“মমতা ও তৃণমূল সম্পর্কে খারাপ কথা বলেনি”, মুকুলে নরম সৌগত

517
"মমতা ও তৃণমূল সম্পর্কে খারাপ কথা বলেনি", মুকুলে নরম সৌগত

মুকুল রায় ও তাঁর পুত্র শুভ্রাংশু; কি ফিরছে তৃণমূলে? বিগত কয়েকদিন ধরেই, বঙ্গ রাজনীতির অলিতে-গলিতে; ঘুরপাক খাচ্ছে এই প্রশ্ন। অসুস্থ মুকুল রায়ের স্ত্রীকে দেখতে হাসপাতালে; অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের আগমনের পরেই শুরু হয়েছে এই গুঞ্জন। এই পরিস্থিতিতে ক্রমশ দলের সঙ্গে দূরত্ব বাড়িয়েছেন; বিজেপির সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি মুকুল রায়। বিভিন্ন অজুহাতে অনুপস্থিত থেকেছেন; দলীয় বৈঠকে। শাসক এবং বিরোধী উভয় শিবিরই; মুকুলকে নিয়ে আপাতত নীরব। তবে মুকুলের সঙ্গে বিজেপির দুরত্ব তৈরির মধ্যেই; তৃণমূলে মুকুল ফেরায় ইন্ধন জোগালেন তৃণমূল কংগ্রেসের বর্ষীয়ান সাংসদ সৌগত রায়। এদিন মুকুল রায়কে নিয়ে; তাৎপর্যপূর্ণ মন্তব্য করেন তিনি।

মুকুল রায় প্রসঙ্গে, তৃণমূলের প্রবীণ নেতা তথা সাংসদ সৌগত বললেন; “অনেকে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে; যোগাযোগ রাখছেন। তাঁরা ফিরে আসতে চান। আমি মনে করি, প্রয়োজনের সময়ে তাঁরা দলের সঙ্গে; বিশ্বাসঘাতকতা করেছিলেন। যদিও এই সব বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত; নেবেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে আমার মতে, বিষয়টিকে দুই ভাগে ভাগ করতে হবে; নরমপন্থী ও কট্টরপন্থী”।

আরও পড়ুনঃ জনপ্রতিনিধি আইনে মিথ্যা বলায় জেল জরিমানা দুই হতে পারে নুসরতের

সৌগত রায়ের এই মন্তব্য যথেষ্ট ইঙ্গিতপূর্ণ; বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল। তৃণমূল সাংসদ আরও বলেন; “অনেকে আছেন যাঁরা দল ত্যাগ করেছেন; কিন্তু মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে কখনও অপমান করেননি। অন্যদিকে, কট্টরপন্থীরা প্রকাশ্যেই তাঁকে; অপমান করেছিলেন। শুভেন্দু অধিকারী চলে যাওয়ার পরে; মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বদনাম করেছেন। তবে মুকুল রায় কখনই মুখ্যমন্ত্রীকে; প্রকাশ্যে অপমান করেননি”।

আরও পড়ুনঃ শপথ নিয়েও দেশের সংসদে মিথ্যা তথ্য দিয়েছেন, তৃণমূল সাংসদ নুসরত জাহান

সৌগত রায়ের এই মন্তব্যের পরেই প্রশ্ন উঠে, তাহলে কি মুকুল রায়ের জন্য; তৃণমূল কংগ্রেসের দরজা খোলা আছে? কবে নিজের পুরনো দলে ফিরছেন মুকুল রায়? সৌগত রায়ের গভীর ইঙ্গিতের পর; মুকুলকে নিয়ে জল্পনা ও আলোচনা আরও বাড়িয়ে দিল। তবে এই নিয়ে মুখ খোলেননি; স্বয়ং মুকুল রায়।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন