নারী নির্যাতন রুখতে যোগী আদিত্যনাথের নয়া প্রকল্প ‘মিশন শক্তি’, নবরাত্রিতেই হয়ে গেল সূচনা

1480
নারী নির্যাতন রুখতে যোগী আদিত্যনাথের নয়া প্রকল্প ‘মিশন শক্তি’, নবরাত্রিতেই হয়ে গেল সূচনা
নারী নির্যাতন রুখতে যোগী আদিত্যনাথের নয়া প্রকল্প ‘মিশন শক্তি’, নবরাত্রিতেই হয়ে গেল সূচনা

নারী নির্যাতন রুখতে, যোগী আদিত্যনাথের নয়া প্রকল্প; ‘মিশন শক্তি’। নবরাত্রিতেই হয়ে গেল এর সূচনা। হাথরাস কাণ্ডের পর থেকেই, উত্তরপ্রদেশে নারী সুরক্ষা নিয়ে; নতুন করে প্রশ্ন উঠে গিয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের সরকারের বিরুদ্ধে, অভিযোগ উঠেছে; রাজ্যে ক্রমবর্ধমান নারী নির্যাতনের বিরুদ্ধে; সরকার যথাযথ পদক্ষেপ করছে না কেন। এই পরিস্থিতিতে নবরাত্রির সূচনাতে; রাজ্যে মহিলাদের সুরক্ষার জন্য ‘মিশন শক্তি’; কর্মসূচির উদ্বোধন করলেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী।

যোগী আদিত্যনাথ বলেন; “বলরামপুরের উন্নয়ন আর সমৃদ্ধির চ্যালেঞ্জ স্বীকার করে; আজ এখানে একসাথে ৫০০ কোটি টাকার বেশি খরচের প্রকল্পের শিলন্যাস হচ্ছে। মা-বোনেদের সন্মানের সাথে যে খেলবে; তাকে আইনের আওতায় এনে কঠোরতম শাস্তি দেওয়ার কাজ করবে এই প্রকল্প। মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ আরও ঘোষণা করেন যে; “এবার থেকে রাজ্য পুলিশে ২০ শতাংশ মহিলাদের; চাকরির সুযোগ করে দেওয়া হবে”।

আরও পড়ুনঃ ‘গদিপ্রিয়’ রাজনৈতিক নেতা-নেত্রী ও তাঁদের ‘অন্ধ তাঁবেদার’দের জন্য, বাংলায় বিপদে সাধারণ মানুষ

‘মিশন শক্তি’-র লক্ষ্যই হল; রাজ্যে নারীদের বিরুদ্ধে অপরাধ কমানো। শনিবার অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখার সময়, যোগী আদিত্যনাথ বলেন; ‘‘রাজ্যের ১৫৩৫টি থানায়, মহিলাদের অভিযোগ জানানোর জন্য; একটি আলাদা কক্ষ থাকবে। সেখানে একজন মহিলা কনস্টেবল তাঁদের অভিযোগ শুনবেন; এবং সেই অনুযায়ী দ্রুত পদক্ষেপ করবেন। মহিলাদের বিরুদ্ধে অপরাধীদের; দ্রুত শাস্তি দেওয়া হবে’’।

এর আগেও যোগী আদিত্যনাথ; রাজ্যে নারী সুরক্ষার জন্য বড় পদক্ষেপ নিয়েছিলেন। গত মাসে উনি ঘোষণা করেছিলেন যে; রাজ্যে কোথাও মহিলাদের সাথে অভদ্রতা হলে; অভিযুক্তের ছবি সেই এলাকার রাস্তায় রাস্তায় টাঙানো হবে। এমনকি অভিযুক্তদের সঙ্গ দেওয়া; মানুষদেরও ছাড়া হবে না। যোগী আদিত্যনাথের সেই ঘোষণার পর; এবার রাজ্য পুলিশে মহিলাদের অগ্রাধিকার; রাজ্যে নারীদের প্রতি হওয়া অত্যাচার কমাবে বলে আশা করছে বিশেষজ্ঞরা।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন