“লন্ডনের বদলে কলকাতাকে পাকিস্তান বানাচ্ছেন মাননীয়া” বিস্ফোরক দিলীপ ঘোষ

781
"লন্ডনের বদলে কলকাতাকে পাকিস্তান বানাচ্ছেন মাননীয়া"

নিউটাউন কাণ্ডে ইতিমধ্যেই; পাকিস্তান যোগ হাতে এসেছে সিআইডির। নিউটাউন কাণ্ডে পাক যোগ সামনে আসতেই; রাজ্য সরকারের উপরে চাপ বাড়াতে শুরু করেছে বঙ্গ বিজেপি। বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ এদিন, সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে; সরাসরি বিঁধলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। দিলীপ লেখেন, “নিউটাউন শ্যুটআউট কাণ্ডে; এবার মিলল পাকিস্তান যোগ। পাকিস্তানি ভিজিটিং কার্ড সহ; মিলল একাধিক সুত্র”। এই সুত্র ধরে বিজেপি রাজ্য সভাপতি আরও লেখেন; “কলকাতাকে লন্ডন বানানোর প্রতিশ্রুতি দিয়ে; ক্রমেই পাকিস্তান বানিয়ে ছাড়ছেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী”।

নিউটাউনের পাঞ্জাব গ্যাং ঘটনায়; ইতিমধ্যেই পাওয়া গেছে পাক যোগ। অ’স্ত্র ড্রা’গ চোরাচালানের টাকায়; ভারতে না’শকতার ছক। পুলিশ সূত্রে খবর, পাঞ্জাবের ‘দুষ্কৃতী’রা; ঘাঁটি গেড়েছিল নিউটাউনের সাপুরজি আবাসনে। মূলত ড্রা’গ ও আগ্নে’য়াস্ত্র চোরাচালানে; অভিযুক্ত ছিল এই দুষ্কৃতীরা। আগ্নে’য়াস্ত্র চোরাচালানের ডিল ফাইনাল করতেই; তারা এ রাজ্যে এসেছিল বলে সূত্রের খবর।

আরও পড়ুনঃ ‘পরিবর্তনই জীবন’, নুসরতের জীবনে বারবার পাল্টেছে পুরুষ

নিউটাউন কাণ্ডে তদন্তের গতি যত এগোচ্ছে; তত চাঞ্চল্যকর তথ্য হাতে আসছে। জানা গেছে, পাকিস্তান পর্যন্ত বিছিয়ে আছে; পাঞ্জাবের গ্যাংস্টা’র-দের এই জাল। জয়পাল ভুল্লার ও যশপ্রীত সিংয়ের পাকিস্তান যোগ পেয়ে; নড়েচড়ে বসেছেন গোয়েন্দারা। সুখবৃষ্টি আবাসনের যে ফ্ল্যাটে গ্যাংস্টাররা গা ঢাকা দিয়েছিল; সেখানে আলমারিতে থাকা পোশাকের প্লাস্টিকের প্যাকেটে; পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশের ঠিকানা পাওয়া গেছে।

আরও পড়ুনঃ শপথ নিয়েও দেশের সংসদে মিথ্যা তথ্য দিয়েছেন, তৃণমূল সাংসদ নুসরত জাহান

এরপরেই, নিউটাউন কাণ্ড নিয়ে রাজ্যের ভুমিকায়; সমালোচনায় মুখর হয়েছেন বিজেপি নেতারা। দিলীপ ঘোষের পাশাপাশি, এই ঘটনায় বড়সড় ষড়যন্ত্রের ছায়া দেখছেন; বিষ্ণুপুরের বিজেপি সাংসদ তথা যুব মোর্চা সভাপতি সৌমিত্র খাঁ। তিনি নিউটাউন ঘটনার তদন্তভার এনআইএ (NIA) কে দেওয়া হোক; এই আবেদন জানিয়ে চিঠি পাঠাচ্ছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে। বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁর দাবি; নিউটাউনের যে ফ্ল্যাটে দুই গ্যাংস্টা’র আস্তানা গেড়েছিল; তার মালিক বাংলাদেশি। তাই এই ঘটনার তদন্তে; কেন্দ্রের অতিরিক্ত নজর চেয়েছেন তাঁরা। “চার রাজ্যের পুলিশকে চোখে ধুলো দিয়ে; কলকাতার পুলিশের হাতে মারা পরেছে”; এরপরেও দিলীপ ঘোষ মুখ খুলছেন? প্রশ্ন তুলেছে তৃণমূল নেতারা।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন