দুর্গা নিয়ে লড়াই তৃণমূল বিজেপির, সেরা পুজোর পুরষ্কার নিয়ে হাজির বিজেপি

213
দুর্গা নিয়ে লড়াই তৃণমূল বিজেপির, সেরা পুজোর পুরষ্কার নিয়ে হাজির বিজেপি/The News বাংলা
দুর্গা নিয়ে লড়াই তৃণমূল বিজেপির, সেরা পুজোর পুরষ্কার নিয়ে হাজির বিজেপি/The News বাংলা

শুধু রাজনীতির ময়দানেই নয়; এবার তৃণমূলের সঙ্গে বিজেপি পাল্লা দেবে দুর্গা পুজোতেও। শুধু প্যান্ডেলের জাঁকজমক নয়; সত্যিকারের নিষ্ঠা ভরে পুজোর উপরে জোর দিল বিজেপি। তাঁদের পুরস্কারে প্রাধান্য পাবে ‘শুধুই পুজো’। এদিকে; কলকাতার প্রায় সব কটি পুজোর সঙ্গেই যুক্ত তৃণমূলের নেতারা। এক-একটি বড় পুজোর মাথায় বসে থাকা তৃণমূল নেতাদের দিকে; পুজোর পুরষ্কার নিয়ে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিল বঙ্গ বিজেপি।

দুর্গা পুজো নিয়ে ইতিমধ্যেই; কালীঘাট সঙ্ঘশ্রী ও বরিষার একটি ক্লাবকে নিয়ে; রাজনৈতিক দলাদলি শুরু হয়ে গিয়েছে। এরমধ্যেই দুর্গা পুজোর পুরষ্কার নিয়ে হাজির বিজেপি নেতৃত্ব। “ভারতীয় জনতা শারদ সম্মান প্রতিযোগিতা ২০১৯” নিয়ে এল বিজেপি। উদ্যোক্তাদের তরফে জানান হয়েছে; এই পুরষ্কার দেওয়া হবে শুধুই পুজো-কে কেন্দ্র করে।

আরও পড়ুনঃ শক্তিগড়ের ল্যাংচার কাছে হেরে গেল মিষ্টি হাব, মমতার স্বপ্নের প্রকল্প বন্ধের মুখে

পুরষ্কার উদ্যোক্তা; বিজেপি নেতা সারথী ব্যানার্জী The News বাংলা কে জানান; এই পুরস্কারের মূল উদ্দেশ্য পুজোর প্রতি জনগনের নজর ফেরান। তাই এই পুরষ্কার “পুজোর প্রতি নিষ্ঠা যাদের” এই ট্যাগ লাইনে প্রচারিত হচ্ছে। ভোগ; আরতি; ধুনুচি নাচ; ঢাক; সিঁদুরখেলার পুরনো আন্তরিক আমেজ ফেরাতেই উদ্যোগী হয়েছেন তাঁরা।

পুরষ্কার কমিটি এই উদ্যোগ নিয়েছেন; কলকাতায় আবারও অতীতের পুজোর আমেজ ফেরাতে। তাঁরা পুজোর থিম; বা মূর্তিতে তাঁদের পুরষ্কার রাখছেন না। তাঁদের পুরষ্কার থাকছে; মায়ের পুজো কোথায় কতটা নিষ্ঠা ভরে করা হচ্ছে তার উপরে। আগে নিষ্ঠা ভরে মায়ের পুজো হত; কিন্তু এখন কলকাতার দুর্গা পুজো শুধুই দেখনদারিতে ভরে গেছে।

কলকাতার দুর্গা পুজোর মধ্যে আসল পুজোটাই হারিয়ে গেছে; পুজোটা আর পুজো নেই; শুধুই উৎসবে পরিনত হয়েছে বলে অভিযোগ করেন কমিটির মেম্বার সারথীবাবু। এই পুরস্কারের চারটি বিভাগ থাকবে। সেরা পুজো অর্চনা; পুজোর সেরা মহাভোগ; পুজোর সেরা আরতি এবং পুজোর সেরা সিঁদুরখেলা।

এদিকে বিজেপির তরফে কলকাতায় দুর্গা পুজোর পুরস্কারের ঘোষণায়; দ্বন্ধে ভুগছে অনেক পুজো কমিটি। একদিকে সেরা পুজোর পুরস্কারের হাতছানি; অন্যদিকে পুরষ্কার কমিটি বিরোধী রাজনৈতিক দলের। এখন এটাই দেখার; মায়ের পুজোতে কি বিরোধীদের দুরেই রাখবেন উদ্যোক্তারা; নাকি পুরষ্কার জেতার জন্য; শুধু থিম বা মূর্তি নয়; মায়ের “পুজো”-র দিকেও মন দেবেন বড় পুজো কমিটিগুলো।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন