হেস্টিংস থেকে ডালহৌসি, আগুনে নেই কোন নেতা, বাদ যাওয়া তৃনমূলিদের দলে টানতে ব্যস্ত বিজেপি

718
হেস্টিংস থেকে ডালহৌসি, আগুনে নেই কোন নেতা, বাদ যাওয়া তৃনমূলিদের দলে টানতে ব্যস্ত বিজেপি
হেস্টিংস থেকে ডালহৌসি, আগুনে নেই কোন নেতা, বাদ যাওয়া তৃনমূলিদের দলে টানতে ব্যস্ত বিজেপি

হেস্টিংস থেকে ডালহৌসি; সামান্য রাস্তা পেরোতে পারলেন না কোন বিজেপি নেতা। বড়বাজারের আগুনে দেখা গেল না; কোন বিজেপি নেতাকে। বাদ যাওয়া তৃনমূলিদের দলে টানতে ব্যস্ত বিজেপি; রেলের অফিসে আগুনে নেই কেউই। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যখন বিরোধী নেত্রী ছিলেন; তখন সব ঘটনাতেই বামনেতাদের চেয়ে আগে হাজির হয়ে যেতেন। পার্কস্ট্রিট আগুনের ঘটনায়, তৎকালীন সরকারে থাকা বাম নেতাদের অনেক আগেই ঘটনাস্থলে পৌঁছে গিয়েছিলেন মমতা। বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যর আগে, ঘটনাস্থলে পৌঁছে; চেয়ার পেতে বসে পড়েছিলেন বিরোধী নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

আগুন লাগা বহুতলে লিফটে ওঠা; যে দমকলের বড় গাফিলতি; সেই নিয়েও কোন আন্দোলন নেই; রাজ্যে ক্ষমতায় আসছি দাবি করা বিরোধী দলটির। বিরোধী নেতা হলে; কোন ইস্যুকে হাতিয়ার করে; কতটা আন্দোলন গড়ে তোলা যায়; তার উদাহরণ চোখের সামনেই রয়েছে; মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু এতবড় ঘটনা নিয়ে; কোন হেলদোল নেই বিজেপির।

সোমবারও মুখ্যমন্ত্রী মমতা নিজেও আগুনের ঘটনাস্থলে পৌঁছে; রাত ১২ টা পর্যন্ত হাজির ছিলেন। কিন্তু ভোট বাজারেও; দেখা যায় নি কোন বিজেপি নেতাকে। বড়বাজারে বিজেপি প্রার্থী করতে পারে; সদ্য তৃণমূল থেকে বিজেপি যোগ দেওয়া দীনেশ বাজাজকে। না, তাঁকেও দেখা যায়নি। এতদিন মমতার তৃণমূলে থেকেও; নেত্রীর কাছ থেকে বিরোধী রাজনীতি কিছুই কি শেখেননি তিনি? প্রশ্ন বিজেপি মহলেই।

আরও পড়ুনঃ বহুতলে আগুন, প্রাথমিক নিয়ম মেনে বন্ধ করা হয়নি লিফট, কাটা হয়নি বিদ্যুৎ সংযোগ

বিরোধী নেত্রী থাকাকালিন মমতার আন্দোলন থেকে কি; কিছুই শেখে নি বাংলার বর্তমান বিরোধীরা? নাকি তারা ভাবছেন; খুব সহজেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে উৎখাত করা যাবে? বিরোধী নেত্রী থাকাকালিন; রাজ্যের যেকোন বড় ঘটনায়; স্পটে পৌঁছে যেতেন মমতা। তৃণমূল কর্মী রাজনৈতিক হিং’সায় মারা গেলে; যে আন্দোলন করতেন; তার বিন্দুমাত্র করতে পারেননি গেরুয়া শিবিরের নেতারা। পুরুলিয়া, উত্তর দিনাজপুর সহ বিভিন্ন মৃত্যুর ঘটনায় তা দেখেছে; বিজেপি নেতা কর্মীরাও।

মমতার কাছ থেকে বিরোধী আন্দোলন কি; কিছুই শেখেননি রাজ্যে এই মুহূর্তে সবচেয়ে বড় বিরোধীরা? এটাই এখন বড় প্রশ্ন। বিরোধী রাজনীতি কিছুই না শিখে কি; মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়-কে বিরোধী আসনে পাঠানো যাবে? বিজেপি নেতা কর্মীদের মৃত্যুর পরে যে প্রশ্ন উঠেছিল; বড়বাজারের আগুনের ঘটনার পরে; সেই প্রশ্ন আবার উঠছে।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন