শাসক বদলেছে, বাংলার খেজুরি রয়েছে সেই সন্ত্রাসের মধ্যেই

1010
শাসক বদলেছে, বাংলার খেজুরি রয়েছে সেই সন্ত্রাসের মধ্যেই
শাসক বদলেছে, বাংলার খেজুরি রয়েছে সেই সন্ত্রাসের মধ্যেই

বদলা নয়; বদল চাই। তবে সেটা কথার কথা হয়েই আছে। শাসক বদলেছে; তবে বাংলার খেজুরি রয়েছে সেই সন্ত্রাসের মধ্যেই। বদলেছে সময়, বদলেছে শাসক দলের রং। তবু বদলের চিহ্ন নেই খেজুরিতে। নেই কোন পরিবর্তন। গোলাগুলি, বোমাবাজি যেন রাজনীতির ভবিতব্য হয়ে গিয়েছে খেজুরিতে। ‘বদলা নয়, বদল চাই’ স্লোগান তুলে; রাজ্যে ক্ষমতায় এসেছিল তৃণমূল। কিন্তু বিধানসভা ভোটের কয়েক মাস আগেও; ‘বদলা’ র রাজনীতি অব্যাহত খেজুরিতে। বোমাবাজি, গুলি, অবরোধে; উত্তপ্ত খেজুরি; তৃণমূল-বিজেপির সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ বিজেপি নেতা।

বিজেপি তৃণমূল সংঘর্ষে উত্তপ্ত খেজুরি। খেজুরির কটকা দেবীচকে বোমাবাজি, গুলি, অবরোধে; উত্তেজনা ছড়াল এলাকায়। ঘটনায় গুলিবিদ্ধ হয়েছেন; এক বিজেপি নেতা। তৃণমূলের দাবি, সবটাই বিজেপির গোষ্ঠীকোন্দলের ফল। আমফানে ক্ষতিপূরণের তালিকা নিয়ে অভিযোগ ছিলই। তৃণমূলের দুর্নীতির প্রতিবাদ করায়; পরিকল্পিত হামলা বলে অভিযোগ করেছে বিজেপি।

আরও পড়ুনঃ বাংলার মন্দানমণি সি বিচে, ভেসে এল বিশাল আকারের একটি তিমি

রবিবার এই সংঘর্ষ চলাকালীনই; কাঁথি জেলা বিজেপি সম্পাদক, পবিত্র দাসের হাতে গুলি লাগে। তাঁকে উদ্ধার করে; হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। এরপরেই গোটা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাচ্ছে; দেখে সক্রিয় হয় পুলিশ। এত দেরিতে পুলিশি পদক্ষেপ শুরু হওয়ায়; ক্ষুব্ধ বিজেপি কর্মীরা পুলিশকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখান। পাশাপাশি বিজেপি নেতা পবিত্র দাসের গুলিবিদ্ধ হওয়ার ঘটনায়; জড়িতদের গ্রেফতারির দাবিতে, খেজুরিতে পথ অবরোধও করেন দলীয় কর্মী-সমর্থকরা।

আমফানে ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকা তৈরি নিয়ে; স্বজনপোষণের অভিযোগ তুলে উত্তেজনা ছিলই; খেজুরির হলুদবাড়ি পঞ্চায়েত এলাকায়। রবিবার জনকায় পড়ে থাকা গাছ সরানো নিয়ে; তুলকালাম বেঁধে যায়। বিজেপির অভিযোগ, হাত গুটিয়ে ছিল প্রশাসন। মুহূর্তের মধ্যেই রণক্ষেত্র হয়ে ওঠে; কটকা দেবীচক। তৃণমূল-বিজেপি হাতাহাতি; গড়ায় বোমাবাজি, গুলিতে। বিজেপির অভিযোগ, পুলিশের সামনেই গুলিবিদ্ধ হন তাদের স্থানীয় নেতা।

আরও পড়ুনঃ আমফান দুর্নীতি তদন্তে তৃণমূলের টাস্ক ফোর্সে রয়েছে অভিযুক্তই

টেন্ডার ছাড়া ঘূর্ণিঝড়ে ভেঙে পড়া গাছ বিক্রি নিয়ে; শাসক দল ও বিজেপির মধ্যে সংঘর্ষে রবিবার উত্তপ্ত হল এলাকা। বিজেপির জেলা সম্পাদক; পবিত্র দাস গুলিবিদ্ধ হন ঘটনায়।কটকা দেবীচক, গোড়াহার জলপাই গ্রামে; পুলিশের উপস্থিতিতেই শাসক দলের বিরুদ্ধে বোমাবাজি ও গুলি ছোড়ার অভিযোগ তুলেছে বিজেপি। যদিও গুলি ছোড়া এবং বোমাবাজির অভিযোগ, পুলিশ এবং শাসক দল; উভয়েই অস্বীকার করেছে।

প্রতিবাদ জানাতে রাস্তায় গাছ ফেলে; পথ আটকায় বিজেপি কর্মীরা। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছলে; তুমুল তর্কাতর্কি শুরু হয়। তৃণমূলের দাবি, গাছ চুরির বখরা নিয়ে; বিজেপি কর্মীরা নিজেরাই সংঘর্ষে জড়ায়। তৃণমূল গুলি চালিয়েছে; পাল্টা অভিযোগ বিজেপির। খেজুরি রয়ে গেছে খেজুরি-তেই। কোন পরিবর্তন হয় নি।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন