রাহুলের বিরুদ্ধে সোচ্চার বিজেপি, হাত গুটিয়ে বসেই রইলেন মমতার সাংসদরা

468
রাহুলের বিরুদ্ধে সোচ্চার বিজেপি, হাত গুটিয়ে বসেই রইলেন মমতার সাংসদরা/The News বাংলা
রাহুলের বিরুদ্ধে সোচ্চার বিজেপি, হাত গুটিয়ে বসেই রইলেন মমতার সাংসদরা/The News বাংলা

রাহুলের বিরুদ্ধে সোচ্চার বিজেপি; অন্যদিকে হাত গুটিয়ে বসেই রইলেন মমতার মহিলা সাংসদরা। রাহুল গান্ধীর ‘রেপ ইন ইন্ডিয়া’ মন্তব্যে তোলপাড় সংসদ। রাহুল গান্ধীকে ক্ষমা চাইতে হবে; বিজেপি সাংসদদের এই দাবিতে শুক্রবার উত্তাল হয়ে উঠল সংসদ। এদিন রাহুলের মন্তব্যের বিরোধীতা করতেই; হট্টগোল শুরু হয়ে যায় সংসদে। যদিও রাহুল নিজ মন্তব্যের জন্য; কোনও মতেই ক্ষমা চাইবেন না বলে মতামত স্পষ্ট করে দিয়েছেন। রাহুলের এই মন্তব্যে প্রতিবাদে; সংসদে রণংদেহি মূর্তি ধারণ করেন বিজেপি সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায়, দেবশ্রী চৌধুরী থেকে স্মৃতি ইরানী।

ঠিক এমনতাবস্থায় সংসদে একটি নজিরবিহীন ঘটনা চোখে পড়ে। এদিন বিজেপি নেত্রীরা যখন রাহুলের বিরুদ্ধে খড়গহস্ত হয়েছেন; সেই সময় সব তৃণমূল সাংসদকেই চুপ চাপ হাত গুটিয়ে বসে থাকতে দেখা গিয়েছে। মহিলা সাংসদরাও ধর্ষণ ইস্যুতে; চুপ করে থাকেন। তাদের অবস্থান দেখে মনে হয়েছে; তাঁরা সংসদে ধর্ষণ নিয়ে এত বিরোধীতা ও চেঁচামেচিতে বড্ড বীতশ্রদ্ধ বোধ করছেন। তাদের মুখের হাভভাবে স্পষ্ট; যে কখন অধিবেশন কখন শেষ হবে; সেই অপেক্ষাই করছিলেন। এমনটাই অভিযোগ বিজেপির তরফ থেকে।

আরও পড়ুনঃ পশ্চিমবঙ্গ কি বাংলাদেশ হওয়ার পথে, শিশুদের হাতে বাংলাদেশের পতাকা কেন উঠছে প্রশ্ন

কয়েকদিন আগেই কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমনের বক্তব্য রাখার সময়; একজন সাংসদ পিছনের বেঞ্চে বসে ঘুমোচ্ছিলেন। যা নিয়ে রীতিমতো বিতর্ক শুরু হয়। বিরোধীতা কটাক্ষ করে; অধিবেশন চলাকালীন অর্থমন্ত্রীর বক্তব্যের সময়; সংসদ কক্ষের মতো গুরুত্বপূর্ণ একটি জায়গায় কি করে কেউ ঘুমোতে পারেন। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীকে বরাবরই বলতে শোনা যায়; এগিয়ে বাংলা। ক্যাবের বিরোধীতায় রীতিমতো রণকৌশল তৈরি করে মাঠে নেমেছে; রাজ্য তৃণমূল।

আরও পড়ুনঃ দেশকে ভালবাসলে তবেই দেশে থাকার অধিকার মিলবে

ক্যাব নিয়ে যখন সরব দলনেত্রী; তখন সংসদে রাহুল গান্ধীর মন্তব্যের প্রতিবাদ তো দূরের কথা; চুপচাপ হাত গুটিয়ে ক্লাসের বাচ্চার মতো বসে আছেন সাংসদ। এ নিয়েই নিন্দার ঝড় উঠেছে; বিরোধী মহলে। প্রশ্ন উঠছে; রাহুল গান্ধী বলেই কি তৃণমূল সাংসদের এই অবস্থান। তবে ইস্যু যখন ধর্ষণ; তখন মহিলাদের চুপ করে বসে থাকাটাকেই ইস্যু করেছে বিজেপি। উঠেছে সোশ্যাল মিডিয়ায় তৃণমূলের সাংসদদের বিরুদ্ধে কটাক্ষের ঝড়। তবে তৃণমূলের তরফ থেকে; এই নিয়ে কোন মন্তব্য করা হয়নি।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন