যে রাস্তায় নামাজ; সে রাস্তাতেই হনুমান চালিশা পড়বে বিজেপি

322
যে রাস্তায় নামাজ; সে রাস্তাতেই হনুমান চালিশা/The News বাংলা
যে রাস্তায় নামাজ; সে রাস্তাতেই হনুমান চালিশা/The News বাংলা
Simple Custom Content Adder

যে রাস্তায় নামাজ; সে রাস্তাতেই হনুমান চালিশা। রাস্তা আটকে নমাজের বিরোধিতায় পথে নামল; হাওড়ার বিজেপি যুব মোর্চা। মঙ্গলবার; বালিখালে বজরংবলি মন্দিরের সামনে; প্রায় শখানেক বিজেপি কর্মী রাস্তায় বসে হনুমান চালিশা পাঠ করেন।

বিজেপি যুব মোর্চার হাওড়া জেলা সভাপতি ওমপ্রকাশ সিং জানান; যতদিন না রাস্তা আটকে নামাজ পড়া বন্ধ হবে; ততদিন আমরাও রাস্তা আটকে হনুমান চালিশা পড়ব। বিজেপির বক্তব্য; রাস্তা আটকে নামাজ পড়ার ফলে সাধারন মানুষ দুর্ভোগে পরে।

বিজেপির যুক্তি; ধর্মীয় রীতিনীতি পালন করতে হলে সেটা বাড়িতে করা উচিত। রাস্তা আটকে মানুষকে বিপদে ফেলা উচিত নয়। রাস্তায় বসে নামাজ পড়ার ফলে সাধারন জনগনের অসুবিধা হয়।

যুব মোর্চার সভাপতি ওমপ্রকাশ সিং এর মতে; মন্দির, মসজিদ, গুরুদ্বার বা চার্চ এগুলো হল ধর্মীয় আচার আচরণ পালনের জায়গা। তাই নামাজ পড়ার হলে মসজিদে বসেই পড়া উচিত।

মঙ্গলবার এই দাবিতে প্রতীকী আন্দোলন করে জিটি রোডে বিজেপি যুব মোর্চার পক্ষ থেকে পাঁচ বার হনুমান চালিশা পাঠ করা হয়। রাস্তা জুড়ে নমাজ পড়া বন্ধ না হলে; প্রতি মঙ্গলবার জেলার সমস্ত হনুমান মন্দিরের সামনে রাস্তা বন্ধ করে হনুমান চালিশা পাঠ করবে বিজেপি কর্মীরা।

বিজেপির তরফে জানানো হয়েছে; হিন্দুরা যেমন দুর্গাপুজো; ছট পুজো করে; তেমনই মুসলমানরাও নানা ধর্মীয় অনুষ্ঠান করতে পারে। কিন্তু শুক্রবারের মতো ব্যস্ত দিনে রাস্তা আটকে নামাজ পড়া যাবে না।

মঙ্গলবার রাস্তায় পাঁচ বার হনুমান চালিশা পাঠ করা হয় রাস্তা বন্ধ রেখে। আর তারপরে ব্যাপক যানজট শুরু হয় জি টি রোডে। বিজেপি নেতারা বলেন; পাঁচ মিনিটে যদি এমন যানজট হয়ে যায়; তাহলে সারা রাজ্যে শুক্রবার দেড় ঘণ্টা রাস্তা আটকে রাখলে কী অবস্থা হয়।

গেরুয়া শিবির হুঁশিয়ারি দেয় যে রাস্তায় বসে হনুমান চালিশা পাঠের জন্য কাউকে গ্রেফতার করা চলবে না। মঙ্গলবার কোনরকম অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে বালিখালে হনুমান চালিশা পাঠের সময় প্রচুর পুলিশ মোতায়েন রাখা হয়েছিল।

তৃণমূলের হাওড়া জেলার সভাপতি মন্ত্রী অরূপ রায় বলেন; রাস্তায় নামাজ পাঠ বহু বছরের প্রথা; জন্মের পর থেকেই এমনটাই বড় হয়েছি। নামাজ একটা ধর্মীয় রীতি। বিজেপি এ সব করে রাজ্যে বিশৃঙ্খলার পরিবেশ তৈরি করতে চাইছে।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন