“নেতাজীর আজাদ হিন্দ ফৌজ সেনাদের সঙ্গে তৃণমূলের ‘কাটমানি খোর’ ও ‘চালচোর’-দের তুলনা”

2265
"নেতাজীর আজাদ হিন্দ ফৌজ সেনাদের সঙ্গে তৃণমূলের 'কাটমানি খোর' ও 'চালচোর'-দের তুলনা"

“নেতাজীর আজাদ হিন্দ ফৌজের সেনাদের সঙ্গে; তৃণমূলের ‘কাটমানি খোর’ ও ‘চালচোর’-দের তুলনা”; তৃণমূল নেতা ও রাজ্যের মন্ত্রী ব্রাত্য বসুর নেতাজী-মমতা তুলনা নিয়ে; এমনটাই বললেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তৃণমূল ভবনে বিজেপিকে আ’ক্রমণ করতে গিয়ে, নিজের দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে; নেতাজী সুভাষচন্দ্র বসুর তুলনা টানেন ব্রাত্য বসু। তিনি বলেন; “নেতাজী সুভাষ চন্দ্র বসুকে যেভাবে কোণঠাসা করা হয়েছিল; বহিরাগত এনে মমতার সঙ্গে কি তারই পুনরাবৃত্তি হচ্ছে না? মমতাকেও, সুভাষের মতোই; লড়াই করতে হয়েছে। তৃণমূল কংগ্রেস নামক আজাদ হিন্দ ফৌজ; তৈরি করতে হয়েছে। আর এখন তাঁকে চাপে রাখতে; উত্তর ভারত থেকে লোক পাঠানো হচ্ছে”। নেতাজীর সঙ্গে মমতার তুলনা করে; গোটা বাংলাকেই চমকে দেন ব্রাত্য। তারই পাল্টা দিলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি।

“নেতাজী সুভাষচন্দ্র বসুকে যেভাবে; রাজনীতির শিকার করা হয়েছিলেন; ঠিক একইভাবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেও কোণঠাসা করার চেষ্টা করা হচ্ছে”; এমনই দাবি করলেন তৃণমূল নেতা ও রাজ্যের মন্ত্রী ব্রাত্য বসু। ‘বহিরাগত’ তরজায়; নতুন দাবি তুললেন তিনি। রাজনীতির ময়দানে, নানা ভাবে কোণঠাসা করার ফলে; ভারতের রাজনীতি থেকে চলে যেতে হয়েছিল সুভাষ চন্দ্র বোসকে। এবার সেই সময়ের তুলনা টেনে ব্রাত্যবাবুর দাবি; সেই একইরকম ভাবে রাজনীতির শিকার করা হচ্ছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে।

আরও পড়ুনঃ “নেতাজী সুভাষ চন্দ্র বসুর মতই, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে কোণঠাসা করার চেষ্টা হচ্ছে বাংলায়”

এদিন তিনি নেতাজীর সঙ্গে মমতার তুলনা করতে গিয়ে বলেন; “নেতাজী সুভাষ তৈরি করেছিলেন আজাদ হিন্দ ফৌজ; আর মমতার ফৌজের নাম তৃণমূল কংগ্রেস”। আর ব্রাত্য বসুর এই মন্তব্যের জেরে; শুরু হয়েছে জোর রাজনৈতিক বিতর্ক। সোশ্যাল মিডিয়ায় শুরু হয়েছে; জোর হাসাহাসি, বিতর্ক ও রসিকতা। নেটিজেনরা অনেকেই বলেছেন; “অনুপ্রেরণায় কি ব্রাত্য বসুর; মাথা খারাপ হয়ে গেল”।

ব্রাত্য বসুর এই উত্তরে, বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেছেন; “ভোটে হারার মুখে; অনেক নেতারই মাথা খারাপ হয়ে যাবে”। দিলীপ ঘোষ প্রশ্ন তোলেন, তা বলে; “নেতাজীর আজাদ হিন্দ ফৌজ সেনাদের সঙ্গে; তৃণমূলের ‘কাটমানি খোর’ ও ‘চালচোর’-দের তুলনা”? তবে, ব্রাত্য বসুর নেতাজী মন্তব্য নিয়ে; এখনও কোন তৃণমূল নেতা মুখ খোলেন নি। তবে, নেতাজী ও মমতা বিতর্ক কিন্তু; এত তাড়াতাড়ি থামার নয়।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন