মোদী ব্রিগেডে আসা আটকাতে কোথাও কর্মীদের মারধর, কোথাও গুলি খেলেন বিজেপি সভাপতি

783
মোদী ব্রিগেডে আসা আটকাতে কোথাও কর্মীদের মারধর, কোথাও গুলি খেলেন বিজেপি সভাপতি
মোদী ব্রিগেডে আসা আটকাতে কোথাও কর্মীদের মারধর, কোথাও গুলি খেলেন বিজেপি সভাপতি

মোদী ব্রিগেডে আসা আটকাতে কোথাও কর্মীদের মারধর; কোথাও গুলি খেলেন বিজেপি সভাপতি। এমনটাই অভিযোগ বিজেপির। ব্রিগেড যাওয়ার পথে ভাঙড়ে; বিজেপি কর্মীদের মারধরের অভিযোগ উঠল তৃণমূলের বিরুদ্ধে। ‘হামলা হয়েছে আমাদের কর্মীদের উপর’; পাল্টা অভিযোগ তৃণমূলের। অন্যদিকে, নদিয়ার হরিণঘাটায়; গুলিবিদ্ধ বিজেপির এক বুথ সভাপতি। তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা গুলি চালিয়েছে; অভিযোগ বিজেপির। নিজেদের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব জেরেই এই ঘটনা; পাল্টা অভিযোগ তৃণমূলের। সব মিলিয়ে মোদীর ব্রিগেডের আগেই; ঝামেলা শুরু বাংলার রাজনীতিতে।

রবিবার, ভাঙড়ের বানগোদা এলাকা থেকে গাড়িতে করে; ব্রিগেড যাচ্ছিলেন বিজেপির কর্মী, সমর্থকরা। বিজেপির অভিযোগ, শাঁখশহর এলাকায় গাড়ি থামিয়ে; তাদের উপর চড়াও হয় তৃণমূল কর্মীরা। এরপরই দু পক্ষের সংঘর্ষ বেধে যায়। আহত হন উভয়পক্ষের ৭ জন। এদের নলমুড়ি প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ভর্তি করা হয়েছে। পরিস্থিতি সামাল দিতে ঘটনাস্থলে যায়; কেন্দ্রীয় বাহিনী ও ভাঙড় থানার পুলিশ।

আরও পড়ুনঃ মোদীর ব্রিগেডে ‘জনপ্লাবন’, বাংলায় ফের পরিবর্তন কি সুনিশ্চিত

অন্যদিকে, নদিয়ার হরিণঘাটায় গুলিবিদ্ধ; বিজেপির বুথ সভাপতি। এখানেও হামলার অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে। শনিবার রাতে বাড়ি ফেরার পথে, হরিণঘাটা পুরসভার সন্তোষপুর এলাকায়; গুলিবিদ্ধ হন বিজেপির বুথ সভাপতি সঞ্জয় দাস। তাঁর কোমরের নীচে গুলি লাগে। কল্যাণীর জেএনএম হাসপাতালে ভর্তি; বিজেপি নেতা।

আরও পড়ুনঃ অভিষেককে ‘চ্যালেঞ্জে’ হারালেন শুভেন্দু, পুরো অধিকারী পরিবারে ফুটল পদ্ম

গেরুয়া শিবিরের অভিযোগ; হামলা চালিয়েছে তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা। মোদীর ব্রিগেড সমাবেশে যাওয়া আটকাতেই; এই হামলা বলে অভিযোগ। তৃণমূলের পাল্টা দাবি; বিজেপির গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের জেরেই এই ঘটনা। গুলি চলার কথা স্বীকার করলেও; ঘটনার সঙ্গে রাজনীতির যোগ নেই বলে দাবি করেছে পুলিশ।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন