ভাগাড় পচা মাংস কাণ্ডে মুখ পুড়ল সিআইডির, বেকসুর খালাস আসল অভিযুক্তরা

311
ভাগাড় পচা মাংস কাণ্ডে মুখ পুড়ল সিআইডির, বেকসুর খালাস আসল অভিযুক্তরা/The News বাংলা
ভাগাড় পচা মাংস কাণ্ডে মুখ পুড়ল সিআইডির, বেকসুর খালাস আসল অভিযুক্তরা/The News বাংলা
Simple Custom Content Adder

ভাগাড় কাণ্ডের তদন্তে; আদালতে মুখ পুড়ল সিআইডি-র র। দোষ প্রমাণ করতে না পারায়; ৬ জন পচা মাংস কারবারিকে; বেকসুর খালাস করল আদালত। ফরেনসিক রিপোর্টে মাংসে বিষাক্ত রাসায়নিক দেবার কথা উল্লেখ থাকলেও; সাক্ষীদের বয়ান, বিচারের সময় না মেলার জন্য আদালত ৬ অভিযুক্তকে বেকসুর খালাস করল।

ভাগাড়ের মাংস মামলায় ২ জনকে; ৫ বছরের হাজতবাসের রায় দিল বনগাঁ আদালত। তবে মূল ৬ জন অভিযুক্তকে; বেকসুর খালাস করেছে আদালত। ভাগাড় পচা মাংস কাণ্ড মামলায়; বুধবার রায় দিল বনগাঁ আদালত।

গতবছর ভাগাড়ের মরা ও পচা পশুর মাংস বিক্রির ব্যবসা; প্রকাশ্যে এসেছিল পশ্চিমবঙ্গে। বহু হোটেল, রেস্তোরাঁয় অভিযান চালিয়ে দেখা যায়; ভাগাড়ের মাংস কম দামে কিনে দেদার রান্না চলছে। ঘটনায় তোলপাড় হয়েছিল গোটা বাংলা। পচা মাংসের সঙ্গে সঙ্গে পচা মাছ বিক্রির অভিযোগে; ৮ জনকে গ্রাফতার করেছিল সিআইডি। পরে ৮ জন ধৃতের মধ্যে ২ জনকে; জামিনে মুক্তি দেওয়া হয়েছিল। বাকি ৬ জন মাংস বিক্রেতা জেলবন্দি ছিল।

ভাগাড় পচা মাংস কাণ্ডে; মূল মামলা শুরু হয় বজবজ থানায়। পুরসভার ভাগাড় থেকে মরা পশুর মাংস কেটে নিয়ে যাওয়ার সময়; ধরা পড়লে পচা মাংস বিক্রির চক্র সামনে আসে। পুলিশের হাত থেকে মামলা নিয়ে; সিআইডি তদন্ত শুরু করে। জানা যায়, মৃত পশুর মাংস কেটে রাখা হত কোল্ড স্টোরেজে। তারপর রেস্টুরেন্টে যেত। ঘটনায় হইচই পরে যায়; গোটা রাজ্যে।

কিন্তু যথাসময়ে ফরেনসিক রিপোর্ট না আসায়; আগেই ১২ জন অভিযুক্ত জামিন পেয়ে যায়। ভাগাড় পচা মাংস কান্ড সামনে আসার পর; বনগাঁ পুরসভার পুরপ্রধান এলাকার সব হোটেলের খাবার পরীক্ষা করার নির্দেশ দেন। তখন দুটো হোটেল থেকে; পচা মাংসও পাওয়া যায়। দুই হোটেল মালিককে গ্রেফতার করা হয়। তাদের জেরা করে জানা যায়; বজবজ কাণ্ডে ধৃতরাই এখানে মাংস সাপ্লাই করত। তখন এই অভিযুক্তদের ৬ জনকে হেফাজতে নেয় সিআইডি।

এরা প্রত্যেকেই ছিল মাংস কারবারি। হোটেল মালিকরাও এই মামলায়; আগেই জামিন পেয়ে যায়। তবে বিচার পর্ব শেষে বিচারক সেই হোটেল মালিকদের ৫ বছরের জেল হাজত আর ১ লক্ষ টাকা জরিমানা করেছেন। কিন্তু মূল পচা মাংস বিক্রয়কারীরা বেকসুর খালাস পেল সিআইডির ব্যর্থতায়।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন