বিজেপির কলকাতা পুরসভা অভিযানে ধুন্ধুমার, পুলিশের লাঠিচার্জ জলকামান

235
বিজেপির কলকাতা পুরসভা অভিযানে ধুন্ধুমার, পুলিশের লাঠিচার্জ জলকামান/The News বাংলা
বিজেপির কলকাতা পুরসভা অভিযানে ধুন্ধুমার, পুলিশের লাঠিচার্জ জলকামান/The News বাংলা

বিজেপির কলকাতা পুরসভা অভিযানে ধুন্ধুমার; পুলিশের লাঠিচার্জ জলকামান। পুরসভার দিকে বিজেপি কর্মীদের এগোনোয়; বাধা দেওয়ার চেষ্টা করা হলেও; এদিন পুলিশের ব্যরিকেড ভেঙে ফেলার চেষ্টা করে গেরুয়া নেতৃত্ব। পুলিশের সঙ্গে বিতর্কে জড়িয়ে পড়েন বিজেপি কর্মীরা। ব্যরিকেডের সামনেই চেয়ার নিয়ে; অবস্থানে বসে পড়েন তারা। বিজেপি কর্মীদের ছত্রভঙ্গ করতে; প্রথমে জলকামান ছোড়া হয়।

পরে পরিস্থিতি আরও খারাপের দিকে গড়ালে; লাঠিচার্জ করে পুলিশ। আহত হন বেশ কয়েকজন বিজেপি কর্মী। শহরে বেড়ে চলেছে ডেঙ্গুর উপদ্রব। মৃত্যু হয়েছে অসংখ্য মানুষের। অন্যদিকে সামনেই পুরসভা ভোট। তার আগেই ডেঙ্গিকে হাতিয়ার করে; ডেঙ্গু দমনে সরকারের অপদার্থতাকে তুলে ধরতে; পুরসভা অভিযানে নামল বিজেপি। মিছিল নেতৃত্ব দেন; রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

আরও পড়ুন: মুখ্যমন্ত্রীর পোস্টারে কাদা, দুধ ঢেলে পরিস্কার করল তৃণমূল

“ডেঙ্গু মুক্ত কলকাতা; জঞ্জাল মুক্ত কলকাতা”; এই শ্লোগান তুলে এদিন বিজেপি নেতৃত্ব মিছিল করে; ক্রমশ পুরসভার দিকে এগিয়ে যায়। মিছিল ক্রমশ মেডিক্যাল কলেজ ছাড়িয়ে; বৌবাজারের দিকে এগিয়ে যেতে থাকে। এদিন মিছিল থেকে রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ শাসকদলকে ঠুকে বলেন; রাজ্য সরকার বিজেপিকে আটকাতে উদ্যোগী; কিন্তু ডেঙ্গু আটকাতে নয়।

এদিন মিছিল আটকাতে; কড়া ব্যবস্থা নেয় পুলিশ। স্টিলের ব্যরিকেড দিয়ে; প্রাথমিকভাবে মিছিল আটকানোর চেষ্টা করা হয়; পুলিশের তরফে। পরিস্থিতি নাগালের বাইরে চলে গেলে; কি ব্যবস্থা নেওয়া হবে; তাও পরিকল্পনা করে রেখেছিল পুলিশ। পুলিশের তরফে লাঠিচার্জ করা হবে না বলেই ঠিক ছিল। পরে বদলে যায় পরিস্থিতি।

আরও পড়ুনঃ শুধু রামমন্দির রায় নয়, অবসরের আগে ভারত কাঁপানো আরও সিদ্ধান্ত দিচ্ছেন রঞ্জন গগৈ

জলকামান চালানোর পরে; লাঠি চালায় পুলিশ। বিজেপির অভিযোগ; বিগত দিনে ডেঙ্গু বহু মানুষের প্রাণ কেড়ে নিয়েছে। কোনও ব্যবস্থাই নেয়নি রাজ্য সরকার। এদিনের এই পুরসভা অভিযানের মাধ্যমে; তারা রাজ্য সরকারের ব্যর্থতাকেই তুলে ধরার চেষ্টা করেছে। নিজেদের ব্যর্থতাকে ঢাকতে; রাজ্য সরকার ডেঙ্গুতে মৃত মানুষের সংখ্যা লুকিয়ে রাখতে চেয়েছে; অভিযোগ বিজেপির।

এদিন বিজেপি; রাজ্য প্রশাসনের দুর্বলতাকে সামনে আনার চেষ্টা করেছে। পুরসভা ভোটের আগে তারা এমন একটি বিষয়কে হাতিয়ার করেছে; যার সঙ্গে মানুষের জীবন জড়িয়ে রয়েছে। “শান্ত বাংলায় অশান্তি সৃষ্টি করতে চাইছে বিজেপি”; জানিয়েছে তৃণমূল নেতৃত্ব।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন