী হচ্ছেন; আনুষ্ঠানিক ঘোষণা এখন শুধু সময়ের অপেক্ষা। সংঘ পরিবারের ইচ্ছায় বিজেপির রাষ্ট্রপতি হচ্ছেন, বেঙ্কাইয়া নাইডু; এমনটাই জানা যাচ্ছিল। তবে শেষ পর্যন্ত ২০ জন প্রার্থীর মধ্যে, বিজেপি নেতৃত্ব বেছে নিলেন; ওড়িশার প্রাক্তন বিজেপি নেত্রী ও ঝাড়খণ্ডের প্রাক্তন রাজ্যপাল দ্রৌপদী মুর্মু-কেই।

আরও পড়ুনঃ ‘অগ্নিবীর’ নিয়োগ শুরু, সেনার তিন প্রধানের সঙ্গে বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী মোদী

২০০৪ সালে, ওড়িশার রাইরঙ্গপুর থেকে; বিজেপি বিধায়ক হন আদিবাসী নেত্রী দ্রৌপদী। ২০০৬ সালে, ওড়িশা বিজেপির তফশিলি মোর্চার সভাপতি হন; ২০০৭ এ সেরা বিধায়ক হিসেবে; তাঁকে পুরস্কৃত করে ওড়িশা বিধানসভা। তাঁর নাম ঘোষণা করেই, বিরোধীদের দিকে আ’ক্রমণ শা’নালেন; বিজেপি সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা। তিনি বলেন, “আমরা ভেবেছিলাম সবাই একসঙ্গে রাষ্ট্রপতির নাম ঘোষণা করব; কিন্তু আগেভাগেই বিরোধীরা অন্য প্রার্থী ঘোষণা করে দেওয়ায় দ্রৌপদীর নাম ঘোষণা করা হল”।

জানা যাচ্ছে, এবারের রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে কোন আদিবাসী মহিলা ‘মুখ’কে; সামনে রেখেই এগোতে চাইছিল বিজেপি। রাইসিনা হিলসের দৌড়ে তাই অন্তত জনা তিনেক মহিলা ছিলেন; তামিলসাই সৌন্দরাজন, আনন্দীবেন প্যাটেল এবং দ্রৌপদী মুর্মু। এই তিন মহিলার নাম নিয়েই, এদিন বিজেপির সংসদীয় বোর্ডের বৈঠকে আলোচনা হয়। যাতে উপস্থিত ছিলেন খোদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ, এবং দলের সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন