তৃণমূলের হাত থেকে বাংলার আরও একটি পুরসভা বিজেপির দখলে

444
তৃণমূলের হাত থেকে রাজ্যের আরও একটি পুরসভা বিজেপির দখলে/The News বাংলা
তৃণমূলের হাত থেকে রাজ্যের আরও একটি পুরসভা বিজেপির দখলে/The News বাংলা
Simple Custom Content Adder

রাজ্যের আরও একটি পুরসভা; হাতছাড়া হতে চলেছে তৃণমূলের। হিসাব অনুযায়ী, বনগাঁ পুরসভাও চলে গেল বিজেপির দখলে। আগেই ১১ জন কাউন্সিলর; তৃণমূলের চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব আনেন। সেই বিক্ষুব্ধদলে নাম লেখালেন; আরও বেশ কয়েকজন কাউন্সিলর।

১৪-১৫ জন কাউন্সিলর বিদ্রোহী হয়ে ওঠায়; উত্তর ২৪ পরগনার বনগাঁ পুরসভাও; তৃণমূলের হাতছাড়া হওয়ার পথে। এদিকে তৃণমূলের তরফে পদত্যাগের নির্দেশ দেওয়া হল; বনগাঁ পুরসভার প্রধান শংকর আঢ্যকে।

২২ আসনের বনগাঁ পুরসভায়; সংখ্যাগরিষ্ঠতা হারাল তৃণমূলের বর্তমান পুরবোর্ড। বনগাঁ পুরসভার চেয়ারম্যান শংকর আঢ্যর বিরুদ্ধে; অনাস্থা আনেন তৃণমূলেরই ১৪ জন কাউন্সিলর। ২২ আসনের বনগাঁ পুরসভায় বিরোধীদের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৪। আরও কাউন্সিলর বিজেপিতে যোগ দিচ্ছেন।

আরও পড়ুনঃ মমতার ঘর ভেঙ্গে বিজেপিতে যোগ দিতে বিধায়ক সহ নেতারা দিল্লিতে

ফলে সংখ্যাগরিষ্ঠতা হারিয়ে তৃণমূল পুরবোর্ড; ভাঙনের মুখে দাঁড়িয়ে রয়েছে। এই পুরসভায় ২০টি আসন ছিল তৃণমূলের দখলে। ১টি আসন সিপিএমের দখলে এবং ১টি নির্দলের। এই মুহূর্তে ২-৩ জন ছাড়া; সবাই গেরুয়া শিবিরে। এদিকে তৃণমূলের তরফ থেকেও; পদত্যাগের নির্দেশ দেওয়া হল; বনগাঁ পুরসভার পুরপ্রধান শংকর আঢ্যকে।

বনগাঁ পুরসভার ২২টি ওয়ার্ডের মধ্যে; ২০টি ছিল তৃণমূলের দখলে। কিন্তু তাও এবারের লোকসভা নির্বাচনে; বনগাঁ পুরসভা এলাকায় বিজেপির থেকে প্রায় কুড়ি হাজার ভোটে পিছিয়ে পড়ে তৃণমূল। আসনটিও হাতছাড়া হয়েছে শাসক দলের।

আরও পড়ুনঃ নবান্ন বৈঠকের লাইভ কভারেজের অনুমতি দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

দুই দফায়, প্রথমে ১১ জন ও তারপর ৩ জন; মোট ১৪ জন কাউন্সিলর পুরপ্রধান শংকর আঢ্যর বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব পেশ করেছে। আরও বেশ কয়েকজন সোমবার বিজেপিতে যোগ দেবেন। তাঁদের অভিযোগ, পুরপ্রধানের অনৈতিক কাজকর্ম, স্বৈরাচারী মনোভাব এবং স্বজনপোষণ লোকসভা ভোটে তৃণমূলের ভরাডুবির একমাত্র কারণ।

বনগাঁ পুরসভার উপপুরপ্রধান কৃষ্ণা দেবীর অভিযোগ; “এলাকায় প্রচুর উন্নয়ন সত্ত্বেও লোকসভায় বিপর্যয়ের কারণ পুরপ্রধানের ভাবমূর্তি”। কাউন্সিলর অভিজিত্‍ কাপুরিয়া, মনোতোষ নাথ, সুমঞ্জনা মুন্সি জানান, “পুরপ্রধানের দুর্নীতিতে এলাকার মানুষ সকলেই ক্ষুব্ধ। সে কারণেই ভোটে আমাদের এভাবে হার হয়েছে”।

এই ডামাডোলের মধ্যেই বনগাঁ পুরসভা; ভোটের মাধ্যমে সরকারি ভাবে দখল করার প্রস্তুতি নিচ্ছে গেরুয়া শিবির। রাজ্যের আরও একটি পুরসভা তৃণমূলের হাত থেকে বিজেপির হওয়া; এখন শুধুই সময়ের অপেক্ষা।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন